• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • TMC GENERAL SECRETARY ABHISHEK BANERJEE MEETS ROSHAN GIRI TO SOLVE POLITICAL ISSUES OF DARJEELING SB

Abhishek Banerjee: BJP-র পাহাড় 'রাজনীতি'কে জব্দ করার ছক, সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী স্বয়ং অভিষেক!

অভিষেক-রোশন বৈঠক

Abhishek Banerjee: পাহাড় সমস্যা মেটাতে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিমল গুরুঙ্গ-পন্থী নেতা রোশন গিরির সঙ্গে বৈঠক করলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

  • Share this:

#কলকাতা: পাহাড় সমস্যা সমাধানে এবার উদ্যোগী হলেন স্বয়ং তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবারই তিনি বৈঠক করলেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বিমল গুরুঙ্গ-পন্থী নেতা রোশন গিরির সঙ্গে। সেই বৈঠকে ছিলেন রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকও। সূত্রের খবর, পাহাড় সমস্যার রাজনৈতিক সমাধানে উদ্যোগী হতে চেয়েই এই বৈঠক হয়েছে। এদিন অভিষেকের কাছে রোশনের আবেদন ছিল, পাহাড় সমস্যা সমাধানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যেন কথা বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সকালে বিধানসভায় গিয়ে পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গেও দেখা করেন রোশন গিরি।

বস্তুত তৃতীয় বারের জন্য রাজ্যে বিপুল ক্ষমতা নিয়ে মসনদে বসলেও পাহাড় নিয়ে ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুশ্চিন্তা বাড়ছে। ইতিমধ্যেই পৃথক উত্তরবঙ্গ বা উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার দাবি তুলেছেন আলিপুরদুয়ারের সাংসদ তথা সদ্য নিযুক্ত কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী জন বার্লা। যদিও মন্ত্রী হওয়ার পর নিজের আগের অবস্থান থেকে কিছুটা পিছু হটে তিনি বলেছেন, 'আপাতত বিতর্ক বাড়াতে চান না।' কিন্তু তাঁর সেই কথায় বিশেষ গুরুত্ব দিতে নারাজ রাজ্যের শাসক দল তথা পাহাড়ের বিজেপি বিরোধীরা। দিন দুয়েক আগেই দার্জিলিংয়ের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা বলেছেন, 'পাহাড় নিয়ে অন্য কিছু ভাবছে কেন্দ্র।'

ফলে জন বার্লা, রাজু বিস্তাদের এই ধরনের মন্তব্য ফের পাহাড় নিয়ে দুশ্চিন্তার বাতাবরণ তৈরি করছে। অপরদিকে, পাহাড়ের একাধিক দলও ফের পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবি তুলেছে। এরই মধ্যে রোশন গিরির সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

যদিও পাহাড় রাজনীতির ওয়াকিবহল মহল বলছে, রোশনের সঙ্গে অভিষেকের বৈঠকের অন্য আঙ্গিকও আছে। পাহাড়ে বিমল গুরুঙ্গ ফেরার পর তাঁর শিবিরের সঙ্গে বিনয় তামাং শিবিরের সংঘাত এখন দিনের আলোর মতো স্পষ্ট। আর গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার দুই শিবিরের এই কোন্দলের ফারদা তুলছে 'বিচ্ছিন্নতাবাদীরা'। দুই শিবিরের সেই সংঘাত মেটাতেও অভিষেক উদ্যোগী হতে পারেন বলে মনে করছেন অনেকেই।

সূত্রের খবর, এদিন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করে রোশন পাহাড়ে পঞ্চায়েত ও দীর্ঘদিন না হওয়া জেলা পরিষদের ভোট করা নিয়েও আলোচনা করেন। অপরদিকে, জিটিএ-র মধ্যে জিইয়ে থাকা আইনি জটিলতার রফাসূত্র বের করতে আইনমন্ত্রী মলয় ঘটকের কাছে অনুরোধ জানান রোশন।

আগামী সপ্তাহেই উত্তরবঙ্গ সফরে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে রোশনের সঙ্গে অভিষেকের বৈঠক বিমল গুরুঙ্গ শিবিরকে চাঙ্গা করার একটা প্রয়াস বলেও অনুমান অনেকের।

Published by:Suman Biswas
First published: