সময় পেরনোর পরেও সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপির মুখে ‘বাংলা’-র প্রচার, কমিশনে নালিশ তৃণমূলের

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:May 17, 2019 08:49 PM IST
সময় পেরনোর পরেও সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপির মুখে ‘বাংলা’-র প্রচার, কমিশনে নালিশ তৃণমূলের
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:May 17, 2019 08:49 PM IST

#কলকাতা: সময়সীমা পেরনোর পরও বাংলাকে জড়িয়ে প্রচার বিজেপির। প্রতিবাদে নির্বাচন কমিশনে নালিশ জানাচ্ছে তৃণমূল। আজ দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে বাংলার ভোটে অশান্তির প্রসঙ্গ টেনে আনেন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ। তারজেরেই তৃণমূলের অভিযোগ, প্রচার শেষের পরও রাজ্যের ভোটারদের প্রভাবিত করতে চাইছে গেরুয়া শিবির।

অমিত শাহের রোড শো’কে কেন্দ্র করে অশান্তির জের। বুধবার নজিরবিহীনভাবে রাজ্যে তিনশো চব্বিশ ধারা প্রয়োগ করে নির্বাচন কমিশন। নির্ধারিত সময়ের কুড়ি ঘণ্টা আগে বন্ধ করে দেয় লোকসভা ভোটের শেষ দফার প্রচার। বৃহস্পতিবার রাত দশটায় শেষ হয়েছে প্রচারের সেই সময়সীমা। নিয়ম অনুযায়ী, তারপর আর লোকসভা ভোটের প্রচার করতে পারে না কোনও রাজনৈতিক দল। কিন্তু শুক্রবার বিকালে দিল্লিতে সাংবাদিক বৈঠকে বাংলার ভোট-প্রসঙ্গ টেনে আনলেন অমিত শাহ। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির পাশে বসেই অভিযোগ করলেন রাজ্যের ভোট-হিংসা নিয়ে।

সাংবাদিক বৈঠকে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেন, ‘বাংলায় ৮০ বিজেপিকর্মী খুন হয়েছেন ৷ কেন বিজেপিকর্মীদের প্রাণ গেল? উল্টে হিংসার অভিযোগ করছেন মমতা ৷ আমাদের বিরুদ্ধে হিংসার অভিযোগ মমতার ৷ শুধু বাংলাতেই কেন এত হিংসা? কী জবাব দেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?’

শাহের অভিযোগে ফুঁসছে ঘাসফুল ব্রিগেড। তৃণমূলের অভিযোগ, প্রচারের সময়সীমা পার হওয়ার পরেও, বাংলার ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন মোদি-শাহ। গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে কমিশনেও নালিশ তৃণমূলের।

প্রচারের সময়সীমা পেরনোর পরও বাংলার প্রসঙ্গ টেনে নির্বাচন বিধি ভেঙেছে বিজেপি? তা-ও আবার নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহরা? বল এখন কমিশনের কোর্টে।

First published: 08:49:01 PM May 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर