মোদির সভায় এলে, বিজেপিকে ভোট দিলে ১ হাজার টাকার ভেট! বিস্ফোরক অভিযোগ তৃণমূলের

মোদির সভায় এলে, বিজেপিকে ভোট দিলে ১ হাজার টাকার ভেট! বিস্ফোরক অভিযোগ তৃণমূলের

এই কুপনটিকেই সামনে এনেছে তৃণমূল। ছবি কাকলী ঘোষ দস্তিদারের ট্যুইটার

বুধবার তৃণমূলের তরফ থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে দাবি করা হল, বিজেপি এপ্রিল মাসের ১ তারিখ থেকে এই কুপন বিলি করছে।

  • Share this:

    #কলকাতা:  শর্ত ১- হাজিরা দিতে হবে নরেন্দ্র মোদির জনসভায়। শর্ত২- ভোট দিতে হবে বিজেপিকে। তাহলেই মিলবে কুপন। আর সেই কুপন ভাঙালেই ইনাম ১ হাজার টাকা। বাংলার ভোটরঙ্গে এমন ঘটনাই প্রকাশ্যে ঘটেছে বলে এবার অভিযোগ আনল তৃণমূল। তৃণমূলের বক্তব্য ওই কুপনে নরেন্দ্র মোদির ছবি রয়েছে, জনসভার কথা উল্লেখও করা রয়েছে। আজ, বুধবার তৃণমূলের তরফ থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে দাবি করা হল,  বিজেপি এপ্রিল মাসের  ১ তারিখ থেকে এই কুপন বিলি করছে।

    তৃণমূল সাংসদ শুখেন্দুশেখর রায় এ দিন সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন,  "বহু বিজেপি নেতার  সভাই ফাঁকা। খোদ অমিত শাহকেও হেলিকপ্টার বিভ্রাটের দোহাই দিয়ে পিছিয়ে আসতে হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সভার ক্ষেত্রে যাতে এইটা না ঘটে সেই কারণেই এই টাকা বিলি করা হচ্ছে। এই ধরনের ক্যাশ ফর ভোট, পশ্চিমবাংলার রাজনীতিতে কখনও ঘটেনি।" তৃণমূল চাইছে  অবিলম্বে  এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশন এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করুক।

    প্রসঙ্গত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বহুদিন ধরেই তাঁর জনসভায় বলে আসছেন বিজেপি ভোটের আগে বাড়ি বাড়ি টাকা বিলি করছে। অভিযোগ থাকলেও ঠিক কোথায় কখন কী ভাবে এই টাকা বিলি হচ্ছে তা স্পষ্ট করেননি তিনি। এর মধ্যেই পার হয়ে গিয়েছে ভোটের তিনটি দফা। চতুর্থ দফার আগেই এই বোমা ফাটাল তৃণমূল। তৃণমূল সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায় বলেন, "এটা ক্যাশ ফর ভোট। এখানে ভোটারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কুপন বিলি করা হয়েছে। ১ হাজারের অঙ্ক উল্লেখ করা হয়েছে। বিজেপি প্রার্থীকে ভোট দিলে এবং মোদির সভায় গেলে ১ হাজার টাকা পাওয়া যাবে।"

    সূত্রের খবর, তৃণমূল এই বিষয়ে কমিশনে লিখিত অভিযোগ জানাতে পারে। সুখেন্দুশেখররে কথায়, "আমরা চাইব টাকার বিনিময় ভোট, টাকার বিনিময়ে জনসভায় লোক জড়ো করা বন্ধ করতে পদক্ষেপ করুক নির্বাচন কমিশন।"

    Published by:Arka Deb
    First published: