ঋতুপর্ণার বাড়ির চোর ধরতে নারকো !

ঋতুপর্ণার বাড়ির চোর ধরতে নারকো !

ভিভিআইপি-র বাড়িতে চুরি। খোয়া যায় সোনার গয়না। যার তদন্তে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত কলকাতা পুলিশের।

  • Share this:

#কলকাতা: ভিভিআইপি-র বাড়িতে চুরি। খোয়া যায় সোনার গয়না। যার তদন্তে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত কলকাতা পুলিশের। সন্দেহজনক পরিচারিকার নারকো অ্যানালিসিস করা হবে। মারাত্মক অপরাধের কিনারা করতে যে পরীক্ষা করা হয়। তা সামান্য এই চুরির ঘটনায় কেন? ভিভিআইপি ট্রিনমেন্ট? নাকি অতি সাবধানী পুলিশ? যাঁরা অভিযোগ করেছেন, তাঁরাই চান না বহুদিনের পুরনো পরিচারিকাকে পুলিশ তুলে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করুক। তাই কি এই ব্যবস্থা? সত্যিই কি এটা করা প্রয়োজন ছিল? এনিয়ে অনেক তর্ক-বিতর্ক এমনকী মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। নারকো অ্যানালেসিস কী? কীভাবে তা করা হয়?

গত ৪ এপ্রিল জানা যায় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর মায়ের বাড়িতে চুরি হয়েছে। কবে চুরি হয়েছে বোঝা না গেলেও সেদিন জানা যায় ঘটনা। আলমারি থেকে প্রায় নয় লক্ষ টাকার গয়না চুরির তদন্ত শুরু করে শেক্সপিয়র থানার পুলিশ প্রথম থেকেই এই চুরি নিয়ে ধোঁয়াশায় ছিল।

অর্থাৎ বাড়ির কেউ জড়িত বলেই সন্দেহ পুলিশের। প্রথমেই সন্দেহের তালিকায় দীর্ঘদিনের পরিচারিকা। কিন্তু তাঁকে গ্রেফতারে আপত্তি খোদ অভিযোগকারীর।

সেই কারণেই নারকো অ্যানালিসিসের সিদ্ধান্ত। পরিচারিকার সম্মতির ভিত্তিতে অনুমতি দিয়েছে আদালত।

--- নারকো অ্যানালিসিস কী?

- প্রথমেই থিওপেনটন নামের রাসায়নিক প্রয়োগ করা হয়

- সোডিয়াম পেনটথল গোত্রের এই রাসায়নিক স্নায়ুতে প্রভাব ফেলে

- ওজন, শারীরিক ও মানসিক অবস্থা বিবেচনা করে এই রাসায়নিকের পরিমাণ ঠিক হয়

- অবচেতন অবস্থায় এবার প্রশ্ন করা শুরু হয়

- প্রথমে ঘটনার বাইরে বিভিন্ন কথা বলে নেওয়া হয়

- ধীরে ধীরে মূল প্রশ্ন করে সত্যি কথা বার করার চেষ্টা হয়

- পুরো পর্বের অডিও ও ভিডিও রেকর্ডিং করা হয়

- প্রশ্নোত্তর থেকে আসল সত্য বার করতে ফরেনসিক সাইকোলজিস্টের সাহায্য নেওয়া হয়

ইতিমধ্যেই নারকো অ্যানালেসিস নিয়ে বিতর্ক দেখা দিয়েছে।

- মানুষের মৌলিক অধিকারে আঘাত

- জোর করে নিজের বিরুদ্ধে নিজেকে অভিযুক্ত করানোর উদ্যোগ

তবে এর থেকেও বড় বিতর্ক, সামান্য চুরির ঘটনায় কেন নারকো অ্যানালিসিস? তদন্তের ব্যর্থতা? নাকি ভিভিআইপি-র মন রাখতে গিয়ে এমন কাজ? পরিচারিকাকে ধরে জিজ্ঞাসাবাদে এমন লক্ষ ঘটনার কিনারা করেছে কলকাতা পুলিশ। সেখানে এই ব্যতিক্রম নিয়ে প্রশ্ন ওঠাটাই স্বাভাবিক।

First published: 07:13:42 PM Jun 23, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर