• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • THE CIRCULAR FROM THE STATE NO VEHICLE SHOULD BRING WHENEVER COMES IN SCHOOL AN

ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে স্কুলে আসা যাবে না, দূষণ নিয়ন্ত্রণে কলকাতার ২৬ স্কুলে নির্দেশিকা রাজ্যের

নবান্ন ৷ ফাইল ছবি ৷

ইতিমধ্যেই কলকাতার কয়েকটি স্কুল কে এই নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। অভিভাবক ও পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে আগামী সপ্তাহ থেকে বৈঠকে বসতে চলেছে

  • Share this:

#কলকাতা: এবার থেকে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে স্কুলে আসা যাবে না। ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইব্যুনালের নির্দেশ মেনে নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর।দূষণ ও যানজট কমাতেই কলকাতার  ২৬ টি  স্কুলকে এই নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। স্কুল চত্বরে দূষণ নিয়ন্ত্রণে কড়া হচ্ছে রাজ্য সরকার। স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে আসার জন্য  পুল কার বা স্কুল বাসই ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে৷ এপ্রিল থেকেই এই নির্দেশিকা কার্যকরের কথা বলা হয়েছে ৷

গত বছরের শেষের দিকে কলকাতার ২৬  স্কুলের প্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করেন স্কুল শিক্ষা কমিশনার। বৈঠকেই স্কুলগুলিকে যানজট নিয়ন্ত্রণে কী কী  পরিকল্পনা আছে, তা লিখিত দিতে বলা হয়। তারপরই এই নির্দেশিকা জারি করল স্কুল শিক্ষা দফতর। নির্দেশিকাতে বলা হয়েছে, স্কুলগুলিকে অভিভাবকদের সঙ্গে এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় আলোচনা করতে হবে।ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে স্কুলগুলিকে স্থানীয় পুলিশ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে। তবে নির্দেশিকায় জরুরি অবস্থায় ছাড় দেওয়া হয়েছে৷ কোনও  জরুরি পরিস্থিতি তৈরি হলে,  অভিভাবকরা গাড়ি স্কুলে নিয়ে আসতে পারেন৷

স্কুলগুলিকে  বাস চালু করতে বলা হয়েছে৷  পুলকারের সংখ্যা বাড়ানো যায় কি না  তা নিয়েও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে। অভিভাবকরা স্কুল বাস না পুলকার, কোনটাতে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন, তাও জানতে চাইবে স্কুল৷

স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, ইতিমধ্যেই কলকাতার লা মার্টিনিয়ার স্কুল, ডন বস্কো পার্কসার্কাস, বিড়লা হাই স্কুল, সেন্ট জেমস, প্র্যাট মেমোরিয়াল, মডার্ন হাই স্কুল, সাখাওয়াত মেমোরিয়াল গার্লস হাই স্কুলের মত কয়েকটি স্কুলে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। স্কুলগুলিও চিঠি প্রাপ্তির কথা স্বীকার করেছে৷ স্কুলগুলি জানিয়েছে, দ্রুত  অভিভাবকদের সঙ্গে আলোচনায় বসা হবে। স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর, কোনও স্কুল যদি পরিবহণ দফতর থেকে বাসের আবেদন করে তারও ব্য়বস্থা হবে।

SOMRAJ BANDOPADHAY
Published by:file 18 user
First published: