রাজ্যপালের ক্ষমতা খর্ব, স্থগিত প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন

রাজ্যপালের ক্ষমতা খর্ব, স্থগিত প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন

মঙ্গলবার উচ্চশিক্ষা দফতর রাজ্যপালের ক্ষমতা নিয়ে বিধি জারি করেছে। তার জেরেই সমাবর্তন স্থগিত বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।

  • Share this:

Somraj Banerjee

#কলকাতা: স্থগিত হয়ে গেল মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বা রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন। বৃহস্পতিবার সমাবর্তন হবার কথা ছিল কল্যানী ক্যাম্পাসেই। মঙ্গলবার উচ্চশিক্ষা দফতর রাজ্যপালের ক্ষমতা নিয়ে বিধি জারি করেছে। তার জেরেই সমাবর্তন স্থগিত বলে বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর।ইতিমধ্যেই রাজ্যপাল তথা আচার্যকে চিঠি পাঠিয়ে জানিয়েছে রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। স্থগিত কেন তা নিয়ে অবশ্য উপাচার্য কোনো মন্তব্য করতে চাননি।

রাজ্যপাল তথা আচার্যের সম্মতি নিয়েই বৃহস্পতিবার রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানের দিন ঠিক হয়েছিল। একমাস আগেই রাজ্যপালের দফতর থেকে সমাবর্তনের দিনের কথা জানিয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়কে। কিন্তু মঙ্গলবার উচ্চশিক্ষা দফতর রাজ্যপালের ক্ষমতা নিয়ে নয়া বিধি জারি করেছে। এই বিধিতে বলা হয়েছে সেনেট বা সিন্ডিকেট অথবা এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল বৈঠক ডাকার আগে রাজ্যপালের সম্মতি নেওয়া বাধ্যতামূলক নয়। এরই পাশাপাশি এও বলা হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান করতে গেলে শুধুমাত্র রাজ্যপালকে জানালেই হবে। অনুমতি নিতে হবে উচ্চ শিক্ষা দফতরের। এরই সঙ্গে উচ্চ শিক্ষা দপ্তরের সঙ্গে কথা বলে কারা কারা ডি.লিট, ডিএসসি পাবেন তারও সম্মতি নিতে হবে। কার্যত বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাজ্যপালের ক্ষমতা অনেকটাই খর্ব করে দেওয়া হয়েছে নয়া বিধিতে। গতকাল থেকেই সেই নয়া বিধি জারি হওয়ার পরে আইনি জটিলতায় রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। মঙ্গলবার সেই বিধি জারি হবার পর পর বুধবার বৈঠকে বসেন রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিকরা। মূলত পুরনো নিয়মে কি সমাবর্তন অনুষ্ঠান হবে নাকি নয়া বিধিতে সমাবর্তন অনুষ্ঠান করা হবে তা নিয়ে আলোচনা হয়। বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আপাতত সমাবর্তন অনুষ্ঠান স্থগিত রাখা হবে।

এদিকে সমাবর্তন অনুষ্ঠান স্থগিত হওয়ার জেরে কয়েক হাজার পড়ুয়া সমস্যার সম্মুখীন হবে। সমস্যায় পড়বেন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ারাও।বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, প্রায় ৩৪ হাজার পড়ুয়াকে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে শংসাপত্র দেওয়ার কথা ছিল। তার মধ্যে বেশিরভাগই ছিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র-ছাত্রী। বি.টেক ও এম.টেক পড়া শেষ করে বিভিন্ন সংস্থায় চাকরি পাওয়ার জন্য এই শংসাপত্র টি কাজে লাগে ছাত্র-ছাত্রীদের। সে ক্ষেত্রে সব থেকে বেশি সমস্যায় পড়বেন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়ারা। তার পাশাপাশি ১৯০ জন পড়ুয়ার মেডেল পাওয়ার কথা ছিল বিভিন্ন বিষয়ে প্রথম হওয়ার স্বীকৃতি হিসাবে। সমাবর্তনে ১৪ জন পড়ুয়ার পিএইচডি ডিগ্রিও পাওয়ার কথা ছিল। ইতিমধ্যেই প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সমাবর্তন স্থগিত রাখার কথা। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর নতুন বিধি মেনে সমাবর্তন অনুষ্ঠান পরিচালনা করতে হলে জানুয়ারি মাসের আগে কোনওভাবেই সম্ভব নয়।

First published: 03:42:30 PM Dec 11, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर