• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • 'গান্ধি কলোনিকে গডসে কলোনি আপনারাই বানাবেন'! তথাগত রায় ও সায়নী ঘোষের ট্যুইট যুদ্ধ তুঙ্গে

'গান্ধি কলোনিকে গডসে কলোনি আপনারাই বানাবেন'! তথাগত রায় ও সায়নী ঘোষের ট্যুইট যুদ্ধ তুঙ্গে

photo source collected

photo source collected

বাকযুদ্ধের লড়াইটা শুরু হয়েছে টলিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোয ও প্রবীণ রাজনীতিক তথা প্রাক্তন ত্রিপুরা এবং মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ের মধ্যে। ট্যুইটারে একের পর এক বাক্যবাণ ছুঁড়ে চলেছেন তাঁরা।

  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই নানা দিকে তেড়ে চলছে লড়াই। এ বলে আমাকে দেখ তো ও বলে আমায়। তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে বাক্যবাণের লড়াই তো লেগেই আছে। পিছিয়ে থাকছেন না বামপন্থীরাও। আর দেশ ও দশের কথা নিয়ে শুধু যে রাজনীতিবিদরা কথা বলছেন তা নয়, এগিয়ে আসতে দেখা যাচ্ছে বিনোদন জগতের মানুষদেরও। স্বরা ভাস্করের মতো অভিনেত্রীরা গিয়ে বসে পড়ছেন কৃষকদের পাশে। মানুষের সঙ্গে দাঁড়িয়ে কথা বলছেন তাঁরা। তবে এবারের বাকযুদ্ধের লড়াইটা শুরু হয়েছে টলিউড অভিনেত্রী সায়নী ঘোয ও প্রবীণ রাজনীতিক তথা প্রাক্তন ত্রিপুরা এবং মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ের মধ্যে। ট্যুইটারে একের পর এক বাক্যবাণ ছুঁড়ে চলেছেন তাঁরা।

    ঘটনার সূত্রপাত সায়নীর একটি সাক্ষাৎকার ঘিরে। একটি টেলিভিশন চ্যানেলে এসে সায়নী কিছু কথা বলেন বিজেপিকে বিঁধে। আর তা থেকেই সূত্রপাত হয় ট্যুইট যুদ্ধের। সায়নী ওই সাক্ষাৎকারে পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘‘যে ভাবে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগানটিকে রণধ্বনিতে পরিণত করা হয়েছে, তা অত্যন্ত ভুল। উপরন্তু, এটি বাঙালি সংস্কৃতির মধ্যেও পড়ে না। ঈশ্বরের নাম ভালবেসে বলা উচিত।’’ তার পরেই এক নেটাগরিক ট্যুইট করে আক্রমণ করেন অভিনেত্রীকে। সেই ব্যক্তি দেশভাগের সময় মুসলিমদের ‘অপরাধ’-এর বিষয়টিও মনে করিয়ে দিয়েছেন সায়নীকে। সেখান থেকেই শুরু টুইট-যুদ্ধ। তার পরেই মাঠে নামেন প্রবীণ রাজনীতিক তথাগত। সায়নীকে ট্যাগ করে তিনি লেখেন, সায়নী ‘টাইপের’ মানুষকে ‘মূর্খ’ বলে মনে করেন তিনি। সেই তালিকায় যোগ করেন বাংলার বামপন্থী মানুষদেরও। ‘ছি! এ সব বলতে নেই। করুক না ওরা (মুসলিম) কিছু হিন্দু খুন ও মেয়েদের ধর্ষণ। হোক না সওয়া কোটি হিন্দু গৃহহীন, পথের ভিখারি। ওরাও তো মানুষ’।

    থেমে থাকেন না অভিনেত্রী। তিনি ট্যুইটের জবাবে লেখেন, "দেশভাগের সময় কত জন হিন্দুর মৃত্যু হয়েছিল, সে হিসেব করে এখন যাঁরা মুসলিমদের ‘মারব’ বলে শাসাচ্ছেন, তাঁরাই আদপে ‘গাঁধী কলোনি’-কে ‘গডসে কলোনি’ বানাবেন।" এর জবাব দেন ফের তথাগত। এমনকি সায়নী রোমান হরফে লিখছেন বলেও ট্যুইটারে কটাক্ষ করেন তথাগত। তবে এই ট্যুইট যুদ্ধ দেখে অনেকেই হাসির খোরাক খুঁজে পেয়েছেন। অনেকেই লিখেছেন, "এভাবে কাঁদা ছোঁড়াছোড়ি কি না করলেই নয়।" সায়নীকে 'টাইপ' বলে ট্যুইটে কটাক্ষ করার জবাবে অভিনেত্রী লেখেন, " আপনার মতো 'জিনিস' সত্যিই পশ্চিমবাংলার মানুষের কাম্য নয়।" যদিও শেষ ট্যুইটে তথাগত সায়নীকে ট্যাগ করে লেখেন, " আর পারছি না, ক্ষ্যামা দে মা লক্ষ্মী।" একজন প্রবীণ রাজনৈতিক বিদের কাছ থেকে এই ধরণের মন্তব্য কতটা কাম্য তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অভিনেত্রী।

    Published by:Piya Banerjee
    First published: