টার্গেট ২০২১, এপ্রিলেই রাজ্যে তাঁবু ফেলছেন অমিত শাহ 

টার্গেট ২০২১, এপ্রিলেই রাজ্যে তাঁবু ফেলছেন অমিত শাহ 

এপ্রিল মাস থেকে রাজ্য বিজেপি-কে আরও চাঙ্গা করতে অমিত শাহ ৩ দিন করে সময় দেবেন।

  • Share this:

ARNAB HAZRA

#কলকাতা: টার্গেট ২০২১। তাই  এপ্রিল থেকে রাজ্যে তাঁবু ফেলছেন অমিত শাহ।

এক সময় জাতীয় রাজনীতি করার জন্য কলকাতা ছেড়ে রাতারাতি দিল্লির ভোটার হয়ে যান মুকুল রায়। মুকুল কেন দিল্লিতে?  প্রশ্নটা যখন ঘুরপাক খাচ্ছে রাজনীতির বাতাসে ঠিক সেই সময় তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে  রাজ্যসভার সাংসদ পদ ছেড়ে পদ্ম শিবিরে নাম লেখান মুকুল। একদা তৃণমূলের সেকেন্ড ম্যান-এর ভবিষ্যৎবাণী যে ভুল ছিল না, তার হাতে গরম ফল বিজেপি পেয়েছে লোকসভা ভোটে। পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে প্রত্যাশা বেড়েছে বিজেপির। অ-মো জুটির কাছে হাই প্রায়োরিটি রাজ্য এখন বাংলা।

২০২১ বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে রবিবার নিউটাউনে ম্যারাথন বৈঠকের পর টার্গেট স্থির করে ফেলল পদ্ম শিবির। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন অমিত শাহ, জে পি নাড্ডা,  বি এল সন্তোষের মত কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। টার্গেট যাতে কোনওভাবেই বেচাল না হয়, তার জন্য এই রাজ্যে তাঁবু খাটানোর সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেলেছেন অমিত শাহ। এপ্রিল মাস থেকে রাজ্য বিজেপিকে আরও চাঙ্গা করতে আসরে নামবেন শাহ। মাসে ৩ দিন করে সময় দেবেন। এখানেই শেষ নয়, বৈঠকে কার্যকর্তাদের প্রশ্নের উত্তরে অমিত শাহ জানান, প্রয়োজন হলে অক্টোবর থেকে মাসে ৭ দিনও সময় দিতে পারেন তিনি।

বিজেপি নেত্রী দেবশ্রী চৌধুরী বলেন, "পুরভোটের টার্গেট স্থির করে দিয়েছেন অমিতজী। লোকসভা ভোটে ২২-২৩ লক্ষ্যমাত্রা ছিল, আমরা ১৮ আসনে জয়লাভ করেছিলাম। কয়েকটি আসনে কম ব্যবধানে পরাজিত না হলেই লক্ষ্যপূরণ হয়ে যেত আামাদের। একইরকমভাবে পুরসভা ধরে টার্গেট দেওয়া হয়েছে। তৃণমূলের সঙ্গে কোনওরকম সমঝোতায় না করে দিয়েছেন।" রাজ্যের সব বিজেপি সাংসদ এবং বিধায়কদের পুরভোটের দায়িত্ব ইতিমধ্যেই ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। লোকসভার বিজেপি পরাজিত প্রার্থীরা সংশ্লিষ্ট এলাকায় পুরভোটের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেবেন এমনটাও বার্তা দিয়েছেন শাহ। দলীয় নেতৃত্বকে নির্দেশ দিয়েছেন, সোশ্যাল সাইটের পাশাপাশি এবং বাড়ি বাড়ি গি্প্রয়ে প্রত্যক্ষ জনসংযোগ জোর আরও বাড়াতে হবে।

এদিকে, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের টোটকায় যে রাজ্য বিজেপি নেতারা উদ্বুদ্ধ হয়েছেন, তার প্রমাণ মিলল রবিবার রাত ১১ টা নাগাদ। বৈঠক শেষে বেরিয়ে বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, "রাজ্য থেকে তৃণমূল নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।"

First published: March 2, 2020, 3:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर