রাজধানী নয়, ঘরের মাঠেই শুভেন্দু-বরণ, স্বাগত জানাবেন শাহ, নিজেই জানালেন নন্দীগ্রামের নেতা

রাজধানী নয়, ঘরের মাঠেই শুভেন্দু-বরণ, স্বাগত জানাবেন শাহ, নিজেই জানালেন নন্দীগ্রামের নেতা

১৯ তারিখ বিজেপি সেনাপতি অমিত শাহের হাত থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া ব্যাটন তুলে নেবেন শুভেন্দু অধিকারী ৷

১৯ তারিখ বিজেপি সেনাপতি অমিত শাহের হাত থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া ব্যাটন তুলে নেবেন শুভেন্দু অধিকারী ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: News18 বাংলার খবরেই শিলমোহর ৷ ১৯ তারিখ বিজেপি সেনাপতি অমিত শাহের হাত থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া ব্যাটন তুলে নেবেন শুভেন্দু অধিকারী ৷ সূত্রের খবর, জল্পনায় শিলমোহর দিয়ে কাঁকসার গোপন বৈঠকে নিজেই একথা জানিয়েছেন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের জননেতা ৷ ঘনিষ্ঠদের বৈঠকে হলেও এই প্রথম নিজে মুখে বিজেপিতে  যোগের কথা জানালেন শুভেন্দু অধিকারী|

    নন্দীগ্রামের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফার পর থেকেই একের পর এক বিস্ফোরক পদক্ষেপ শুভেন্দুর ৷ বিধানসভায় ইস্তফা জমা দেওয়ার পরই সোজা কাঁকসায় বিক্ষুব্ধ তৃণমূল সাংসদ সুশীল মণ্ডলের বাড়িতে যান শুভেন্দু ৷ ঘনিষ্ঠ এই নেতার বাড়িতে বৈঠকে শুভেন্দু ও সুশীল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন আসানসোলের বিক্ষুব্ধ পুরপ্রশাসক জিতেন্দ্র তিওয়ারি ও পশ্চিম বর্ধমানের তৃণমূল নেতা দীপ্তাংশু চৌধুরী ৷ সেখানেই নিজের রাজনৈতিক ভবিষ্যত পরিকল্পনার কথা জানান শুভেন্দু ৷

    এমন কোনও চমকই যে অপেক্ষা করছে তার ইঙ্গিত মিলেছে আগেও ৷ শুভেন্দু ও বিজেপির একের পর এক পদক্ষেপ থেকেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল ১৯ তারিখ রাজ্য রাজনীতিতে ঘটতে চলেছে বিশাল বড় পালাবদল ৷ সেই পরিকল্পনাতেই শেষ মুহূর্তে তড়িঘড়ি অমিত শাহের কর্মসূচিতে বদল। সাংগঠনিক বৈঠক নয়, শনিবার মেদিনীপুরে প্রকাশ্য জনসভা করবেন বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি। শুভেন্দু অধিকারীর হাতে গেরুয়া পতাকা তুলে দিতেই এই আয়োজন ৷ঠিক ছিল শনিবার মেদিনীপুরে পৌঁছে পাঁচ সাংগঠনিক জেলার নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করবেন অমিত শাহ। কথা বলবেন কৃষকদের সঙ্গে। কিন্তু হঠাৎই কর্মসূচিতে পরিবর্তন। বৈঠক নয়। শনিবার মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে প্রকাশ্য জনসভা করবেন অমিত শাহ।

    জল্পনার শেষ, ঘোষণার শুরু ৷ সুদূর দিল্লি নয়, বাংলার মাটিতেই নিজের গড়ের মানুষকে সাক্ষী রেখে বিজেপি সেনাপতি অমিত শাহের হাত ধরে পদ্মশিবিরে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেবেন শুভেন্দু ৷ উল্লেখ্য, ৭ ডিসেম্বর এই মেদিনীপুর কলেজ ময়দানের মাঠেই জনসভা করে গিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ তার ১৩ দিন পরেই সেই স্থানে ঘাসফুলের সঙ্গে প্রায় আড়াই দশকের সম্পর্ক ঘুচিয়ে পাকাপাকিভাবে গেরুয়া শিবিরের সদস্য হতে চলেছেন নন্দীগ্রামের জননেতা ৷ এদিন সাংসদ পদে ইস্তফা দিয়েই শেষ সুতোটুকুও ছিঁড়ে ফেললেন শুভেন্দু ৷

    শুধু শুভেন্দুই নয়, ১৯ তারিখের এই জনসভায় নিজে হাতে শাহ বরণ করে নেবেন একাধিক তৃণমূল ত্যাগী, শাসকদলের বেসুরো বিধায়ক, সাংসদ ও নেতাকে ৷ বিজেপি শিবির ছাড়াও রাজ্য রাজনীতির অভ্যন্তরের সূত্র বলছে অমিত শাহের এবারের বাংলা সফরে খোদ সেনাপতির হাত ধরে দলে যোগ দেবেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর মতো শক্তিশালী ব্যক্তিত্ব ৷ পিছনে রয়েছেন আরও অনেকে ৷ মন্ত্রিসভার এক জনপ্রিয় তরুণ মন্ত্রীরও ইদানীং সুর তাল সবই তৃণমূলের থেকে আলাদা লয়েই বাজছে ৷ একপ্রকার তিনিও পা বাড়িয়ে রেখেছেন বললেই চলে ৷ অন্য সুর ধরেছেন আসানসোলের মেয়র ৷ বিদ্রোহী বিক্ষুব্ধর পোশাক গায়ে তুলে ফেলেছেন পূর্ব বর্ধমানের সাংসদও ৷ সূত্র বলছে শুভেন্দুর সঙ্গে শনিবার বিজেপি যোগে সঙ্গী হতে পারেন ব্যারাকপুরের বিধায়ক ৷ অতএব ভোট ময়দানের দলবদলের জল্পনা এখানেই শেষ নয়, শাহের এবারের বঙ্গ সফরে তৃণমূলের জন্য অপেক্ষা করছে আরও রক্তক্ষরণ ৷

    Published by:Elina Datta
    First published: