কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগ করলেও এখনই বিধায়ক পদ ছাড়ছেন না শুভেন্দু,

মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগ করলেও এখনই বিধায়ক পদ ছাড়ছেন না শুভেন্দু,
File Photo

মন্ত্রীত্ব ছাড়লেও এখনই ছাড়ছেন না বিধায়ক পদ, এর রাজনৈতিক তাৎপর্য যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ৷ কেন ছাড়লেন মন্ত্রীত্ব তাও ঘনিষ্ঠমহলে জানিয়েছেন শুভেন্দু.....

  • Share this:

#কলকাতা: শুভেন্দু অধিকারীর দলবদলের জল্পনা তুঙ্গে ৷ মন্ত্রীত্ব থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী ৷ তৃণমূল সরকারের মন্ত্রিসভায় রাজ্য পরিবহণ, সেচ এবং জলসম্পদ দফতরের মন্ত্রী ছিলেন শুভেন্দু ৷ সেই সমস্ত পদ থেকে এদিন ইস্তফা দিলেন নন্দীগ্রাম আন্দোলনের নেতা ৷ তবে মন্ত্রীত্ব ছাড়লেও বিধায়ক পদ এখনি ছাড়ছেন না তিনি ৷

শুক্রবার সকালে জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা সরিয়ে নেওয়ার প্রস্তাবের পর বেলা বাড়তেই মন্ত্রীত্ব থেকে ইস্তফার চিঠি পৌঁছে যায় কালীঘাটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে ৷ পাশাপাশি সেই একই চিঠি পদত্যাগ পত্র ই-মেলের মাধ্যমে রাজ্যপালের কাছে পাঠিয়ে দিয়েছেন শুভেন্দু ৷ তবে তিনি মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগ করলেও বিধায়ক পদে রয়ে যাওয়ার রাজনৈতিক গুরুত্ব অবশ্যই রয়েছে ৷ অর্থাৎ মন্ত্রী না হলেও এখনও তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী ৷ ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, নিজের রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে অন্য কোনও সিদ্ধান্ত নিলে বিধায়ক পদ ছাড়বেন বলে জানিয়েছেন শুভেন্দু ৷ অর্থাৎ এখনই দলত্যাগ করছেন তিনি বলেই মনে করা হচ্ছে ৷

মন্ত্রীত্ব ছাড়ার কারণ হিসেবে শুভেন্দু অধিকারীর ঘনিষ্ঠরা জানাচ্ছেন, দলে মন্ত্রী থেকেও একের পর এক অরাজনৈতিক সভার আয়োজনে বিতর্ক তৈরি হয় ৷ সেই কারণেই মন্ত্রীত্ব থেকে পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেন শুভেন্দু ৷

দলের সঙ্গে দূরত্ব বেশ কয়েক মাস ধরেই তৈরি হয়েছে ৷ তৃণমূলের তরফে সাংসদ সৌগত রায় দু’বার তার সঙ্গে বৈঠকে বসলেও কোনও রফাসূত্র বেরোয়নি ৷ সংগঠন নিয়ে ক্ষোভ বারবার উগরে দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী ৷ সংগছন নিয়ে তাঁর কিছু দাবি ছিল , তা নিয়ে কোনও সমাধান না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ হন তিনি ৷ শুধু মন্ত্রীত্ব নন, দলের একাধিক পদে রয়েছেন শুভেন্দু ৷ তা ছাড়ার প্রক্রিয়াও শুরু করেছেন তিনি ৷

বৃহস্পতিবারই হুগলি রিভার ব্রিজ কমিশন-এর চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করেন তিনি । সঙ্গে সঙ্গেই দলের তরফে এই দায়িত্ব দেওয়া হয় তৃণমূলের সাংসদ কল্যাণ বন্দোপাধ্যায়। গত কয়েকদিনে বারবার শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করেছেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, পদত্যাগের সঙ্গে সঙ্গেই দায়িত্ব কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে যাওয়ায় আরও ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন তিনি ৷ সেই ক্ষোভেরই বহিঃপ্রকাশ এদিনের মন্ত্রীত্ব ত্যাগ ও সরকারি সুরক্ষা ত্যাগ ৷ একে একে সব পদ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি ৷ তবে এখনই দল ছাড়ছেন না বলেই খবর ৷ সেকারণেই বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেননি শুভেন্দু বলে মনে করা হচ্ছে ৷

Published by: Elina Datta
First published: November 27, 2020, 3:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर