Home /News /kolkata /

Suvendu Adhikari: শুভেন্দু উত্থানকে বাধ্যত মান্যতা দিয়ে ফেললেন দিলীপ ঘোষরাও! কারণ জানুন...

Suvendu Adhikari: শুভেন্দু উত্থানকে বাধ্যত মান্যতা দিয়ে ফেললেন দিলীপ ঘোষরাও! কারণ জানুন...

ভোটের ফলের নিরিখে শুভেন্দু অধিকারীকে কুর্নিশ করছে রাজ্য বিজেপিও।

ভোটের ফলের নিরিখে শুভেন্দু অধিকারীকে কুর্নিশ করছে রাজ্য বিজেপিও।

Suvendu Adhikari: দলকে চাঙ্গা করতেই শুভেন্দুর সাফল্যকে প্রজেক্ট করা হল, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের।

  • Share this:

#কলকাতা: ২০০  আসনের দাবি নিয়ে লড়াই করে জুটেছে ৭৭। বিধি বাম এ কথা ঠিক। কিন্তু দলে রয়েছেন এমন একজন বিধায়ক, যাঁর নাম শুভেন্দু অধিকারী তিনি যা বলেছেন তা করে দেখিয়েছে, সংগঠনকে চাঙ্গা করতে রাজ্য কমিটির বৈঠকে দিলীপ ঘোষরা কার্যত শুভেন্দুর কৃতিত্ব মেনে নিলেন, মান্যতা দিলেন তাঁকে। দলকে চাঙ্গা করতেই শুভেন্দুর সাফল্যকে প্রজেক্ট করা হল, এমনটাই মত রাজনৈতিক মহলের।

মঙ্গলবার রাজ্য কমিটির বৈঠকে দিলীপ ঘোষ নিজের মুখে বললেন, আমরা এমন একজনকে পেয়েছি, যিনি মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে লড়াই করে জয় ছিনিয়ে নিয়েছেন। শুধু শুভেন্দুর জয়ই নয়। মঙ্গলবারের বৈঠকে যে কোনও নেতিবাচক সমালোচনাই কার্যত এগিয়ে গিয়েছে বিজেপি। অসময়ে ঘুরে দাঁড়াতে উত্থানকেই সামনে রাখা হয়েছে। আর সেই কারণেই বারবার সামনে এসেছেন শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু নিজেও নিজের কৃতিত্ব জাহির করতে কার্পণ্য করেননি। শুভেন্দু বারবার প্রমাণ করতে চেয়েছেন, তিনি যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দলকে তা রাখতে পেরেছেন, এমনকি ভালো ফল করেছেন তাঁর ঘনিষ্ঠরাও। মুখ্যমন্ত্রীকে হারিয়েছি, এই কথাও বারংবার বলতে শোনা যায় তাঁকে।

বৈঠকে শুভেন্দু বসেছিলেন সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তীর পাশের আসনে। বক্তাদের মধ্যে প্রথম সারিতেই ছিলেন তিনি। এদিন যখন সকলে সমালোচনা থেকে বিরত থাকছিলেন, বরাবর উল্টো স্রোতে হাঁটা  শুভেন্দু বললেন, বিধানসভাওয়াড়ি সমালোচনার কথা। বুথ সমীক্ষণ তত্ত্বও উঠে এল তাঁর কথায়। রাজনৈতিক মহলের ব্যখ্যা উপনির্বাচন এবং পুরনির্বাচনকে মাথায় রেখেই শুভেন্দু ঘুঁটি সাজানোর কথা ভাবছেন।

নির্বাচনের আগে থেকেই শুভেন্দু অধিকারীকে চূড়ান্ত গুরুত্ব দিয়েছে বিজেপি। ভোটের আগে শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি। ডাক পড়লেই শুভেন্দু অধিকারী ছুটে গিয়েছেন রাজধানীতে। এমনকি ভোট মিটতেও তাঁর রাজধানী গমন নিয়ে দলের অন্দরে কোন্দল কম হয়নি। শিবির ভাগাভাগিও প্রকট হয়েছে নানা সময়ে। কিন্তু আগামী দিনে ঘুরে দাঁড়াতে, স্ট্যাটেজি ঠিক করতে একদা মমতা ঘনিষ্ঠ শুভেন্দু অধিকারী যে প্রধান রথচালক হতে পারেন, তা কেন্দ্রীয় বিজেপি বুঝেছে ভালোই, সেই কারণেই তাঁকে ভরসা করা। আর এই একই কারনে এক যাত্রা পৃথক ফল হচ্ছে না রাজ্যে। শুভেন্দু অধিকারীর উত্থানকে কার্যত মান্যতা দিয়ে ফেলছে দিলীপ শিবির। কারণ একটাই তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোটে হারিয়েছেন।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: BJP, Suvendu Adhikari

পরবর্তী খবর