Suvendu Adhikari and Narendra Modi: চল্লিশ মিনিট সময়, মোদির সঙ্গে বৈঠক শুভেন্দুর! তালিকায় 'ব্যক্তিগত' আর্জিও?

মোদির কাছে শুভেন্দু

প্রধানমন্ত্রীর (PM Narendra Modi) সঙ্গে বৈঠকে একাধারে যেমন রাজ্যের ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের বিষয়টি তুলে ধরেছেন শুভেন্দু(Suvendu Adhikari), অপরদিকে সিএএ চালুর আর্জিও করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা।

  • Share this:

    কলকাতা: দিলীপ ঘোষের মতো রাজ্য বিজেপি নেতারা জানতেন না। অথচ রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) তখন দিল্লিতে। মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে বৈঠক করেন শুভেন্দু। আর বুধবার দুপুর বারোটা থেকে প্রায় চল্লিশ মিনিট তিনি বৈঠক করেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) সঙ্গে। আর সেই বৈঠকে কী কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে, তা নিয়ে শোরগোল পড়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে একাধারে যেমন রাজ্যের ভোট পরবর্তী সন্ত্রাসের বিষয়টি তুলে ধরেছেন শুভেন্দু, অপরদিকে সিএএ চালুর আর্জিও করেছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা।

    অপরদিকে, বিজেপিতে যোগদানের আগে শিশির অধিকারীকে নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল। গুঞ্জন ছড়িয়েছিল, তাঁকে রাজ্যপাল করতে পারে গেরুয়া শিবির। কিন্তু বঙ্গ ভোটে মুখ থুবড়ে পড়েছে বিজেপি। এরপর শিশিরকে কী পদ দেওয়া হবে, তা নিয়ে আলোচনা প্রায় ঠাণ্ডা ঘরে চলে গিয়েছিল। সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে বাবার রাজ্যপাল পদের জন্য তদ্বির করে থাকতে পারেন শুভেন্দু।

    যদিও বিজেপির শীর্ষ সূত্রের খবর, আগামী দিনে বাংলায় BJP কোন দিকে এগোবে, তা নিয়ে আলোচনা করতেই শুভেন্দুকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে। বাংলায় নির্বাচন-পরবর্তী হিংসার অভিযোগ নিয়ে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের দ্বারস্থ হওয়ার পরিকল্পনা করছে বিজেপি। দিলীপ ঘোষের নেতৃত্বে রাজ্যে BJP-র ১৮ জন সাংসদ দিল্লিতে গিয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে বাংলার নির্বাচন-পরবর্তী হিংসা নিয়ে স্মারকলিপি দিতে পারেন। যদিও দিলীপ ঘোষ এখনও রাজ্যেই রয়েছেন। অথচ বুধবার সকালেই বিজেপি-র তিন সাংসদ হঠাৎই দিল্লি গিয়েছেন।

    আর অর্জুন সিং, নিশীথ প্রামাণিক এবং সৌমিত্র খাঁয়ের এই দিল্লি যাত্রা নিয়ে ফের শুরু হয়েছে জল্পনা। কিন্তু কেন তাঁরা দিল্লি গেলেন, তা নিয়ে নানা প্রশ্ন ঘুরছে বিজেপি-র অন্দরে। কারণ ওই তিন সাংসদের দিল্লি যাত্রা নিয়েও কিছুই জানা নেই রাজ্য নেতাদের। কাকতালীয় ভাবে শুভেন্দু দিল্লিতে থাকাকালীন সেখানে গিয়েছেন রাজ্য বিজেপি-র ‘বিক্ষুব্ধ নেতা’ তথাগত রায়। মঙ্গলবার তিনিও নড্ডার সঙ্গে বৈঠক করেছেন।

    মঙ্গলবার কলকাতায় রাজ্যের নেতাদের বৈঠকে মুকুল রায়, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপস্থিতি নিয়ে এমনিতেই অস্বস্তিতে রয়েছে বিজেপি। এই পরিস্থিতিতে রাজ্য নেতাদের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাব বারবার সামনে চলে আসছে বলে মনে করছে বিজেপির একাংশ।

    যদিও শুভেন্দু অধিকারীর দিল্লি যাত্রা নিজেকে বাঁচাতেই বলে কটাক্ষ করেছে শাসক দল। তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ ট্যুইটারে লিখেছেন, 'দিল্লিতে যিনি দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন, তাঁর এটা আত্মরক্ষার সফর। স্পিকার যাতে সিবিআইকে গ্রেফতারের অনুমতি না দেন বা আগাম জামিনে সিবিআই যাতে সাহায্য করে, এইসব লবিবাজির মরিয়া চেষ্টা।'

    Published by:Suman Biswas
    First published: