কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ রবিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 05, 2017 08:57 AM IST
কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Feb 05, 2017 08:57 AM IST

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ রবিবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

রায়পুরের পুরনো বাড়িতে মেরে পুঁতেছি বাবা-মাকে, কবুল উদয়ন দাসের

গোড়ায় বলেছিল প্রেমিকা আমেরিকায়। শেষ পর্যন্ত তাঁর দেহ মিলেছে ভোপালের সাকেত নগরের বাড়ির মেঝে খুঁড়ে! ধরা পড়ার পরে প্রথমে সে বলেছিল, ২০১০-এ হৃদ্‌রোগে বাবা মারা গিয়েছেন রায়পুর হাসপাতালে। মা রয়েছেন আমেরিকায়। লাগাতার জেরার পরে তার স্বীকারোক্তি, বাবা-মায়ের দেহ পোঁতা রয়েছে ছত্তীসগঢ়ের রায়পুরে আগে সে যে বাড়িতে থাকত, তার বাগানে!

পনীরসেলভমকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর গদি কি আজই দখল করবেন শশিকলা?

আম্মার আসনে চিনাম্মাই! তামিলনাড়ুর সিংহাসন ঘিরে নাটক নতুন মোড় না-নিলে, রবিবারই এই সিদ্ধান্ত হয়ে যাবে। আগামিকাল এডিএমকে-র বিধায়করা গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক বসতে চলেছেন। এখনও পর্যন্ত যা ইঙ্গিত, ও পনীরসেলভমকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর গদি দখল করবেন নতুন সাধারণ সম্পাদক শশিকলা নটরাজন।আম্মার আসনে চিনাম্মাই! তামিলনাড়ুর সিংহাসন ঘিরে নাটক নতুন মোড় না-নিলে, রবিবারই এই সিদ্ধান্ত হয়ে যাবে। আগামিকাল এডিএমকে-র বিধায়করা গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক বসতে চলেছেন। এখনও পর্যন্ত যা ইঙ্গিত, ও পনীরসেলভমকে সরিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর গদি দখল করবেন নতুন সাধারণ সম্পাদক শশিকলা নটরাজন।

Loading...

বিচারপতিকে ট্রাম্পের তোপ, আদালতের নির্দেশে খুলল ভিসার দরজা

আদালতের রায়ে আপাতত আটকে গেলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিউ ইয়র্ক, ভার্জিনিয়ার পর এ বার বেঁকে বসলেন সিয়াটলের এক ফেডেরাল বিচারপতি। সাফ জানালেন, দেশের সর্বত্র এখনই তুলে নিতে হবে নিষেধাজ্ঞা। ‘নিষিদ্ধ’ ৭ মুসলিম দেশ থেকে ঢুকতে দিতে হবে অভিবাসীদের। এমনকী, শরণার্থীদের জন্যও দরজা বন্ধ রাখা যাবে না। ফলে এই মুহূর্তে উলটপুরাণের পথে হাঁটতে বাধ্য হচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন।

বাড়ছে পাক সেনার সক্রিয়তা, প্যাঁচে শরিফ, ধীরে চলো নীতি দিল্লির

বড় রকমের রাজনৈতিক সঙ্কটের মুখে এখন নওয়াজ শরিফ। পাকিস্তান সরকারের আশঙ্কা, পানামা-দুর্নীতির জেরে সুপ্রিম কোর্ট কিছু দিনের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীকে বরখাস্ত পর্যন্ত করতে পারে। আর সম্ভাব্য সেই নাটকীয় ঘটনার পিছনে আছে পাক সেনাবাহিনীর সক্রিয় মদত। পরিস্থিতি এতটাই ঘোরালো হয়ে উঠেছে যে, ভারতের কাছে পাক সরকার ‘ট্র্যাক-টু’ কূটনীতির মাধ্যমে জানিয়েছে, এই সঙ্কটের সময়ে নরেন্দ্র মোদী সরকার যাতে নওয়াজের পাশে থাকেন। সেনাবাহিনী-আইএসআই ও মৌলবাদীদের সঙ্গে নওয়াজের সম্পর্ক আবার দ্রুত খারাপ হতে শুরু করেছে। এই অবস্থায় নওয়াজের অনুরোধ, ভারত দ্রুত বিদেশসচিব পর্যায়ের আলোচনা নতুন উদ্যমে শুরু করুক। পাকিস্তানের বক্তব্য, দু’পক্ষের আলোচনা শুরু হয়ে গেলে সেনাবাহিনীর প্রাসঙ্গিকতা কমে যায়। সচিব পর্যায়ে আলোচনা বন্ধ হলেই কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণরেখায় গোলাবর্ষণ বেড়ে যায়। এমনকী আলোচনার সম্ভাবনা দেখা দিলেই এই সন্ত্রাস সেনাবাহিনী বাড়িয়ে দেয়, কারণ আলোচনা শুরু হলে নির্বাচিত সরকারের গুরুত্ব ইসলামাবাদে বেড়ে যায়। ভারত অবশ্য এখনও এ ব্যাপারে হাতের তাস নওয়াজকে আনুষ্ঠানিক ভাবে দেখায়নি। তবে আপাতত পাকিস্তান নিয়ে ধীরে চলার ইঙ্গিতই দিয়েছে দিল্লি। তারা জানিয়েছে, যদি সন্ত্রাস নিয়ে পাকিস্তান আরও কিছু সুনির্দিষ্ট ব্যবস্থা নেয়, তা হলে উত্তরপ্রদেশ ভোটের পরে আলোচনা শুরু হতে পারে।

bartaman_big11

আকাঙ্ক্ষাই নয়, নিজের বাবা-মাকেও খুন করে পুঁতেছিল উদয়ন

বাঁকুড়ার তরুণী আকাঙ্ক্ষা শর্মাই তাঁর প্রথম শিকার ছিলেন না। একই কায়দায় এর আগে নিজের বাবা-মাকেও খুন করেছিল উদয়ন দাস। পুলিশি জেরায় এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য কবুল করেছে সে। তবে নিজের প্রেমিকাকে খুনের বিষয়েও বারবার বয়ান বদল করায়, উদয়নের এই নয়া দাবির সত্যতা খতিয়ে দেখতে চাইছে পুলিশ। তাকে নিয়ে ইতিমধ্যেই ছত্তিশগড়ের রায়পুরে রওনা দিয়েছে পুলিশের টিম। পুলিশি জেরায় ধৃত উদয়ন দাস স্বীকার করে নিয়েছে, প্রায় বছর ছয় আগে তার বাবা-মাকেও সে খুন করে মাটিতে পুঁতে দেয়। ভোপালের পুলিশ সুপার সিদ্ধার্থ বহুগুনা জানিয়েছেন, জেরায় উদয়ন স্বীকার করে নিয়েছে যে, সে তার বাবা-মাকে ২০১০-১১ সালে গলা টিপে খুন করেছিল। তারপর তাদের রায়পুরের বাড়িতে পুঁতে রেখে দেয়।

ক্রাইম সিরিজের ভক্ত ছিল ‘সাইকো কিলার’ উদয়ন দাস

ইংরেজি সিরিয়াল ‘ওয়াকিং ডেড’-এর ভক্ত ছিল ‘সাইকো কিলার’ উদয়ন দাস। তদন্তকারী অফিসারদের উদয়ন জানিয়েছে, সে ওই সিরিয়াল দেখতে আর তার বাস্তব রূপায়ণ করতে ভালোবাসত। তদন্তকারী আধিকারিকরা তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ক্রাইম সিরিজের বহু সিডি ও বই পেয়েছেন। আধিকারিকদের অনুমান, আকঙ্ক্ষা কিংবা তার বাবা-মাকে খুন করা ও দেহ লোপাটের কৌশল এইসব বই পড়ে ও সিনেমা দেখেই শিখেছিল উদয়ন। তদন্তকারী আধিকারিকদের উদয়ন জানিয়েছিল, সে দিল্লির আইআইটি’র ছাত্র। কিন্তু তদন্তের পর আধিকারিকরা জেনেছেন, এই তথ্য ছিল সম্পূর্ণ মিথ্যা। সে ভোপালের একটি স্কুল থেকে পাশ করেছিল। পড়াশোনায় উদয়ন খারাপ ছিল না। কিন্তু কলেজে ঢোকার পর থেকেই উদয়নের জীবন পালটাতে থাকে। নেশাগ্রস্ত উদয়ন পড়া শেষই করতে পারেনি।

ঘনঘন কেন হাসপাতালে ভরতি গৌতম কুণ্ডু, তদন্তে গোয়েন্দারা

জেল হাসপাতাল থেকে রোজভ্যালিকর্তা গৌতম কুণ্ডুকে ঘন ঘন ভরতি করা হচ্ছে সরকারি সুপার স্পেশালিটি পিজি হাসপাতালে। কিছুদিন চিকিৎসার পর সেখান থেকে ফের তাঁকে ফিরিয়ে নিয়ে আসা হচ্ছে প্রেসিডেন্সি সংশোধনাগারে। রোজভ্যালিকর্তার অসুখটা আসলে কী? তাঁর চিকিৎসা কি জেল হাসপাতালে সম্ভব নয়? তা জানতে এবার তদন্ত শুরু করছে সিবিআই এবং ইডি। সূত্রের খবর, সারদা রিয়েলটি মামলায় ‘প্রভাবশালী’ কয়েকজন ধৃতকে যেমন এইমসের চিকিৎসকদের দিয়ে চিকিৎসা করানোর পরিকল্পনা করেছিল সিবিআই, এবার ঠিক সেভাবেই গৌতম কুণ্ডুরও চিকিৎসার পরিকল্পনা করছে ওই দুই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। যাতে রোজভ্যালিকর্তার স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সঠিক তথ্য এবং তাঁকে পিজি হাসপাতালে ভরতি করার প্রয়োজন আছে কি না জানা যায়। নাকি ওই সরকারি হাসপাতালে ভরতির পিছনে অন্য কোনও উদ্দেশ্য রয়েছে। এসব জানতেই ওই দুই তদন্তকারী সংস্থা বিশেষভাবে উদ্যোগী হয়েছে।

সম্পত্তি নষ্ট আইনে জরিমানা দিতে হবে এলাকাবাসীকেও

বিক্ষোভ-আন্দোলনের নামে সম্পত্তিহানি রোধে এবার এলাকাবাসীর উপর ক্ষতিপূরণের দায় চাপানোর রাস্তায় হাঁটতে চলেছে রাজ্য সরকার। ক্ষতিকর আন্দোলনে উৎসাহ বা হাঙ্গামাকারীদের মদত দিলে সাধারণ নাগরিকদের এই জরিমানার অঙ্ক গুনতে হবে। আন্দোলনের নামে সম্পত্তিহানি রুখতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাজ্য সরকার যে সংশোধনী আইন আনতে চলেছে, তাতে এই কড়া বার্তা দেওয়া হয়েছে। সংশোধনীর এই বিষয়টি নিয়ে স্বাভাবিকভাবে বিতর্ক ওঠার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। শাসক শিবির মনে করছে, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ছুতোনাতা ইস্যুতে বিক্ষোভের নামে যেভাবে সরকারি-বেসরকারি সম্পত্তি নষ্ট করা হচ্ছে, তাতে সাধারণ মানুষের পিছনে কিছু পাকা মাথার লোকজনের ইন্ধন থাকার স্পষ্ট ইঙ্গিত মিলেছে। ভাঙড়, আউশগ্রাম, রসপুঞ্জ প্রভৃতি ক্ষেত্রে এটা দিনের আলোর মতো দেখা গিয়েছে। তাই এইসব পাকা মাথার লোকজনের নাগাল পেতে এই ধরনের কড়া বিধির প্রয়োজন রয়েছে। অন্যদিকে, বিরোধীদের বক্তব্য, গণ আন্দোলন কোনও নির্দিষ্ট ধারাপাত মেনে হয় না। সেটা নন্দীগ্রাম-সিঙ্গুর আন্দোলনের সময় যিনি সবচেয়ে বেশি প্রয়োগ করেছেন, তাঁর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ei samay

‘খেতে পাস না তো, আয় খেয়ে যা’ ! BSF জওয়ানদের এখন এভাবেই খিল্লি করছে পাকিস্তান

জঙ্গি অনুপ্রবেশ বন্ধ না করলে পাকিস্তানকে ফের ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের’ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং ৷ কিন্তু, এই ঘটনার একদিন পরই ভারতীয় সেনাবাহিনীকে কার্যত লজ্জায় ফেলল পাকিস্তান ৷

কাশ্মীরে খতম হিজবুলের ২ শীর্ষ জঙ্গি

উত্তর কাশ্মীরের বরামুল্লায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে মারা পড়েছে হিজবুল মুজাহিদিনের দুই শীর্ষ জঙ্গি ৷ নিহত দুই জঙ্গির নাম আজাহারউদ্দিন ওরফে গাজি উমর ও সাজিদ আহমেদ ওরফে বাবর ৷

প্রথম দফায় শান্তিপূর্ণ ভোট পঞ্জাব-গোয়ায়

পাঁচ রাজ্যের ভোটগ্রহণ শুরু হল আজ শনিবার থেকে ৷ প্রথম দফায় পঞ্জাবে বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছাড়া মোটের ওপর শান্তিরপূর্ণই ছিল পরিস্থিতি ৷ দুই রাজ্যের বিরাট সংখ্যাক মানুষ বুথমুখী হন ৷ পঞ্জাব ভোট পড়েছে ৭০ শতাংশেরও বেশি ৷ অন্যদিকে গোয়ায় ভোট দিয়েছেন ৮৩ শতাংশ ভোটের ৷

কেলেঙ্কারি মানেই সপা, কংগ্রেস, অখিলেশ, মায়াবতী: মোদী

‘সপা থেকে কংগ্রেস, অখিলেশ থেকে মায়াবতী-দুর্নীতিতে জড়িয়ে সবাই ৷’ মীরাটের একটি জনসভায় দাঁড়িয়ে এভাবেই সব রাজনৈতিক দলকে আক্রমণ করলেন প্রধনমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ৷ তিনি বলেন, ‘Scam হল সমাজবাদী পার্টি, কংগ্রেস, অখিলেশ এবং মায়াবতীর শর্ট ফর্ম ৷ বিজেপি এখানে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে চাইছে ৷

First published: 08:57:28 AM Feb 05, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर