corona virus btn
corona virus btn
Loading

গ্যাস লিক করে মৃত সেই প্রেসিডেন্সির ছাত্রীর পরিবারকে ৬৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ গ্রিন ট্রাইবুনালের

গ্যাস লিক করে মৃত সেই প্রেসিডেন্সির ছাত্রীর পরিবারকে ৬৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ গ্রিন ট্রাইবুনালের
জাতীয় পরিবেশ আদালত

দ্য গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই সংস্থা ক্ষতিপূরণের টাকা সময় মত না-চোকালে অতিরিক্ত ১২ শতাংশ সুদ সহ টাকা মেটাতে হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছে গ্রিন ট্রাইবুনালের বিচারপতি এস ওয়াংডি-র বেঞ্চ।

  • Share this:

#কলকাতা: গ্যাসলিক কাণ্ডে মৃত প্রেসিডেন্সি ছাত্রী সুমন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবারকে ৬৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ নির্দেশ দিল ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইবুনাল। সুমন্তিকার পরিবারকে ১ মাসের মধ্যে ক্ষতিপূরণের টাকা দ্য গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই-কে মিটিয়ে দিতে হবে বলে নির্দেশ ন্যাশনাল গ্রিন ট্রাইবুনালের।

দ্য গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই সংস্থা ক্ষতিপূরণের টাকা সময় মত না-চোকালে অতিরিক্ত ১২ শতাংশ সুদ সহ টাকা মেটাতে হবে বলেও জানিয়ে দিয়েছে গ্রিন ট্রাইবুনালের বিচারপতি এস ওয়াংডি-র বেঞ্চ। বুধবার ভিডিও শুনানির পর রায় ঘোষণা করে এই নির্দেশ জানিয়ে দেয় জাতীয় পরিবেশ আদালত। মৃত ছাত্রী সুমন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাবা দেবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষতিপূরণ চেয়ে গ্যাস সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা করেন ট্রাইবুনালে।

২০১৫ সালের ৪ জানুয়ারি কলেজ স্ট্রিটে মেস থেকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার হন সুমন্তিকা৷ তাঁকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। কলকাতা পুলিশের মুচিপাড়া থানা ঘটনার তদন্তে নামে। কলেজ স্ট্রিটের যে ঘরে থাকতেন সুমন্তিকা ও তাঁর সহপাঠী, সেই ঘরের জানলার নীচেই ছিল গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই-এর পাইপলাইন। সেই পাইপলাইন লিক হয়ে গ্যাস বের হতে থাকে। সেই বিষাক্ত গ্যাসের কারণেই মৃত্যু হয়েছে সুমন্তিকার, পুলিশের তদন্তে এমন তথ্য সামনে আসে৷

এরপরই গ্যাস সংস্থার বিরুদ্ধে গ্রিন ট্রাইবুনালের দ্বারস্থ হন যান জলপাইগুড়ির সুমন্তিকার পরিবার। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের পর্দার্থ বিজ্ঞানে স্নাতকোত্তরের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন সুমন্তিকা। সুমন্তিকার পরিবারের আইনজীবী সোমনাথ রায়চৌধুরী বেলন, "দীর্ঘ লড়াইয়ের পর বড় জয়। ৬৪ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের নির্দেশ দিয়েছে গ্রিন ট্রাইবুনাল। ১ মাসের মধ্যে ক্ষতিপূরণ মেটানোর সময় বেঁধে দিয়েছে আদালত।"

ARNAB HAZRA

Published by: Arindam Gupta
First published: July 30, 2020, 1:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर