Home /News /kolkata /
‘নিজেদের লোককে গুলি করে রাজনীতি করছে বিজেপি, মিছিলে ছিল একাধিক শটগান’, দাবি সুব্রত মুখোপাধ্যায়

‘নিজেদের লোককে গুলি করে রাজনীতি করছে বিজেপি, মিছিলে ছিল একাধিক শটগান’, দাবি সুব্রত মুখোপাধ্যায়

তৃণমূল ভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ প্ররোচনা থাকা সত্ত্বেও গতকাল পুলিশ কোনও গুলি চালায়নি ৷ প্রথম থেকে প্ররোচনা দিচ্ছিল বিজেপি ৷ হাজার প্ররোচনা সত্ত্বেও পুলিশ প্ররোচিত হয়নি ৷ পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে, গুলি চালায়নি ৷ পুলিশ গুলি চালালে একজন নয়, ওখানে বহু মানুষ মারা যেত ৷’

তৃণমূল ভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘ প্ররোচনা থাকা সত্ত্বেও গতকাল পুলিশ কোনও গুলি চালায়নি ৷ প্রথম থেকে প্ররোচনা দিচ্ছিল বিজেপি ৷ হাজার প্ররোচনা সত্ত্বেও পুলিশ প্ররোচিত হয়নি ৷ পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে, গুলি চালায়নি ৷ পুলিশ গুলি চালালে একজন নয়, ওখানে বহু মানুষ মারা যেত ৷’

এরপরই বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর কারণ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন পুলিশ ওতো ছোট গুলি ব্যবহার করেন না ৷ পুলিশ ছিল একদিকে, ওই ব্যক্তি ছিলেন অন্যদিকে। মিছিলেই কেউ কেউ শটগান এনেছিল ৷

  • Share this:

    #কলকাতা: উত্তরকন্যা অভিযানে বিজেপি কর্মীর মৃত্যু নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি ৷ পোস্টমর্টেমের রিপোর্ট আসতেই নতুন করে শুরু অভিযোগ পাল্টা অভিযোগের পালা ৷ মিছিলে শটগান এনে নিজেদের লোককেই মেরে রাজনীতি করছে বিজেপি, মন্তব্য সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের ৷

    সোমবার শিলিগুড়িতে বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযানে মৃত্যু হয় বিজেপি কর্মী উলেন রায়ের ৷ মৃত্যুর কারণ নিয়েই শুরু শাসক বিজেপি বাদানুবাদ ৷ পোস্টমর্টেনের রিপোর্টে জানা গিয়েছে, ছররা গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে ওই বিজেপি কর্মীর । কিন্তু বিতর্ক থামেনি এতেও । কে বা কারা গুলি করল, তা নিয়ে চড়ছে রাজনীতির পারদ ৷ মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই তৃণমূল নেতা বলেন, ‘ প্ররোচনা থাকা সত্ত্বেও গতকাল পুলিশ কোনও গুলি চালায়নি ৷ প্রথম থেকে প্ররোচনা দিচ্ছিল বিজেপি ৷ হাজার প্ররোচনা সত্ত্বেও পুলিশ প্ররোচিত হয়নি ৷ পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে, গুলি চালায়নি ৷ পুলিশ গুলি চালালে একজন নয়, ওখানে বহু মানুষ মারা যেত ৷’

    এরপরই বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর কারণ নিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা সবাই জানেন পুলিশ ওতো ছোট গুলি ব্যবহার করেন না ৷ পুলিশ ছিল একদিকে, ওই ব্যক্তি ছিলেন অন্যদিকে। মিছিলেই কেউ কেউ শটগান এনেছিল ৷ নিজেদের গুলিতেই মৃত্যু হয়েছে বিজেপি কর্মীর ৷ পোস্টমর্টেমের রিপোর্টেই জানা গিয়েছে, খুব কাছ থেকেই গুলি করা হয়েছে ৷পুলিশ শটগান ব্যবহার করে না ৷’

    একইসঙ্গে নিজেদের কর্মীর মৃত্যু নিয়ে গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে রাজনীতি করার অভিযোগ তোলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায় ৷ বলেন, ‘ক্ষমতার লোভে পাগল হয়ে গিয়েছে বিজেপি ৷ বাংলায় অশান্তি সৃষ্টি করছে ৷ শিলিগুড়িতে নয়া ইস্যু তৈরি করতে চাইছে বিজেপি ৷ মিছিলে একাধিক শটগান নিয়ে গিয়েছিল তারা। আশা করি ভবিষ্যতে এরকম কাজ আর কেউ করবে না।’

    গতকাল অর্থাৎ সোমবার বিজেপির উত্তরকন্যা অভিযান মিছিল হয় শিলিগুড়িতে । ওই মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন দিলীপ ঘোষ, সায়ন্তন বসু, জয়ন্ত রায়রা। মাঝ রাস্তায় পুলিশ মিছিল আটকাতেই তা রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় । লাঠি, কাঁদানে গ্যাস, জল কামান, ছররা গুলি চালাতে বাধ্য হয় পুলিশ । এই সংঘর্ষের মধ্যেই মৃত্যু হয় উলেনবাবুর । গতকালই তাঁর ময়নাতদন্তের রিপোর্ট সামনে আসে । সেখানেই উল্লেখ করা হয়, রবার বুলেটেই মৃত্যু হয়েছে ওই কর্মীর ।

    বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর প্রতিবাদে আজ ১২ ঘণ্টার উত্তরবঙ্গ ধর্মঘট ডেকেছে বিজেপি । সকাল থেকেই প্রায় স্তব্ধ শিলিগুড়ি । বাজারহাট তেমন খোলেনি, রাস্তায় যানবাহনও উল্লেখযোগ্য হারে কম । এ দিন শিলিগুড়ির এয়ারভিউ মোড়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পোস্টার ছিড়ে দেয় বিজেপি কর্মীরা । তৃণমূলের কর্মীদের সঙ্গে কয়েক দফা মারমিটও হয় বিজেপি সমর্থকদের । শহরের মোড়ে মোড়ে রয়েছে পুলিশি পাহারাও ।

    Published by:Elina Datta
    First published:

    Tags: TMC

    পরবর্তী খবর