• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • রবিবারই শুভেন্দু অধিকারীর সাংবাদিক বৈঠক? জার্সিবদল নাকি নতুন অঙ্ক

রবিবারই শুভেন্দু অধিকারীর সাংবাদিক বৈঠক? জার্সিবদল নাকি নতুন অঙ্ক

শুভেন্দু অধিকারীর সাংবাদিক বৈঠকের সম্ভাবনা রবিবার।

শুভেন্দু অধিকারীর সাংবাদিক বৈঠকের সম্ভাবনা রবিবার।

তৃণমূলও এবার আলোচনা বন্ধ করতে চাইছে। এই অবস্থায় পড়ে থাকে আর একটাই প্রশ্ন, শুভেন্দু অধিকারী কি তবে সাংবাদিক বৈঠক করবেন?

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:  কথা ছিল যৌথ বৈঠক হবে। ৭ ডিসেম্বর জেলাসফর শুরু করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আগে ৬ ডিসেম্বর দলের পাশে দাঁড়িয়েই মধুরেণ সমাপয়েৎ বার্তা দেবেন তিনি। কিন্তু চব্বিশ ঘণ্টায় সব তছনছ হয়েছে। একদিকে শুভেন্দু অধিকারী যেমন অভিযোগের আঙুল তুলে ফের দেওয়াল তুলেছেন, তৃণমূলও এবার আলোচনা বন্ধ করতে চাইছে। এই অবস্থায় পড়ে থাকে আর একটাই প্রশ্ন, শুভেন্দু অধিকারী কি তবে সাংবাদিক বৈঠক করবেন?

    সূত্রের খবর, সেই সম্ভাবনাই বেশি। তবে একক বৈঠক, কারণ তৃণমূলও সেই পথে হেঁটেছিল। আর সেখান থেকেই নিজস্ব বার্তা দিতে পারেন শুভেন্দু অধিকারী। কোন দলে যাবেন, কী হবে তাঁর রাজনৈতিক প্রস্থান, স্পষ্ট হয়ে যাবে সেখান থেকে। সেদিক থেকে ভাবলে আগামী রবিবার, ৬ ডিসেম্বর এক দীর্ঘ নাটকের শেষ অঙ্ক অভিনীতি হতে পারে রাজনীতির মঞ্চে। শুভেন্দু কি জার্সিবদলই করছেন? পোড়খাওয়া রাজনীতিবিদরাও বলছেন, দাবার দানের মতো, শেষ পর্যন্ত কিছুই বলা যায় না।

    বেশ কয়েকমাস ধরেই দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছিল শুভেন্দু অধিকারীর। হাজির থাকছিলেন না মন্ত্রিসভার বৈঠকেও। অরাজনৈতিক সভা করতেও দেখা যায় তাঁকে। তবে দুই তরফে কিছু সম্ভাবনা জিইয়ে রাখা হয়েছিল। শুভেন্দু কখনও তৃণমূল সুপ্রিমোর নাম করে একটিও বাঁকা মন্তব্য করেনি। তৃণমূলও তাঁকে বহিস্কারের পথে যায়নি। বরং তাঁর গুরুত্ব যে অসীম বারবার প্রমাণিত হয়েছে সমঝোতার চেষ্টায়।

    কিন্তু তাল কাটে গতকাল। ডিসেম্বররে প্রথম সন্ধেয় শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক হয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের। বৈঠকে হাজির ছিলেন সৌগত রায়, ভোটকুশলী প্রশান্তকিশোর, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়রা। তৃণণমূল সূত্রে বলা হয়েছিল, এই বৈঠক হয় সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে। শুভেন্দু নিজের সব সুবিধে অসুবিধের কথা বলেন। তৃণমূল সংবাদমাধ্যমে জানিয়ে দেয়, সব পক্ষ একটা সাধারণ জায়গায় এসেছে, দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে। আপাতত সব সমস্যা মিটে গিয়েছে।

    এই অতিতৎপরতা ভালোভাবে নেয়নি শুভেন্দু। পরদিনই তিনি‌ নাকি বার্তা দেন, যৌথ সাংবাদিক বৈঠক হওআর কথা ছিল। সেই কথা না রাখায় আর কাজ করা সম্ভব নয়। এদিকে তৃণমূলও চায় না শুভেন্দু নিয়ে আর জলঘোলা চলুক। এদিন সৌগত রায় জানিয়েছেন, আলোচনার আর জায়গা নেই। শুভেন্দু অধিকারীর অবস্থান শুভেন্দুই জানাবেন।

    Published by:Arka Deb
    First published: