• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • মুখ্যমন্ত্রীর বার্তার পরেও পুলিশের ‘ছাড়’, ভরতি দুর্নীতিতে ধৃতদের জামিন

মুখ্যমন্ত্রীর বার্তার পরেও পুলিশের ‘ছাড়’, ভরতি দুর্নীতিতে ধৃতদের জামিন

Image: News 18

Image: News 18

মুখ্যমন্ত্রীর কড়া বার্তা। অথচ, কলেজে ভরতি দুর্নীতিতে গ্রেফতার করেও অভিযুক্তদের হেফাজতে চাইল না পুলিশ।

  • Share this:

    #কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর কড়া বার্তা। অথচ, কলেজে ভরতি দুর্নীতিতে গ্রেফতার করেও অভিযুক্তদের হেফাজতে চাইল না পুলিশ। শনিবার রাতে যাদবপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় প্রফুল্লচন্দ্র কলেজের দুই ছাত্রকে। তাদের বিরুদ্ধে টাকা তোলার অভিযোগ উঠেছে। পুলিশ হেফাজতে না চাওয়ায় সহজেই জামিন পায় দু’জন।

    মণীন্দ্রচন্দ্রের পর এবার ভরতি দুর্নীতি চক্রের অভিযোগ প্রফুল্লচন্দ্র কলেজেও। অ্যাকাউন্ট্যান্সি অনার্সে ভরতি হতে পঁচিশ হাজার টাকা চাই।

    বাঁশদ্রোণীর এক ছাত্রীকে এমনই জানায় প্রফুল্লচন্দ্র কলেজের তৃতীয় বর্ষের দুই ছাত্র। এরপর, ওই দুই সিনিয়রকে পঁজিশ হাজার টাকা দেওয়া হয় বলেও ওই ছাত্রীর দাবি।

    আরও পড়ুন: কলেজে ভর্তিতে বেআইনি তোলাবাজি রুখতে তৎপর পুলিশ, চালু হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর

    কিন্তু, কলেজে গিয়ে খোঁজখবর করে এমন কোনও নিয়ম নেই বলেই জানতে পারেন ওই ছাত্রী।

    এরপরই, রবীন্দ্র সরোবর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই ছাত্রী ৷ যাদবপুর থেকে গ্রেফতার হয় সায়ন মুখোপাধ্যায় ও জাহির আহমেদ নামে দুই অভিযুক্ত ৷ ধৃতদের বিরুদ্ধে প্রতারণা, অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গসহ একাধিক অভিযোগ আনা হয় ৷

    কিন্তু, রবিবার, আলিপুর আদালতে সায়ন ও জাহিরকে তুলতেই নাটকের শুরু। গুরুতর অভিযোগ থাকলেও তাদের হেফাজতে চায়নি পুলিশ। ফলে জামিন পেয়ে যায় অভিযুক্তরা। পুলিশের দাবি, অভিযোগ তুলে নিতে চান অভিযোগকারিণীও।

    ভরতি দুর্নীতি রুখতে কড়া বার্তা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু, তা সত্ত্বেও উলটপুরাণ কেন? প্রশ্ন তুলে দিল পুলিশের ভূমিকা।

    First published: