পুলিশের হেফাজতে জনতার কোটি কোটি টাকা, কিন্তু সেই টাকা কোন কাজে লাগবে?– News18 Bengali

পুলিশের হেফাজতে জনতার কোটি কোটি টাকা, কিন্তু সেই টাকা কোন কাজে লাগবে?

এতদিন বাদে চুরি হয়ে যাওয়া হারানিধি ফিরে পেয়েও আনন্দের বদলে দুঃখই পেলেন কৌশিক গুপ্ত ৷

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 24, 2017 05:06 PM IST
পুলিশের হেফাজতে জনতার কোটি কোটি টাকা, কিন্তু সেই টাকা কোন কাজে লাগবে?
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 24, 2017 05:06 PM IST

#কলকাতা: পুলিশের হেফাজতে জনতার কোটি কোটি টাকা, কিন্তু সেই টাকা কোনও কাজেই লাগছে না ৷ সেই টাকার মধ্যে রয়েছে কৌশিক গুপ্তর টাকাও ৷  এতদিন বাদে চুরি হয়ে যাওয়া হারানিধি ফিরে পেয়েও আনন্দের বদলে দুঃখই পেলেন কৌশিক গুপ্ত ৷ অথচ এই চুরি হয়ে যাওয়া সম্পদ ফিরে পেতে এক সময় জুতোর সুখতলা খুইয়ে ফেলেছিলেন ভদ্রলোক ৷

বছর দুয়েক আগে মার্কিন মুলুকের ভিসার জন্য ইন্টারভিউ দিতে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিলেন কৌশিকবাবু ৷ সঙ্গে ছিল আই কার্ড থেকে পাসপোর্ট, সমস্ত ডকুমেন্টের আসল নথি এবং ট্রাভেল এজেন্টের পেমেন্টের নগদ হাজার তিরিশেক টাকা ৷ কিন্তু গন্তব্য পৌঁছে পকেটে হাত দিয়ে প্রায় আকাশ থেকে পড়ার উপক্রম ভদ্রলোকের ৷ দুই পকেট বেবাক ফাঁকা ৷ না আছে কোনও নথি না আছে কোনও টাকা ৷ বাস থেকে নামার পথেই পকেট কেটে চম্পট দিয়েছে কোনও পকেটমার ৷ নথি হারিয়ে সে যাত্রা মার্কিন মুলুক যাওয়ার পরিকল্পনা বেশ কিছুটা সময় পিছিয়ে যায় ৷

হারানো সম্পদ উদ্ধারে পুলিশে ডায়েরি, এফআইআর কিছুই বাকি রাখেননি ৷ সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ডুপ্লিকেট নথি তৈরি হয়ে গেলেও পাওয়া যায়নি টাকা ৷ বছর দুয়েক বাদে তদন্ত শেষে অবশেষে উদ্ধার সে সম্পদ ৷ লালবাজার থেকে আসা এক ফোনে জানানো হয় সেই সুসংবাদ ৷ মামলার নিষ্পত্তির পর নির্দিষ্ট দিনে চুরি যাওয়া টাকা আনতে পৌঁছে আশাহত হলেন কৌশিক গুপ্ত ৷ সেই টাকা এখন ‘মৃত’ ৷

হাজার তিরিশেক নোটের বেশিরভাগটাই বাতিল ৫০০ ও ১০০০-এর নোট ৷ ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৫-এর পর এখন মূল্যহীন ৷ তাই উদ্ধার হওয়ার পরও সে টাকা না নিয়েই মনের দুঃখে বাড়ি ফিরে এলেন কৌশিকবাবু ৷

এদিকে চুরির টাকা উদ্ধার করেও ফাঁপড়ে পুলিশ ৷ কৌশিক গুপ্তের ঘটনা তো উদাহরণ মাত্র ৷ কলকাতা পুলিশের মালখানায় জমা পড়ে রয়েছে এরকম কয়েক কোটি টাকা ৷ তাঁর অধিকাংশই বাতিল ৫০০ ও ১০০০-এর নোটে ৷ তাই ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৫-এর পর সেই জমার অর্থের ভবিষ্যত নিয়ে প্রশ্ন তুলে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয়েছে একটি জনস্বার্থ মামলা ৷ বিচারপতি নিশিতা মাত্রে ও বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি গৃহীত হয়েছে ৷

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক স্পষ্টই জানিয়েছে, নোট বদলের সময় উত্তীর্ণ ৷ কোনও মতেই এখন আর বাতিল নোট পরিবর্তন সম্ভব নয় ৷ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গাইডলাইন অনুযায়ী, এখন শুধুমাত্র প্রবাসী ভারতীয়রাই ৫০০ ও ১০০০-এর বাতিল নোট রিজার্ভ ব্যাঙ্কের শাখা থেকে বদলে নিতে পারবেন ৷

Loading...

ফলে মালখানায় জমা বিপুল পরিমাণ বাতিল নোটের ভবিষ্যৎ কী তা জানতে কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের অপেক্ষা ৷

First published: 05:06:05 PM Jan 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर