কর ফাঁকি দিয়ে চলছে গাড়ি, ধর পাকড় শুরু হবে আগামী সপ্তাহ থেকেই

কর ফাঁকি দিয়ে চলছে গাড়ি, ধর পাকড় শুরু হবে আগামী সপ্তাহ থেকেই
representative image

কর ফাঁকি দিয়ে চলা বাণিজ্যিক গাড়ি ধরতে রাস্তায় নামছে রাজ্য পরিবহন দফতর

  • Share this:

#কলকাতা:  বকেয়া ৮০০ কোটি। কর ফাঁকি দিয়ে রাস্তায় চলছে প্রায় ছয় লক্ষ গাড়ি। হিসেব জানলেও, ধরা যাচ্ছে না গাড়িগুলিকে। কিন্তু কেন? কি করছেন আঞ্চলিক পরিবহন দফতরের আধিকারিক তথা আরটিও-রা ? এবার তাই কর ফাঁকি দিয়ে চলা বাণিজ্যিক গাড়ি ধরতে রাস্তায় নামছে রাজ্য পরিবহন দফতর।

পরিবহন ভবনে এই বিষয়  নিয়ে বৈঠক করলেন পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর, বাস, লরি, স্কুল বাস ও ছোট গাড়ি মিলিয়ে প্রায় ৬ লক্ষ ২৩ হাজার গাড়ি কর না দিয়েই চলছে রাস্তায়। এই সমস্ত গাড়ি থেকে পেনাল্টি বাবদ রাজ্যের পাওনা প্রায় ৮০০ কোটি টাকা। ইতিমধ্যেই সরকার ফিটনেস সার্টিফিকেট ফেল গাড়ির জন্য ওয়েভার স্কিম চালু করেছে। টোকেন টাকা দিলেই মাফ হচ্ছে জরিমানার টাকা। সেই কাজ করতে গিয়ে বিভিন্ন আরটিও অফিসে একাধিক গাড়ির যাবতীয় তথ্য লিপিবদ্ধ হয়েছে। আর তা হিসেব করতে গিয়েই দেখা যাচ্ছে, খাতায় কলমে অস্তিত্ব আছে কিন্তু কর বা ট্যাক্স না দিয়েই সেই সব গাড়ি রাস্তায় চলছে দাপিয়ে। বাণিজ্যিক গাড়ি হওয়ায় সেই সমস্ত গাড়ি নিজেদের ব্যবসায়িক লাভ অবশ্য করে চলেছে। তাই এই সমস্ত গাড়িগুলির বিরুদ্ধে এবার ব্যবস্থা নিতে কোমর বেঁধে নেমে পড়েছে রাজ্য পরিবহন দফতর।

বৈঠকে বলা হয়েছে ১৬ ফ্রেব্রুয়ারি থেকে রাজ্যের প্রতিটি জায়গায় শুরু হবে ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে চলা গাড়ির বিরুদ্ধে অভিযান। ট্যাক্স ফাঁকি দিয়ে রাস্তায় যে গাড়ি চলছে তা মানছেন বিভিন্ন পরিবহন  সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নেতারা। তবে তাঁদের দাবি, ট্যাক্সের টাকা এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে অনেকেই তা দিতে অপারগ। তাই কর ফাঁকি দিয়ে গাড়ি চলছে। তবে পরিবহন দফতরের আধিকারিকদের কথায়, ' এই সব কথা বলে লাভ নেই। ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহার হচ্ছে গাড়ি, তাই টাকা মেটাতে হবেই। তবে জরিমানা নেওয়া হবে না।' পরিবহন ব্যবসায়ীরা অবশ্য বলছেন, এই কর নেওয়া শুরু হলে তাঁদের ব্যাপক ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হবে।

ABIR GHOSAL

First published: February 7, 2020, 6:10 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर