corona virus btn
corona virus btn
Loading

ডিএ নির্দেশিকার পুনর্বিবেচনা, রাজ্যের আবেদন গ্রহণ করল স্যাট

ডিএ নির্দেশিকার পুনর্বিবেচনা, রাজ্যের আবেদন গ্রহণ করল স্যাট
ছবিটি প্রতীকী

আজ অ্যাডভোকেট জেনারেলের সওয়ালের পর রাজ্যের আবেদন গ্রহণ করল স্যাট, আদালত অবমাননার মামলা থেকে আপাতত রেহাই রাজ্যের৷

  • Share this:

#কলকাতা: রাজ্যের মহার্ঘ ভাতা নিয়ে নির্দেশের পুনর্বিবেচনা মামলা গ্রহণ স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল বা স্যাট৷ স্যাট-এর ডিএ মামলার রায়ের পুনর্বিবেচনার আবেদন করেছিল রাজ্য সরকার৷  ৬৫টি দিন দেরি হয় রাজ্যের পুনর্বিবেচনার আবেদনে৷ আজ অ্যাডভোকেট জেনারেলের সওয়ালের পর রাজ্যের আবেদন গ্রহণ করল স্যাট, আদালত অবমাননার মামলা থেকে আপাতত রেহাই রাজ্যের৷

২৬ জুলাই স্যাট রাজ্যকে নির্দেশ দেয়, কেন্দ্রীয় সরকারের হারে রাজ্য কর্মীদের ডিএ মিটিয়ে দেওয়ার। এই মর্মে তিন মাসের মধ্যে নীতি নির্ধারণের জন্য রাজ্যকে নির্দেশ দেওয়া হয়৷ স্যাট-এর নির্দেশ ছিল, কেন্দ্রীয় হারেই ডিএ দিতে হবে রাজ্যকে ৷ ডিএ মামলায় রাজ্যের হার স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনালে ৷ ষষ্ঠ কমিশন বা একবছরের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে বকেয়া৷ একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দেওয়ার জন্য যে আইন আনা দরকার তার দায়িত্ব রাজ্যের উপরেই ছাড়ল স্যাট৷ স্বভাবতই এই রায়ে উচ্ছ্বসিত রাজ্য সরকারি কর্মীরা৷

এ দিনের রায়ে SAT জানায়, কী ভাবে ডিএ দেবে তার আইন করা রাজ্যের দায়িত্ব৷ নগদ অথবা পিএফ-এর মাধ্যমে বকেয়া ডিএ দেওয়া যেতে পারে৷ কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স অর্থাৎ সর্বভারতীয় ক্রেতা মূল্য সূচক মেনে রাজ্য সরকারি কর্মীদের ডিএ দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি রঞ্জিত কুমার বাগ ৷ এই রায় চ্যালেঞ্জ করতে পারে রাজ্য ৷

গত বছর ৩১ অগাস্ট সরকারি কর্মীদের মহার্ঘভাতা আইনসিদ্ধ অধিকার এই দাবিতে সিলমোহর দেয় কলকাতা হাইকোর্ট৷ একইসঙ্গে আদালতের রায়ে ফের মামলা ফেরে স্যাটে৷ এর আগে ২০১৭ সালে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল (স্যাট)-এ মহার্ঘভাতা নিয়ে মামলার শুনানির সময় রাজ্য সরকার জানিয়েছিল ডিএ সরকারি কর্মীদের অধিকার নয়। মহার্ঘ ভাতা দেওয়া না দেওয়া সরকারের ইচ্ছের অধীন ৷ সরকারের এই দাবিতে সিলমোহর দিয়েছিল স্যাটও ৷ এদিন সেই রায়ের থেকে ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে স্যাটের নয়া রায় কেন্দ্রের হারেই মহার্ঘ ভাতা দিতে হবে সরকারি কর্মচারীদের ৷

First published: December 9, 2019, 11:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर