• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সিঙ্গুর উৎসবের দিনই জমি ফেরত!

সিঙ্গুর উৎসবের দিনই জমি ফেরত!

সিঙ্গুর উৎসব অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বরই জমি ফেরত পেতে পারেন সিঙ্গুরের চাষীরা ৷ এক দশকের লড়াইয়ের পর সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মিলেছে জয় ৷

সিঙ্গুর উৎসব অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বরই জমি ফেরত পেতে পারেন সিঙ্গুরের চাষীরা ৷ এক দশকের লড়াইয়ের পর সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মিলেছে জয় ৷

সিঙ্গুর উৎসব অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বরই জমি ফেরত পেতে পারেন সিঙ্গুরের চাষীরা ৷ এক দশকের লড়াইয়ের পর সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মিলেছে জয় ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা: সিঙ্গুর উৎসব অর্থাৎ ১৪ সেপ্টেম্বরই জমি ফেরত পেতে পারেন সিঙ্গুরের চাষীরা ৷ এক দশকের লড়াইয়ের পর সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মিলেছে জয় ৷ আগামী ১৪ তারিখ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে জয়ের আনন্দ উদযাপনে মাততে চলেছে সিঙ্গুর ৷ সেই উৎসবের মঞ্চ থেকেই চাষীদের হাতে অধিগৃহীত জমি ফের ফিরিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে সরকার ৷

    সূত্রের খবর, ১৪ তারিখ ১৪ জন কৃষকের হাতে জমির আইনি অধিকারের দলিল তুলে দেবেন মুখ্যমন্ত্রী ৷ একইসঙ্গে ১৫ জন কৃষককের হাতে তুলে দেওয়া হবে ক্ষতিপূরণের টাকা ৷

    জমি জরিপের কাজ প্রায় শেষের পথে ৷ জমির সমস্ত রিপোর্ট জমা দেওয়া হবে নবান্নে ৷ রিপোর্ট খুঁটিয়ে দেখবেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে ৷ জেলাশাসকের নির্দেশে সিঙ্গুর পঞ্চায়েত সমিতির দপ্তরে খোলা হয়েছে নোটারী কাউন্টার । এর ফলে কৃষকদের জমির দলিলের এফিডেভিট করার জন্য আর কোর্টে যেতে হবে না । শনিবার থেকে শুরু হয়ে চারদিন চলবে এই নোটারী কাগজপত্র তৈরীর কাজ।

    আরও পড়ুন

    সিঙ্গুরের জমিতে ফের শিল্পের সম্ভাবনা, আশা জাগাল সরকারি নির্দেশ

    পাশাপাশি, ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দফতরে চলছে টাটা প্রকল্প এলাকায় বাজেমেলিয়া, খাঁসেরভেড়ি, বেড়াবেড়ি, গোপালনগর ও সিংহভেড়ির পাঁচ মৌজার জমির ক্ষতিপূরন নথিপত্র খতিয়ে দেখার কাজ। পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সমস্ত কাজকর্ম খতিয়ে দেখছেন । তবে জমির ক্ষতিপূরণ বিষয়টি বাড়ানোর ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রীকে দেখার অনুরোধ জানিয়েছেন।

    আরও পড়ুন

    সিঙ্গুরে এখন অনিচ্ছুকদের মুখে ভিন্ন সুর, জমি নয় শিল্প চাই

    অন্যদিকে, এখানেই মিটছে না সব সমস্যা ৷ সিঙ্গুরের জমিতে চাষ হবে না শিল্প? তা নিয়ে তৈরি হয়েছে জটিলতা ৷ ১৪ তারিখ কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে এ ব্যাপারে মতামত নিতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৷

    First published: