রাজ্যে বাধ্যতামূলক মাস্ক! নিয়ম ভাঙলেই কড়া আইনি পদক্ষেপ

রাজ্যে বাধ্যতামূলক মাস্ক! নিয়ম ভাঙলেই কড়া আইনি পদক্ষেপ

রাজ্যে বাধ্যতামূলক মাস্ক

যেভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে তার জন্য পরতেই হবে মাস্ক।

  • Share this:

    #কলকাতা: মাস্ক (Mask) ছাড়া যেখানে সেখানে ঘুরে বেরোনো, রাস্তায় দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার জন্য মাস্ক নামিয়ে ফেলা কিংবা চা খাওয়ার ছুতোয় খালি মুখে বসে আড্ডা জমানো এর কোনওটাই আর চলবে না। অথবা নাকের নীচে বা থুতনিতে মাস্ক পরলেও রেহাই নেই। কারণ গোটা রাজ্যে মাস্ক বাধ্যতামূলক করল রাজ্য সরকার (West Bengal Government)।

    ২০২০ সালে করোনা (Corona) প্রথম থাবা বসালেও এমন বিধি আরোপ করা হয়েছিল। কিন্তু সেই একই নিয়ম আবার জারি হল পশ্চিমবঙ্গে। যেভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে তার জন্য পরতেই হবে মাস্ক। এই নির্দেশিকাই শনিবার জারি করল নবান্ন। আর যারা নিয়ম ভাঙবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করা হবে। তবে শুধু মাস্কই নয়। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, যে কোনও পাবলিক প্লেসে সামাজিক দূরত্ব সহ অন্যান্য করোনা বিধিও মেনে চলতে হবে রাজ্যের মানুষকে।

    ২০২০-র মার্চে প্রথম করোনা থাবা বসায়। তার পরে করোনার প্রথম ঢেউয়ের সাক্ষী হয়েছিল বাংলা সহ গোটা দেশের মানুষ। একটা সময় ভয়াবহ আকার নিয়েছিল করোনা। এর পরে অক্টোবর ও নভেম্বরের পরে আক্রান্ত ও মৃতের হারের গ্রাফ নীচের দিকে নামতে থাকে। ক্রমশ স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে থাকে মানুষ। কিন্তু করোনা যে এখনও পুরোপুরি বিদায় নেয়নি সেটা নিয়ে খুব একটা ভাবিত ছিল না অনেকেই। সঙ্গে ভ্যাকসিন (Vaccine)এসে যাওয়ায় অনেকেই ভেবে নেয় করোনার দাপট হয়তো শেষ। ফলে মুখে মাস্ক বা সামাজিক দূরত্ব সবই উঠেছিল শিকেয়।

    কিন্তু ২০২১ এর মার্চ মাসের শেষ থেকে দ্বিতীয় ঢেউয়ে ফিরে আসতে থাকে মারণ ভাইরাস। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে রাজনৈতিক মিছিল ও সভা এছাড়া ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও ভিড়েই যেন নিজের প্রভাব বিস্তার করতে ব্যাটিং করা শুরু করে করোনা ভাইরাস। আর তারই ফলাফল বর্তমান পরিস্থিতি। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপটে ত্রস্ত গোটা দেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫,৯০৮ জন। এই মুহূর্তে পাকিস্তানের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯০,০১৬ জন।

    Published by:Swaralipi Dasgupta
    First published:

    লেটেস্ট খবর