corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিশেষ কুপন আনল খাদ্য দফতর, রেশন কার্ড না থাকলেও রেশন পাবেন রাজ্যবাসী

বিশেষ কুপন আনল খাদ্য দফতর, রেশন কার্ড না থাকলেও রেশন পাবেন রাজ্যবাসী

রাজ্যের বহু গ্রাহক রয়েছেন যাঁদের কাছে নতুন রেশন কার্ড নেই। সংখ্যাটা প্রায় ৩ লক্ষের কাছাকাছি।

  • Share this:

ABIR GHOSHAL

#কলকাতা: খাদ্য দফতরের বিশেষ কুপন। রেশন তুলতে ৩ লক্ষ গ্রাহককে এই বিশেষ কুপন দেওয়ার কাজ শুরু হল। মুখ্যমন্ত্রী আগামী ৬ মাস বিনামূল্যে রেশনে চাল, গম ও আটা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। এর ফলে রাজ্যের ৭ কোটি ৮৬ লক্ষ মানুষ বিনা পয়সায়  রেশন পাবেন। কম দামে চাল-গম কিনতে পারবেন ১ কোটি ২০ লাখ মানুষ। রাজ্যের বহু গ্রাহক রয়েছেন যাঁদের কাছে নতুন রেশন কার্ড নেই। সংখ্যাটা প্রায় ৩ লক্ষের কাছাকাছি। কিন্তু এই বিপুল সংখ্যক মানুষের কাছে খাবার বা রেশন পৌঁছে দিতে হবে। তাই নিয়েই জেলাওয়ারি বৈঠক করলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

ব্লক স্তর থেকে জেলাওয়ারী দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। কুপন তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। খাদ্য দফতর এই কুপন বিডিও'দের মাধ্যমে গ্রাহকদের হাতে পৌঁছে দেবে। জেলাশাসকদের কাছে এই সমস্ত গ্রাহকদের নাম, ঠিকানা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে জেলাশাসকদের কাছে। আজ জেলাশাসকের দফতর থেকে এই কুপন গ্রাহকদের কাছে বিডিও'রা পৌঁছে দিয়ে আসবেন। এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই এই প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে। এই তিন লক্ষ গ্রাহককে দেওয়া হবে এক মাসের রেশন। রেশন ডিলারদের সাহায্য নিয়ে খাদ্য দফতরের জেলার প্রতিনিধিরা আলাদা আলাদা দিনে বিভিন্ন জায়গায় রেশন সরবরাহ করবেন।

রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, যেখানেই রেশন দেওয়া হোক না কেন সবাইকে  দুরত্ব মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে রেশন সংগ্রহ করতে হবে। আমাদের আধিকারিকরা সবটা দেখভাল করবেন। কলকাতায় প্রায় আড়াই লাখ মানুষ আছেন, যাঁদের কাছে রেশন কার্ড নেই। তাঁদের জন্যও থাকছে বিশেষ কুপন। বরো চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে গ্রাহকদের চিহ্নিত করে এই রেশন দেওয়া হবে। তবে কলকাতার গ্রাহকরা এই রেশন পাবেন ১০ এপ্রিলের পরে। এদিন এই বিষয়ে বৈঠক করেন খাদ্যমন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র। এছাড়া পরিযায়ী শ্রমিকদেরও রেশন মারফত খাওয়ানোর ব্যবস্থা করবে রাজ্য সরকার।

মেয়র জানিয়েছেন, রেশন পেতে কারও কোনও সমস্যা হবে না। আমরা সবাইকেই দেব। নিয়ম মেনে দেব। অন্যদিকে জেলাগুলিতেও আজ রেশনের বিশেষ কুপন পৌঁছে গিয়েছে। সেখানেও কাজ শুরু হয়ে যাবে, বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লি।

Published by: Simli Raha
First published: March 31, 2020, 2:19 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर