• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • পড়ুয়াদের মদ ও মাদকের নেশা রুখতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের

পড়ুয়াদের মদ ও মাদকের নেশা রুখতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের

মাদক ও নেশা পড়ুয়াদের মধ্যে থেকে দূর করতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের।

মাদক ও নেশা পড়ুয়াদের মধ্যে থেকে দূর করতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের।

মাদক ও নেশা পড়ুয়াদের মধ্যে থেকে দূর করতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #কলকাতা:মাদক ও নেশা পড়ুয়াদের মধ্যে থেকে দূর করতে উদ্যোগ সেন্ট জেভিয়ার্স কর্তৃপক্ষের।আবেশের মৃত্যুর পরই কি এই উদ্যোগ ?সেন্ট জেভিয়ার্স ও তার সংলগ্ন এলাকায় পার্ক স্ট্রিট, ক্যামাক স্ট্রিট, থিয়েটার রোডে যাতে ড্রাগ না বিক্রি হয় তার জন্য কলকাতা পুলিশকে চিঠি দিয়েছে কলেজ।

    শুধু তাই নয়, পড়ুয়াদের সতর্কও করে বলা হয়েছে ক্যাম্পাসের বাইরেও যাতে মাদকের শিকার না হয়।কলেজের বক্তব্য, মুষ্টিমেয় পড়ুয়ারাই জড়িয়ে পড়ছে এই নেশায়।স্কুল-কলেজ ক্যাম্পাসের কর্তৃপক্ষের কাছে শুধু তাই অভিযোগ। অভিভাবকদের তরফেও তাই নজরদারির আবেদন জানান হয়েছে।নেশাজাত দ্রব্য যাতে কলেজ সংলগ্ন এলাকায় বিক্রি না হয় তার জন্য বিশেষ আবেদনও জানান হয়েছে ।কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, নেশা করতে হলে বাড়িতে কোর কলেজে নয়।

    এছাড়াও নেশার আশক্তিতে যারা জরিয়ে পড়েছে তার কাউন্সেলিংও হবে। মূলত এই ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলির মাদকাশক্তির প্রবণতা বাড়ছে ।তাই এই ধরনের ড্রাগের নেশা কাটানো দরকার।পুলিশকে চিঠি দিয়ে বেশ কিছু প্রতিরোধ করা সম্ভব।তারপরও সতর্ক করা হয়েছে পড়ুয়াদের ।জানালেন কলেজের অধ্যক্ষ ফাদার ফেলিক্স রাজ ।

    "অনেকবার ছাত্রদের জানিয়েছি, নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ।নোটিস লাগানো হয়েছে ।প্রত্যেক কলেজের ক্যম্পাসের বাইরে লোক থাকে না ।থিয়েটার রোড, উডস রোডে ড্রাগ বিক্রির খবর পেয়েছি ,তাই সাবধানবাণী ।"

    "নিয়ম হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০০ স্কোয়ার মিটারের মধ্যে কোনও সিগারেট শপ থাকতে পারবে না।কলকাতা পুলিশকেও চিঠি লিখেছি দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে বন্ধ করা হয়েছে সিগারেটের দোকান ।নজরদারি চালানোর আবেদন জানান হয়েছে ।"

    অনেক ছাত্র মাদক নিতে চায়।মাদক বিক্রেতারাও তাঁদেরই নিশানা করে। সহজেই টাকা উপার্জনের উপায়।৮ হাজার ছাত্র, ব্রেকে বাইরে থাকে আমরাও নজর রাখছি,অভিভাবকরাও আবেদন জানায় আমাদের, জানান তিনি ।

    First published: