corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফের নজির এসএসকেএমের, শিরদাঁড়া ভেঙে পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগীর সফল অস্ত্রোপচার

ফের নজির এসএসকেএমের, শিরদাঁড়া ভেঙে পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগীর সফল অস্ত্রোপচার

চিকিৎসায় ফের নজির এসএসকেএম হাসপাতালের। শিরদাঁড়া ভেঙে পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগীর সফল অস্ত্রোপচার করলেন চিকিৎসকরা।

  • Share this:

#কলকাতা: চিকিৎসায় ফের নজির এসএসকেএম হাসপাতালের। শিরদাঁড়া ভেঙে পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগীর সফল অস্ত্রোপচার করলেন চিকিৎসকরা। তাঁদের দাবি, পূর্ব ভারতে এই প্রথম এমন সফল অস্ত্রোপচার হল। রোগীর দেহে বিশেষ পদ্ধতিতে বসানো হয়েছে ইনট্রাথেক্যাল ব্যাকলোফেন পাম্প। পুরোপুরি সরকারি খরচে অস্ত্রোপচারের পর ক্রমশ সুস্থ হয়ে উঠছেন হাওড়ার ডোমজুড়ের বাসিন্দা তপন চক্রবর্তী।

গত বছর ডিসেম্বরে বাথরুমে পড়ে গিয়ে শিরদাঁড়ায় আঘাত পেয়েছিলেন হাওড়া ডোমজুড়ের বাসিন্দা বালি গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্মী তপন চক্রবর্তী। শিরদাঁড়ায় আঘাতের জেরে পক্ষাঘাতে অসাড় হয়ে যায় কোমরের নীচের অংশ। শয্যাশায়ী হয়ে পড়েন। শুরুতে এসএসকেএম হাসপাতালে আনা হলেও বেডের অভাবে ভর্তি হতে পারেননি। এক বছর ধরে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা হলেও অবস্থার উন্নতি হয়নি। তপনবাবুকে ফের এসএসকেএম হাসপাতালেই আনেন বাড়ির লোকেরা। একবছর পর এখানেই তপনবাবুর জটিল ইনট্রাথেক্যাল ব্যাকলোফেন থেরাপি করা হয়। কিন্তু কী এই থেরাপি?

চিকিৎসকের দাবি, পশ্চিম ও দক্ষিণ ভারতে হাতে গোনা কয়েকটি এমন অপারেশন হলেও পূর্বভারতে এটাই প্রথম।

অন্যত্র এই অপারেশনের জন্য খরচ প্রায় পনেরো থেকে ষোলো লক্ষ টাকা। ইনট্রাথেক্যাল ব্যাকলোফেন পাম্পটিরই দাম পাঁচ থেকে ছয় লক্ষ টাকা। চিকিৎসকদের উদ্যোগে এই অপারেশনের পুরো খরচটাই বহন করেছে রাজ্য সরকার। স্বাভাবিকভাবেই সরকারি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন তপনবাবুর স্ত্রী।

অপারেশনের পর চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তপনবাবু। অসাড় পায়ে ফের সাড় পাচ্ছেন তিনি। চিকিৎসকদের আশা, আগামী কিছুদিনের মধ্যেই নিজের পায়ে দাঁড়াতেও পারবেন তপনবাবু।

First published: December 21, 2017, 11:11 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर