• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • বইপ্রেমীদের জন্য সুখবর, মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে বিশেষ ব্যবস্থা থাকছে বইমেলায়

বইপ্রেমীদের জন্য সুখবর, মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে বিশেষ ব্যবস্থা থাকছে বইমেলায়

File Image

File Image

বইপ্রেমীদের জন্য সুখবর, মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে বিশেষ ব্যবস্থা থাকছে বইমেলায়

  • Share this:

     #কলকাতা: আর মাত্র দু’দিনের অপেক্ষা, তারপরেই মহানগরে বসতে চলেছে আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার আসর ৷ মিলন মেলায় চলছে সংস্কারের কাজ। তাই এবছর ঠিকানা পাল্টে বইমেলা বসছে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে ৷ উদ্বোধন ৩০ জানুয়ারি, চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

    ঠিকানা বদলালেও বইমেলার বহর ও ব্যবস্থা থাকছে একইরকম ৷ মিলনমেলার মতো সল্টলেকে বইমেলায় আসতে যাতে কোনও অসুবিধা না হয় তার দিকে নজর রেখেছে রাজ্য ৷ এবারের কলকাতা বইমেলায় ফিফা অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের মতোই পরিবহণ ব্যবস্থা থাকছে। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে শহর ও শহরতলির পনেরোটি জায়গা থেকে বাস বইমেলায় আসবে। শনি ও রবিবার বাসের সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে। জানিয়েছেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

    এবারের বইমেলায় প্রায় প্রতিদিন ২ লাখ মানুষ আসবেন বলে অনুমান প্রশাসনের ৷ বইমেলায় আগত বইপ্রেমীদের সুবিধার জন্য থাকছে ৯টি প্রবেশ দ্বার ও মেলা থেকে বেরনোর জন্য ৫-৬টি গেট ৷

    বইমেলার দিনগুলিতে পরিবহণ দপ্তরের তরফে অতিরিক্ত ২০০টি সরকারি এসি, নন-এসি বাস চালানো হবে ৷ এসপ্ল্যানেড, হাওড়া, দমদম, জোকা, গড়িয়া, শোভাবাজার, বেহালা, বালিহল্ট, ডানলপ, বারাসত, উল্টোডাঙা, শিয়ালদহ স্টেশন–সহ শহরের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ মোড় থেকে বাস ছাড়বে। এছাড়া করুণাময়ী থেকে শিয়ালদহ, শোভাবাজার, উল্টোডাঙা, পাটুলি সহ বিভিন্ন রুটের জন্য থাকবে শাটল গাড়ি ৷

    পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘বইমেলা সফল করার জন্য মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা আশাবাদী, বইপ্রেমীদের কোনও অসুবিধা হবে না ৷’

    মিলন মেলায় সংস্কারের কাজ চলায় এবার বিধাননগর সেন্ট্রাল পার্কে কলকাতা বইমেলা অনুষ্ঠিত হবে। তিরিশ তারিখ মেলার উদ্বোধন করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্ক ময়দান জুড়ে এখন চলছে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি ৷

    বইমেলা মানেই উৎসব। বইমেলা মানেই নস্টালজিয়া। বইকে ঘিরে বাঙালির মিলনক্ষেত্র। জায়গা বদলালেও বইমেলা আবেগটা সেই আবেগ বদলায় না।

    First published: