corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাঠে জলের বোতল নিয়ে প্রবেশ নিষেধ, ফুটবল বিশ্বকাপে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন

মাঠে জলের বোতল নিয়ে প্রবেশ নিষেধ, ফুটবল বিশ্বকাপে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন
salt lake stadium

মাঠে জলের বোতল নিয়ে প্রবেশ নিষেধ, ফুটবল বিশ্বকাপে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন

  • Share this:

 #কলকাতা: ফুটবল বিশ্বকাপের দামামা বেজে উঠেছে শহরজুড়ে। প্রস্তুত যুবভারতী। এবার বল পড়ার অপেক্ষা। রবিবারের ম্যাচ ঘিরে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেট। থাকছে স্টেডিয়ামের প্রত্যেক গেটে গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা। আর গেট অনুযায়ী থাকবে বিভিন্ন রঙের পার্কিং টিকিট। চালু করা হয়েছে শাটল বাস।

পুলিশ কমিশনার জ্ঞানবন্ত সিং জানান, জাল টিকিট আটকাতে প্রত্যেক টিকিটে বারকোড থাকবে। টিকিট স্ক্যান হওয়ার পরই মাঠে ঢুকতে পারবেন দর্শকরা। মাঠেই থাকবে পানীয় জল, খাবারের ব্যবস্থা। তাই ব্যাগ, জলের বোতল নিয়ে ঢোকা যাবে না। তবে মহিলারা ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে পারবনে।

পুজো শেষ। এবার শহরে ফুটবল কার্নিভাল। শুক্রবার থেকে শুরু অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ। কলকাতায় প্রথম ম্যাচ রবিবার। কড়া নিরাপত্তার আয়োজন স্টেডিয়ামজুড়ে। অশান্তি এড়াতে থাকছে সবরকম ব্যবস্থা। প্রত্যেক গেটে আলাদা কার পার্কিং। দর্শকদের জন্য শাটল বাস।

দেশের বুকে প্রথম ফিফা টুর্নামেন্ট। যুবভারতীতে বল গড়াবে সেই রবিবার। ভারতে পৌঁছে প্র্যাকটিস শুরু করে দিয়েছে চিলি, ইংল্যান্ড, ইরাক। প্রস্তুতিও সারা বিধাননগর পুলিশের। পুজোর ট্রাফিক সামলানোর পর এবার তার থেকেও বড় পরীক্ষা। দর্শক-স্বাচ্ছন্দ্যে বিশেষ নজর পুলিশ কর্তাদের। প্রত্যেক গেটের জন্য আলাদা রঙের পার্কিং টিকিট। শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড় থেকে শাটল বাস সার্ভিস। তেমনি জোর দেওয়া হয়েছে নিরাপত্তায়।

ম্যাচ ডে-তে পুলিশি ব্যবস্থা ---

- স্টেডিয়ামের প্রত্যেক গেটে পার্কিং - প্রায় ২৬০০ গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা - কাল থেকে মিলবে পার্কিং পাস - গেটপ্রতি আলাদা রঙের পার্কিং টিকিট - মোট ১১০টি চেকিং পয়েন্ট - চলবে ১১০টি শাটল বাস - ব্যাগ, জলের বোতল নিয়ে ঢোকা নিষেধ - খাবার, পানীয় জলের ব্যবস্থা থাকবে - শুধু পার্স, মোবাইল নিয়ে ঢোকা যাবে - মহিলারা ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে পারবেন

মিলন মেলা থেকে উল্টোডাঙা। উল্টোডাঙা থেকে ১৩নং ট্যাঙ্ক। করুণাময়ী থেকে জিডি আইল্যান্ড। এই তিনটি রুটে চলবে শাটল বাস। সব মিলিয়ে তৈরি যুবভারতী। তৈরি পুলিশ। এবার শুধু বলে শট মারার অপেক্ষা।

First published: October 4, 2017, 7:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर