নিজে অপমানিত, বৈশাখীর জন্য প্রতিবাদ! পদত্যাগপত্রে কী লিখলেন শোভন?

নিজে অপমানিত, বৈশাখীর জন্য প্রতিবাদ! পদত্যাগপত্রে কী লিখলেন শোভন?

বৈশাখীর জন্যও প্রতিবাদ শোভন৷ Photo-File

দিলীপ ঘোষকে পাঠানো নিজের পদত্যাগপত্রে বৈশাখীও অভিযোগ করেছেন, দল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের অবদানকে অস্বীকার করেছে৷

  • Share this:

#কলকাতা: বেহালা পূর্বে দল তাঁকে প্রার্থী না করায় তিনি অপমানিত, ব্যথিত৷ বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রার্থী না করারও প্রতিবাদ জানাতে চান৷ বিজেপি ছাড়ার পিছনে দিলীপ ঘোষকে পাঠানো পদত্যাগপত্রে এই জোড়া কারণকেই উল্লেখ করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷

বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে পাঠানো পদত্যাগপত্রে শোভন লিখেছেন, 'কয়েক মিনিট আগে শিব প্রকাশজি ফোন করে জানালেন আমাকে বেহালা পশ্চিম কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ তাছাড়া কলকাতা জোনের সহ-আহ্বায়ক বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কেও দল প্রার্থী না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ ৩৬ বছর ধরে জনপ্রতিনিধি হিসেবে কাজ করার পর এই সিদ্ধান্তে আমি অপমানিত এবং ব্যথিত৷ যখনই যে এলাকা থেকে আমি জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছি, সেখানকার উন্নয়ন করেছি৷ শুধু বেহালা নয়, গোটা কলকাতার উন্নয়নে আমি অবদান রেখেছি৷ গোটা রাজ্যের মানুষের প্রতি আমার দায়বদ্ধতার কথা বিরোধি দলগুলিও অস্বীকার করতে পারবে না৷ তা সত্ত্বেও আমার দল আমাকে বেহালা পূর্ব কেন্দ্র থেকে মনোনয়ন না দেওয়ার সিদ্ধান্ত আমার কাছে নৈতিক হারের সমান৷ আর আমি কোনওদিন নিজের নীতির সঙ্গে আপোস করিনি৷'

শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগ পত্র৷ 

একই সঙ্গে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রার্থী না করার সিদ্ধান্তেরও তীব্র বিরোধিতা করেছেন শোভন৷ চিঠিতে তিনি দাবি করেছেন, অল্প সময়ের মধ্যে বিশেষ করে বেহালা সহ গোটা কলকাতা জোনে বিপুল জনসমর্থন আদায় করে নিতে পেরেছেন বৈশাখী৷ তার পরেও দল তাঁকে প্রার্থী করার যোগ্য বলে মনে করছে না৷ এই সিদ্ধান্তেরও তিনি প্রতিবাদ করছেন বলে চিঠিতে লিখেছেন শোভন৷ চিঠিতে শোভন লিখেছেন, অবিলম্বে দলের সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দেওয়ার পাশাপাশি বিজেপি-র সঙ্গে সবরকম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করলেন তিনি৷

দিলীপ ঘোষকে পাঠানো নিজের পদত্যাগপত্রে বৈশাখীও অভিযোগ করেছেন, দল শোভন চট্টোপাধ্যায়ের অবদানকে অস্বীকার করেছে৷ বৈশাখীর দাবি, বেহালা পূর্বের প্রতিটি বাড়ি শোভন চট্টোপাধ্যায়ের করা উন্নয়নের সাক্ষী৷ বৈশাখী লিখেছেন, 'শোভন চট্টোপাধ্যায়ের মতো একজন প্রাক্তন মন্ত্রী, মেয়র এবং বিধায়ক পদে থাকা একজন নেতার অবদানকে দল যেভাবে অস্বীকার করেছে, তার প্রতিবাদ করাটা জরুরি বলেই আমার মনে হচ্ছে৷ দল যেভাবে তাচ্ছিল্যের সঙ্গে আমাদের সঙ্গে ব্যবহার করেছে, তা অত্যন্ত বেদনাদায়ক৷'

বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের পদত্য়াগপত্র৷ 

দিলীপ ঘোষকে নিজেদের পদত্যাগপত্র পাঠানোর পাশাপাশি বিজেপি নেতা শিবপ্রকাশ, অরবিন্দ মেনন এবং অমিতাভ চক্রবর্তীকেও তা পাঠিয়েছেন শোভন এবং বৈশাখী৷ সূত্রের খবর, শোভন- বৈশাখীকে আরও একদফা বোঝাতে সোমবার সকালেই তাঁদের সঙ্গে দেখা করতে যাবেন রাজ্য বিজেপি-র সাংগঠনিক সাধারণ সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তী৷ শোভন- বৈশাখীর গোঁসা ভাঙুক না ভাঙুক, ফের একবার তাঁদের জন্য বেজায় অস্বস্তিতে বিজেপি৷

Somraj Bandopadhyay
Published by:Debamoy Ghosh
First published: