• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • জোর করে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে, বিস্ফোরক অভিযোগ শোভনের! না খেয়ে প্রতিবাদ

জোর করে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে, বিস্ফোরক অভিযোগ শোভনের! না খেয়ে প্রতিবাদ

বিস্ফোরক অভিযোগ শোভনের৷

বিস্ফোরক অভিযোগ শোভনের৷

  • Share this:

#কলকাতা: জোর করে তাঁকে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে৷ এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়৷ প্রতিবাদে গতকাল থেকে তিনি কিছু খাননি বলেও দাবি করেছেন শোভন৷ তাঁর অভিযোগ, অসুস্থতার অজুহাতে তাঁকে হাসপাতালে আটকে রাখা হয়েছে৷ কিন্তু তিনি সুস্থ৷ একই অভিযোগ করেছেন শোভনের বান্ধবী বৈশাখীও৷ তাঁরও অভিযোগ, কারও অঙ্গুলী হেলনেই হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরতে দেওয়া হচ্ছে না

শোভনকে৷ প্রাক্তন মেয়রের সিরোসিস অফ লিভারের সমস্যা রয়েছে বলে এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে যে দাবি করা হচ্ছে, তাও মিথ্যে বলে দাবি করেছেন বৈশাখী৷

এসএসকেএম হাসপাতালের উডবার্ন ওয়ার্ড চিকিৎসাধীন রয়েছেন শোভন৷ এ দিন নিজের কেবিনের বাইরে বারান্দা থেকেই সংবাদমাধ্যমের সামনে একের পর এক অভিযোগ করেন শোভন৷

নারদ কাণ্ডে ধৃত শোভন সহ চার নেতাকেই শুক্রবার গৃহবন্দি করার নির্দেশ দেয় কলকাতা হাইকোর্ট৷ কিন্তু শোভন চট্টোপাধ্যায় সহ এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সুব্রত মুখোপাধ্যায় ও মদন মিত্রকে ছুটি দিতে রাজি হয়নি হাসপাতালের মেডিক্যাল বোর্ড৷

এর পরেই এ দিন সকালে হাসপাতালে গিয়ে প্রথমে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেন, সুস্থ হলেও হাসপাতাল থেকে ছাড়া হচ্ছে না শোভনকে৷ এমন কি, রিস্ক বন্ডে সই করে ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে চাইলেও হাসপাতালের সুপার রাজি হননি বলে অভিযোগ করেন বৈশাখীদেবী৷ এর পাশাপাশি তিনি জানান, শোভনের কোনও চিকিৎসাই হাসপাতালে হচ্ছে না৷ প্রেসার- সুগার মাপার মতো ন্যূনতম পরীক্ষাগুলিও কাল থেকে হয়নি বলে অভিযোগ করেন বৈশাখী৷ তিনিও জানান, প্রতিবাদে কাল থেকে কিছুই খাননি শোভন৷ বৈশাখীর কথায়, 'কারও অঙ্গুলীহেলনেই ওঁকে আটকে রাখা হয়েছে৷ উনি কোনও দিন কোনও অন্য়ায়ের সঙ্গে আপোস করেননি৷ এ ক্ষেত্রেও করবেন না৷ দুই সরকার মিলে যে গাযের জোর দেখাচ্ছে তাতে আমি অত্যন্ত ব্যথিত৷'

এর পরেই এ দিন বিকেলের দিকে সংবাদমাধ্যমের সামনে সরব হন শোভন৷ তাঁর অভিযোগ, 'গতকাল থেকে আমি কোনও খাবার গ্রহণ করিনি৷ আমি তো জানি আমি সুস্থ মানুষ৷ আমাকে অসুস্থ দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে৷' একই সঙ্গে শোভনের দাবি, তাঁর সিরোসিস অফ লিভারের সমস্যা নেই৷ তাঁর পাল্টা দাবি, 'আমি জানি কী ওষুধ গ্রহণ করি, কীভাবে চলাফেরা করি, কোন জীবনযাত্রা মেনে চলি৷ সিরোসিস অফ লিভার চিহ্নিত করতে গেল এন্ডোস্কপি করতে হবে৷ আমার এন্ডোস্কপি কী হয়েছে? কোনও চিকিৎসক আমাকে আল্ট্রা সোনোগ্রাফিও করতে বলেননি৷ '

একই সঙ্গে শোভনের অভিযোগ, রিস্ক বন্ডে তিনি সই করে দিতে রাজি থাকলেও হাসপাতাল বা জেল কর্তৃপক্ষ তাতে সায় দিচ্ছেন না৷ ক্ষুব্ধ শোভন বলেন, 'যে কথাগুলো বলছেন অপ্রাসঙ্গিক৷ এই চক্রান্ত করে আমাকে দমিয়ে রাখা যাবে না৷ '

শোভন দাবি করেন, আদালত তাঁকে গৃহবন্দি করার নির্দেশ দিয়েছে৷ তার পরেও তাঁকে বাড়ি যেতে দেওয়া হচ্ছে না৷ এই গোটা ঘটনার কথা তিনি আদালতকে জানাবেন৷

বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে আপত্তিকর মন্তব্য় করার অভিযোগে এ দিন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষকেও আক্রমণ করেন শোভন৷ যদিও কুণাল পাল্টা বলেন, 'জেলে গেলেই অসুস্থ আর বাড়ি গেলেই সুস্থ হয়ে যাবেন? হাসপাতালটা মামাবাড়ি নয়৷ ওখানে উনি সার্কাস করছেন৷ মাননীয় আদালতের কাছে অনুরোধ, ওনাকে যেন জেলেই নিক্ষেপ করা হয়৷'

Avijit Chanda

Published by:Debamoy Ghosh
First published: