কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

Weather| ৯ জেলায় কালবৈশাখী সঙ্গে ব্যাপক বৃষ্টি আজও! জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস...

Weather| ৯ জেলায় কালবৈশাখী সঙ্গে ব্যাপক বৃষ্টি আজও! জেনে নিন আবহাওয়ার পূর্বাভাস...
কালবৈশাখী

দক্ষিণ আন্দামান সাগরে বৃহস্পতিবার তৈরি হবে নিম্নচাপ। এর কারণে বুধবার থেকেই মৎস্যজীবীদের আন্দামান সাগর ও দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এ প্রবেশ করতে নিষেধ করা হচ্ছে। পরবর্তী ঘোষণার আগে পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

  • Share this:

আজও ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দক্ষিণবঙ্গে। ন'টি জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। উত্তরবঙ্গ হালকা ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা। আগামী এক সপ্তাহ ধরে ঝড় বৃষ্টি চলবে রাজ্যজুড়ে।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলায় ৫০ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। হতে পারে কালবৈশাখীও। ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গের নয় জেলাতে।মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, বীরভূম, বাঁকুড়া, পূর্ব বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা। এই জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

বাংলাদেশ ও মধ্য প্রদেশে জোড়া ঘূর্ণাবর্ত। আসাম থেকে পাঞ্জাব পর্যন্ত পূর্ব-পশ্চিম নিম্নচাপ অক্ষরেখা। এই অক্ষরেখা উত্তর বাংলাদেশ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ দক্ষিণ বিহার ও মধ্যপ্রদেশের উপর দিয়ে বিস্তৃত। এর ফলে পূর্ব ভারতের রাজ্য মধ্য ভারত এবং উত্তর-পশ্চিম ভারতের বেশ কিছু রাজ্যে ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস।

কলকাতায় আজ সকালের দিকে মূলত পরিষ্কার আকাশ। বিকেলের দিকে আংশিক মেঘলা আকাশ এবং হালকা ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা। দিন ও রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নিচে কলকাতা শহরে।

কলকাতায় সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি নিচে। রবিবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৪৩ থেকে ৯১ শতাংশ। বৃষ্টি হয়েছে সামান্য।

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস। বেশ কিছু জেলায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে। কালবৈশাখীর সম্ভাবনাও রয়েছে বিক্ষিপ্তভাবে। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও হালকা ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস।

বুধবার থেকে ঝড় বৃষ্টি বাড়বে উত্তরবঙ্গে। আগামী এক সপ্তাহ ধরে ঝড় বৃষ্টি চলবে রাজ্যজুড়ে।

মৎস্যজীবীদের জন্য সতর্কবার্তা:

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে মৎস্যজীবীদের প্রবেশ নিষেধ। পশ্চিমবঙ্গ ওড়িশার মৎস্যজীবীদের উত্তর বঙ্গোপসাগর এর দিকে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। সমুদ্র উত্তাল থাকবে এবং সমুদ্রের ভেতরে 45 কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইবে।

দক্ষিণ আন্দামান সাগরে বৃহস্পতিবার তৈরি হবে নিম্নচাপ। এর কারণে বুধবার থেকেই মৎস্যজীবীদের আন্দামান সাগর ও দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এ প্রবেশ করতে নিষেধ করা হচ্ছে। পরবর্তী ঘোষণার আগে পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাবনা:

৩০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার দক্ষিণ আন্দামান সাগর ও সংলগ্ন এলাকায় নিম্নচাপ তৈরীর প্রবল সম্ভাবনা। এই নিম্নচাপ পরবর্তী 48 ঘন্টায় গভীর থেকে অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রথমে উত্তর উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে এই অতি গভীর নিম্নচাপ এবং পরে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে তা উত্তর-উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হতে পারে। চার থেকে পাঁচ মেয়ে নাগাদ মায়ানমার বাংলাদেশ উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়।

তবে এখনো পর্যন্ত আবহাওয়া দপ্তর শুধুমাত্র অতি গভীর নিম্নচাপের সম্ভাবনার কথাই জানাচ্ছে। ৩০ তারিখে নিম্নচাপ তৈরি হয় ৩ মে অর্থাৎ রবিবার পর্যন্ত এটি প্রতি গভীর নিম্নচাপ হয়ে অবস্থান করবে উত্তর আন্দামান সাগর এবং দক্ষিণ-পূর্ব ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে।

Published by: Arindam Gupta
First published: April 27, 2020, 9:55 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर