• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • সৌরভের হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার খবর শুনেই হাসপাতালের সামনে অসংখ্য ভক্ত

সৌরভের হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার খবর শুনেই হাসপাতালের সামনে অসংখ্য ভক্ত

বুধবার সৌরভকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে এই খবর শোনা মাত্রই দূরদূরান্তের সৌরভ ভক্তরা একদিকে যেমন হাসপাতালে  জড়ো হয়, তেমনই বেহালায় সৌরভের বাড়ির সামনে জড়ো হয়় অনেক ভক্ত।

বুধবার সৌরভকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে এই খবর শোনা মাত্রই দূরদূরান্তের সৌরভ ভক্তরা একদিকে যেমন হাসপাতালে জড়ো হয়, তেমনই বেহালায় সৌরভের বাড়ির সামনে জড়ো হয়় অনেক ভক্ত।

বুধবার সৌরভকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে এই খবর শোনা মাত্রই দূরদূরান্তের সৌরভ ভক্তরা একদিকে যেমন হাসপাতালে জড়ো হয়, তেমনই বেহালায় সৌরভের বাড়ির সামনে জড়ো হয়় অনেক ভক্ত।

  • Share this:

#কলকাতা: বাঙালির হৃদয়ে এখনও সৌরভ। গত শনিবার থেকে শুধুমাত্র বাংলায় নয় গোটা দেশজুড়ে মহারাজ সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্য প্রার্থনা শুরু হয়েছে।আর বুধবার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার খবর পাওয়া মাত্রই আলিপুরের উডল্যান্ডস হাসপাতালের সামনে সকাল থেকেই সৌরভ ভক্তদের ভিড়। কখন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে হাসপাতাল থেকে ছাড়া হবে এক পলকের জন্য প্রিয় দাদা, মহারাজকে চোখের দেখার জন্য প্রচুর ভক্ত, অনুরাগী উডল্যান্ডস হাসপাতালের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন। রীতিমতো ব্যারিকেড করে পুলিশকে ভিড় সামলাতে হয়। শুধু কলকাতা বা তার আশপাশে এলাকা থেকে নয়, সুদূর উত্তরবঙ্গ থেকে ট্রেনে করে আগের দিন রাতে কলকাতায় চলে এসেছেন সৌরভের আরোগ্য কামনায় তাঁকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় দেখতে অনেকেই।

উডল্যান্ড হাসপাতাল কতৃপক্ষ ভাবতেই পারেনি যে, সকাল থেকেই এত মানুষ হাসপাতালে চলে আসবেন। সৌরভ ভক্তদের আকুল আবেদন তাদের প্রিয় দাদা যেন একটি বারের জন্য তাদের দিকে হাত নাড়েন। আলিপুর থানা থেকে প্রচুুুর পুলিশ মোতায়েন করা হয় হাসপাতালের সামনে। হাসপাতালের বাইরে রীতিমতো ব্যারিকেড করে,কর্ডন করে ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয় পুলিশকে। সৌরভ ভক্তরা মুহুর্মুহুু দাদা,দাদা বলে আওয়াজ তুলতেে থাকেন।

প্রসঙ্গত গত শনিবার দুপুরে হঠাৎ করেই বেহালার বাড়িতে ট্রেডমিল করতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন বাঙালির আইকন ক্রিকেটার সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। এরপর দ্রুত তাকে আলিপুরের বেসরকারি হাসপাতাল নিয়ে আসা হয়। শুধু বাংলা কেন গোটা দেশজুড়ে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়ে। সৌরভের দ্রুত আরোগ্য কামনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রত্যেকে ফোন করে খোঁজ নেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরাসরি চলে আসেন হাসপাতালে। রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকার ছুটে আসেন সৌরভকে দেখতে।

বুধবার সৌরভকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে এই খবর শোনা মাত্রই দূরদূরান্তের সৌরভ ভক্তরা একদিকে যেমন হাসপাতালে  জড়ো হয়, তেমনই বেহালায় সৌরভের বাড়ির সামনে জড়ো হয়় অনেক ভক্ত। হাতে প্ল্যাকার্ডড,পোস্টার, যাতে লেখা দাদা দ্রুত সুস্থ হয়েে ওঠো, মহারাজ তোমাকে সেলাম।

Published by:Pooja Basu
First published: