খুব শীঘ্রই পাইপ লাইনের মাধ্যমে রান্নার গ্যাস সরবরাহ হবে কলকাতায়

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 24, 2017 07:55 PM IST
খুব শীঘ্রই পাইপ লাইনের মাধ্যমে রান্নার গ্যাস সরবরাহ হবে কলকাতায়
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 24, 2017 07:55 PM IST

#কলকাতা : কলকাতা ও পাশ্ববর্তী এলাকায় বাড়ি বাড়ি পাইপড ন্যাচারাল গ্যাস বা পিএনজি সরবরাহে উদ্যোগী রাজ্য সরকার। শুক্রবার পুরসভায় রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গেইল-এর প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। ঝাড়খণ্ড থেকে দুর্গাপুর হয়ে পাইপ লাইনের মাধ্যমে শহরে গ্যাস সরবরাহের প্রস্তাবও দেয় গেইল। পাইপ লাইন বসানোর আগে, প্রাথমিকভাবে গাড়ি করে, বাড়ি বাড়ি রান্নার ন্যাচারাল গ্যাস সরবরাহের বিকল্প প্রস্তাব দেন মেয়র।

মুখ্যমন্ত্রী চান, দিল্লি, বেঙ্গালুরুর মতো কলকাতাতেও বাড়ি বাড়ি পাইপের মাধ্যমে রান্নার গ্যাস সরবরাহ কর হোক। মঙ্গলবার এবিষয়ে সবুজ সংকেত দিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভাও। এই লক্ষ্য রূপায়ণে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গেইলের সঙ্গে চুক্তি করবে রাজ্য সরকারি সংস্থা, গ্রেটার ক্যলকাটা গ্যাস সাপ্লাই কর্পোরেশন। শুক্রবার পুরসভায় গেইলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকে ছিলেন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ, পরিবেশ সচিব অর্ণব রায় ও পুরসভার আধিকারিকরা। ছিলেন পেট্রোলিয়াম ও প্রাকৃতিক গ্যাস সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারপার্সন প্রতীমা মণ্ডলও।

অন্য শহরগুলিতে কীভাবে পাইপের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি গ্যাস সরবরাহ হচ্ছে, বৈঠকে তার প্রেজেন্টেশন দেয় গেইল। নবান্ন সূত্রে খবর, বৈঠকে গেইলের তরফে জানানো হয়েছে, উত্তরপ্রদেশের হাজিপুর থেকে পাইপলাইনের মাধ্যমে ঝাড়খণ্ড হয়ে পৌঁছবে দুর্গাপুর ৷ তারপর দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়ে ধরে ডানকুনি হয়ে পাইপ লাইনের মাধ্যমে কলকাতায় বাড়িতে বাড়িতে গ্যাস সরবরাহ হবে ৷ ২০১৯-২০ সালের মধ্যে শেষ হবে পুরো প্রক্রিয়া ৷

পাইপড ন্যাচারাল গ্যাস ব পিএনজি প্রকল্প পুরোপুরি বাস্তবায়িত হওয়ার আগেই বিকল্প উপায়ে গ্যাস সরবরাহের প্রস্তাব দেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়।

পাইপ লাইন পাতার আগে গাড়ি করে শহরের বাসিন্দাদের গ্যাস সরবরাহের প্রস্তাব দেন মেয়র ৷ সেজন্য প্রয়োজনীয় সাবস্টেশন তৈরি করা নিয়েও আলোচনা হয় গেইলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক শেষে এদিন নবান্নে শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্রের সঙ্গেও আলোচনা করেন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়।

First published: 06:51:50 PM Feb 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर