কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

সচেতন হয়েছে বহু মানুষ তবুও বাজারে পুরোপুরি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না

সচেতন হয়েছে বহু মানুষ তবুও বাজারে পুরোপুরি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না

প্রশাসনের চাপ আর সচেতনতা দুয়ের প্রভাব গড়িয়াহাট বাজারে লক্ষ্য করা লকডাউন এক মাস পূর্ণ হওয়ার।

  • Share this:

#কলকাতা: প্রশাসনের চাপ আর সচেতনতা দুয়ের প্রভাব গড়িয়াহাট বাজারে লক্ষ্য করা লকডাউন এক মাস পূর্ণ হওয়ার। ক্রেতারা নিজের থেকেই বজায় রাখছেন সামাজিক দূরত্ব। কমবেশি সকলেই মুখে পড়ছেন মাস্ক। পুরসভার তরফ থেকে বাজারে আসা প্রত্যেককে দেওয়া হচ্ছে স্যানিটাইজার।

লকডাউন এক মাস অতিক্রান্ত হয়ে গেছে। কিন্তু শুরুর দিকে প্রশাসনের তরফে বহু চেষ্টা করার পরও করোনা ভাইরাস মোকাবিলার জন্য যেসব বিধি মেনে চলতে বলা হয়েছিল তার কিছুই মানছিল না একটা বড় অংশের মানুষ। নরমের গরমে পুলিশের পক্ষ থেকেই চেষ্টা করা হয়েছিল  বোঝানোর। তারপর অনেকেই সামাজিক দূরত্বের নিয়ম মেনে চলছিল না। তবে যতদিন এগিয়েছে মানুষের মধ্যে একটু একটু করে সচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। তারই একটা খন্ডচিত্র পাওয়া গেল সোমবার গড়িয়াহাট বাজারে।

বাজারে ঢোকার মুখেই পুরসভার তরফ থেকে নিরাপত্তারক্ষী মোতায়েন করা হয়েছে। একাধিক জায়গায় পুলিশ ব্যারিকেড তৈরি করেছে। একইসঙ্গে বাজারে সব গেটেই মোতায়েন রয়েছে পুলিশও। গড়িয়াহাট বাজারের প্রবেশ পথকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। একটা অংশ দিয়ে বাজারে ঢোকা এবং আরেকটা অংশ দিয়ে বেরোনোর রাস্তা তৈরি করা হয়েছে। বাজারে ঢোকার মুখে পুরসভার কর্মীরা প্রত্যেক ক্রেতার হাতে স্যানিটাইজার দিচ্ছেন। কেউ না নিতে চাইলে উপস্থিত পুলিশ সেই ব্যক্তিকে স্যানিটাইজার নিতে বাধ্য করছেন।

বাজারের ভেতর সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য বেশ কিছু সবজি বিক্রেতাকে তাদের নির্দিষ্ট জায়গা থেকে সরিয়ে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাজার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে মাইকে লাগাতার করোনা ভাইরাস সচেতনতামূলক প্রচার করা হচ্ছে। গড়িয়াহাট বাজারে নিয়মিত বাজার করতে আসেন সুব্রত গাঙ্গুলী। তিনি বলেন, 'ব্যবস্থাপনা ভালোই করা হয়েছে। কিন্তু লকডাউন শুরু হবার সময় থেকে করলে ভালো হতো।' অপর ক্রেতা সনাতন মজুমদার বলেন, 'আমি সব রকম ভাবে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার চেষ্টা করছি। কিন্তু বাজারের ভেতর সেটা পুরোপুরি সম্ভব হচ্ছে না। অনেকেই এখনো নিয়ম মানছে না।'

SOUJAN MONDAL

Published by: Debalina Datta
First published: April 27, 2020, 1:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर