Home /News /kolkata /
জলের ড্রামে ডুবিয়ে আট বছরের দেওরকে খুন করল বৌদি !

জলের ড্রামে ডুবিয়ে আট বছরের দেওরকে খুন করল বৌদি !

Representative Image

Representative Image

জলের ড্রামে চুবিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে খুনের অভিযোগ বৌদির বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #কলকাতা: জলের ড্রামে চুবিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে খুনের অভিযোগ বৌদির বিরুদ্ধে। ৩ দিন পর চাপের মুখে স্বামীর কাছে খুনের কথা স্বীকার করে অভিযুক্ত। মেটিয়াবুরুজ থানায় আত্মসমর্পণ করেছে অভিযুক্ত বৌদি।

    বাড়ির বাথরুমে রাখা বিশাল জলের ড্রাম। রোজই স্কুল থেকে ফিরে এই ড্রামে নেমে স্নান করাই ছিল তৃতীয় শ্রেণির পড়ুয়া বালকের নেশা। শুক্রবার সেই ড্রাম থেকেই উদ্ধার হয় বালকের মৃতদেহ। আচমকাই অন্ধকার নেমে আসে গার্ডেনরিচের পাহাড়পুরের বাড়িতে। তিন দিন পরে বিস্ফোরণ। চাপের মুখে স্বামীর কাছে খুনের কথা স্বীকার করে নিল মৃত বালকের বউদি প্রিয়াঙ্কা।

    ঘটনার বিবরণে প্রকাশ, শুক্রবারও স্কুল থেকে ফিরে জল ভরা ড্রামে স্নান করতে নেমেছিল বালকটি । তখনই বাথরুমে ঢোকে তাঁর বৌদি । বালকটি জলে ডুব মারতেই ড্রামের ঢাকনা বাইরে থেকে আটকে দেয় সে। ড্রামের ভিতরেই শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয় বালকটির । আট বছরের দেওর মারা যাওয়ার পরে ড্রামের ঢাকনা খুলে দিয়ে চলে যায় তাঁর বৌদি ।

    খুনের পর নিজের ঘরে ফিরে ল্যাপটপে গানও শোনেন বৌদি । কিছুসময় পরে বালকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। নিজেই লোকজনকে ডাকাডাকি করে অভিযুক্ত মহিলা। সব জেনে অভিযুক্তের স্বামী তাকে মেটিয়াবুরুজের থানায় নিয়ে গিয়ে আত্মসমর্পণ করায়।

    পরিবারের বাকিদের মত দেওরের সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করত অভিযুক্ত বৌদি । নিত্য অশান্তি সেই সঙ্গে চূড়ান্ত অপরাধমনস্কতা। সেই মানসিকতা থেকেই এই খুন মত মনরোগ বিশেষজ্ঞদের।

    First published:

    Tags: Child death, Kolkata

    পরবর্তী খবর