শাহি সভায় শিশির অধিকারী, এবার কি গোটা অধিকারী বাড়িই পদ্মাসনে?

শাহি সভায় শিশির অধিকারী, এবার কি গোটা অধিকারী বাড়িই পদ্মাসনে?

শিশির অধিকারীর হাতে আমন্ত্রণপত্র তুলে দেওয়া হচ্ছে।

আপাতত জল্পনা, এখান থেকেই পিতাপুত্র পদ্মাসনে থিতু হচ্ছেন কিনা তাই নিয়ে।

  • Share this:

#কলকাতা: বিজেপির আমন্ত্রণ পৌঁছল কাঁথির শান্তিকুঞ্জে। অধিকারী বাড়িতে গিয়ে শিশির অধিকারী এবং দিব্যেন্দু অধিকারীকে অমিত শাহের সভা থাকার জন্য আমন্ত্রণ জানালেন কেন্দ্রীয় জাহাজ মন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্য। আগামি কাল এগরার বালিঘাইয়ে বিজেপির সভা। অমিত শাহর সেই সভায় শিশির অধিকারীর উপস্থিতি চাইছে বিজেপি। পাশাপাশি, আগামী ২৪ মার্চ কাঁথিতে প্রধানমন্ত্রীর সভা, সেই সভায় যাওয়ার জন্য শিশির অধিকারীর পাশাপাশি আমন্ত্রণ করা হয়েছে দিব্যেন্দু অধিকারীকেও। আপাতত জল্পনা, এখান থেকেই পিতাপুত্র পদ্মাসনে থিতু হচ্ছেন কিনা তাই নিয়ে। সূত্রের খবর, শিশির অধিকারী কাল অমিত শাহের সভায় যেতে পারেন।

তৃণমূল থেকে বর্ষীয়াণ নেতা শিশির অধিকারীকে আনুষ্ঠানিক ভাবে সরানো না হলেও, বর্ষীয়াণ নেতার সঙ্গে দলের সম্পর্ক রসাতলে পৌঁছেছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শুভেন্দু অধিকারীর পক্ষ নিয়ে বারংবার পুরনো দলকে বিঁধেছেন শিশির অধিকারী। নিজে মুখে বলেছেন,"তৃণমূল কংগ্রেস এখন প্রাইভেট লিমিটেড, মোদি-শাহ যে কারুর মঞ্চে যেতে পারি।"

পদ্মপত্রে শিশির ঠিক কখন ঝরবে তা অবশ্য নির্ভর করছিল শুভেন্দু অধিকরীর হ্যাঁ-না এর উপর।  চণ্ডীপুরের সভা থেকে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘‌দইসাইতে তোলাবাজ ভাইপো এসে আমার বাপ তুলে কথা বলেছে। শিশির অধিকারী কে গালাগালি দিয়েছে। শুধু মোদীজির সভাতে নয়, তার আগে ২১ মার্চ এগরাতে অমিত শাহের সভাতেও শিশিরবাবুকে থাকতে বলব।’ শিশির অধিকারী নিজেও অল্প কথায় বলে দিয়েছিলেন, ডাকলে যাব। সেই ডাকই এসেছে। ফলে, রবিবার এগরায় অমিত শাহের সভায় তাঁর দেখা পাওয়া কেবল সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

অন্য দিকে শিশির পুত্র দিব্যেন্দুর সঙ্গে বিজেপির রসায়ন উড়িয়ে দেওয়ার নয়। দিব্যেন্দু একসময়ে বিজেপি যোগদানের প্রসঙ্গে রীতিমতো ঝাঁঝালো কণ্ঠেই বলেছিলেন, "আমি পাগলা ষাঁড় হয়ে যাইনি।" কিন্তু তারপর সমীকরণ অনেক বদলেছে। তৃণমূল প্রায় ব্রাত্যই করে দিয়েছে অধিকারী পরিবারকে। কখনও নাম করে, কখনও না করে অধিকারী পরিবারদের মুণ্ডুপাত হয়েছে বিভিন্ন সভায়। এই পরিস্থিতিতে স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি  গত ৭ ফেব্রুয়ারি হলদিয়ার তাঁর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন।  তখনই স্পষ্ট হয়ে যায়, শুভেন্দুর মতোই দিব্য়েন্দুরও গন্তব্য় সম্ভবত বিজেপিই। ইতিমধ্যে দাদা শুভেন্দুর পদাঙ্ক অনুসরণ করে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন সৌমেন্দু অধিকারীও। সেই কারণেই বিজেপি সূত্রে দাবি করা হচ্ছিল, এবার একই পথে হাঁটতে চলেছেন দিব্যেন্দুও। আপাতত ডাক এসেছে 'রাজার বাড়ি' থেকে, দেখার দিব্যেন্দু তাতে সাড়া দেন কিনা। সর্বপোরি পিতাপুত্র নতুন করে পদ্মাসনে থিতু হবে-এমন সম্ভাবনাই উস্কে দিচ্ছেন পর্যবেক্ষকরা।

Published by:Arka Deb
First published: