কলকাতা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাটির উপরে মেট্রোর হাত ধরে চেহারা বদলাচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশনের

মাটির উপরে মেট্রোর হাত ধরে চেহারা বদলাচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশনের

মেট্রো রেলের হাত ধরেই বদলে যাচ্ছে পূর্ব রেলের অন্যতম বড় স্টেশন শিয়ালদহ।

  • Share this:

#কলকাতা: মেট্রোর হাত ধরেই বদলে যাচ্ছে শিয়ালদহ স্টেশন। মাটির ওপরে শিয়ালদহ মেট্রোকে ঘিরে চলা কাজ প্রায় শেষের মুখে। ইতিমধ্যেই মেট্রো রেলওয়ে সূত্রে জানানো হয়েছে, স্টেশনের ওপরের গেট থেকে শুরু করে পার্কিং স্পেস সবটাই সাজানোর কাজ প্রায় শেষ। খুব শীঘ্রই স্টেশন এলাকার রাস্তাও খোলনলচে বদলে ফেলা হবে। মাটির নীচে যেমন দ্রুত গতিতে কাজ এগোচ্ছে, ঠিক তেমনি ভাবে মাটির ওপরেও কাজ এগোচ্ছে দ্রুত। ফলে লুক বদল হচ্ছে ব্যস্ততম শিয়ালদহ স্টেশন চত্বরের।

মেট্রো রেলের হাত ধরেই বদলে যাচ্ছে পূর্ব রেলের অন্যতম বড় স্টেশন শিয়ালদহ। সূত্রের খবর আগামী ছয় মাসের মধ্যেই তৈরি হয়ে যাবে শিয়ালদহ স্টেশন। তার জেরেই বদলে যাবে গোটা স্টেশন চত্বর। ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রো প্রকল্পের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ স্টেশন হতে চলেছে শিয়ালদহ। এই স্টেশন ধরেই লক্ষ লক্ষ যাত্রী মেট্রো ব্যবহার করবেন এমনটাই আশাবাদী কলকাতা মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ। যেহেতু মেট্রো স্টেশন আর রেলের স্টেশন একেবারেই গা  ঘেঁষে উঠেছে তাই বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে যাত্রীদের সুবিধায়।

মাটির ১৬.৫ মিটার নীচে থাকছে মেট্রোর লাইন। শিয়ালদহ স্টেশনের একদিকে ফুলবাগান মেট্রো স্টেশন, অন্যদিকে এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশন। যেহেতু এসপ্ল্যানেড মেট্রো স্টেশন জাংশন স্টেশন হতে চলেছে, তাই ধরে নেওয়া হচ্ছে ভিড় নিয়ন্ত্রণে যথাযথ  ব্যবস্থা রাখতে হবে শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশনেও। শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশন তৈরির দায়িত্বে থাকা আধিকারিক আইটিডি-সিইএম এর চিফ অপারেটিং ম্যানেজার রুপক সরকার জানিয়েছেন, "শিয়ালদহ ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ একটা স্টেশন হতে চলেছে। কারণ শহরতলির বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ এসে মেট্রো ধরবেন। ফলে ভিড় নিয়ন্ত্রণের জন্যে প্রশস্ত জায়গা এবং যথাযথ ভাবে শিয়ালদহ স্টেশনের উত্তর, মেন এবং দক্ষিণের রেল প্ল্যাটফর্মে পাঠানো সবটা বুঝেই আমরা কাজ করেছি। যাতে মানুষের অসুবিধা না হয়।"

যাত্রীদের সুবিধার জন্যে স্টেশনে থাকছে ৯টি সিঁড়ি। তার মধ্যে শিয়ালদহ দক্ষিণের দিকে থাকা প্রশস্ত জায়গা দিয়ে সহজেই আসা যাওয়া করা যাবে। সুবিধার জন্যে তাই বেশ চওড়া করা হয়েছে এটি। এছাড়া মেট্রো স্টেশনে ঢোকা ও বেরনোর জন্যে থাকছে একাধিক প্রান্তে সিঁড়ি। স্টেশনে থাকছে মোট ১৮টি এসক্যালেটর। থাকছে মোট ২৭টি টিকিট কাউন্টার। এর মধ্যে বেশ কিছু টিকিট কাউন্টার হবে যারা শারীরিক ভাবে সমস্যায় তাদের জন্যে। বিশেষ ভাবে নীচু করা হয়েছে। এছাড়া যাতায়াতের সুবিধার জন্যে থাকছে মোট ৫টি লিফট। মোট ৩টি প্ল্যাটফর্ম থাকছে। যেহেতু বহু যাত্রী ওঠানামা করবেন তাই আইল্যান্ড প্ল্যাটফর্ম রাখা হয়েছে। ইতিমধ্যেই স্টেশন সাজানোর কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। ফ্লোর সাজানোর কাজ শুরু হয়েছে।

সূত্রের খবর,নতুন বছরের প্রথম মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে শিয়ালদহ থেকে টানেল বোরিং মেশিন উর্বি যাবে বউবাজারের দিকে। শিয়ালদহ স্টেশন থেকে মুখ ঘুরিয়ে পাঠানো হবে বউবাজারের দিকে। তাই প্ল্যাটফর্মের একাংশ সাজানোর কাজ এখনই শুরু করা যাচ্ছে না। রুপকবাবু জানিয়েছেন, ২০২১ সালের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে তারা শিয়ালদহ  স্টেশন মেট্রো রেলের হাতে তুলে দেবেন।

আবীর ঘোষাল

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: November 24, 2020, 9:12 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर