Home /News /kolkata /

শিয়ালদহের গেস্টহাউস মালিকের রহস্যমৃত্যু! ৭ দিন নিখোঁজ থাকার পর দেহ মিলল গঙ্গায়

শিয়ালদহের গেস্টহাউস মালিকের রহস্যমৃত্যু! ৭ দিন নিখোঁজ থাকার পর দেহ মিলল গঙ্গায়

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

পরিবারের অভিযোগ, পরিকল্পনা করেই খুন করা হয়েছে ওই ব্যবসায়ীকে। আর সেই অভিযোগের আঙুল উঠেছে বন্ধু বন্ধু সূরজ সোনকরের বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #কলকাতা: পাঁচদিন ধরে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ ছিলেন বউবাজারের এক গেস্টহাউস মালিক। রবিবার সন্ধ্যায় গঙ্গার ঘাট থেকে উদ্ধার হল দেহ। মৃত ওই ব্যবসায়ীর নাম ভূপাল মুখোপাধ্যায় (৪২) ওরফে ববি।

    মৃতের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জানিয়েছেন, ২৯ জুন বিকেলে বন্ধু সূরজ সোনকর ফোন করে ভূপালকে ডাকেন। বন্ধু সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন বলে বাড়ি থেকে বাইক নিয়ে বেরিয়ে যান তিনি। এরপর রাত হয়ে গেলেও বাড়ি ফেরেননি। ভোর চারটে নাগাদ তাঁর মোবাইলে শেষবারের জন্য ফোন করেন ভূপাল। কিন্তু তারপর থেকে কোনওভাবে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি পরিবার। এমনকী সেই সময় বন্ধু সূরজকে বার বার ফোন করা হলেও ফোন ধরেনি সে। এরপর উপায় না দেখে সকাল হতেই মুচিপাড়া থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করা হয় পরিবারের তরফ থেকে। শেষ পর্যন্ত রবিবার উত্তর বন্দর থানা অন্তর্ভুক্ত রামকৃষ্ণপুর লঞ্চঘাটে একটি দেহ উদ্ধার হয়। পরে মৃতের পরিবার দেহটি শনাক্ত করে।

    পরিবারের অভিযোগ, পরিকল্পনা করেই খুন করা হয়েছে ওই ব্যবসায়ীকে। আর সেই অভিযোগের আঙুল উঠেছে বন্ধু সূরজ সোনকরের বিরুদ্ধে। সোমবার মুচিপাড়া থানায় বন্ধু সূরজের বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ দায়ের করেছে মৃতের পরিবার। তাঁদের অভিযোগ, প্রথম থেকেই খুনের অভিযোগ নিতে গড়িমসি করছিল পুলিশ। পরে ডিসি সেন্ট্রালকে গোটা ঘটনার কথা জানান তাঁরা। ডিসি মুচিপাড়া থানার ওসিকে ফোন করে অভিযোগ নিতে নির্দেশ দিলে অভিযোগ গৃহীত হয়।

    পুলিশ জানিয়েছে, বন্ধু সূরজ সোনকরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেকে পাঠানো হয়েছে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তাঁদের মধ্যে কোনও ব্যবসায়িক শত্রুতা ছিল কিনা খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি, এই বন্ধুর সঙ্গে ভূপাল মুখোপাধ্যায়ের কতদিনের সম্পর্ক বা কতটা গভীর বন্ধুত্ব তাঁদের মধ্যে ছিল, তা জানার চেষ্টা করা হবে।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published:

    Tags: Dead body recover, Guest house owner, Sealdah

    পরবর্তী খবর