corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভাইরাস তাড়াতে এ বার বাংলায় তৈরি 'ভাইরোকিল'

ভাইরাস তাড়াতে এ বার বাংলায় তৈরি 'ভাইরোকিল'

বাড়িতে অতি সাবধানে যে জিনিস ঢোকাচ্ছেন, ভাল করে সাবান দিয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে ধুয়ে নিচ্ছেন, তা সত্যিই জীবাণুমুক্ত হচ্ছে তো!

  • Share this:

#কলকাতা: বাড়িতে অতি সাবধানে যে জিনিস ঢোকাচ্ছেন, ভাল করে সাবান দিয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে ধুয়ে নিচ্ছেন, তা সত্যিই জীবাণুমুক্ত হচ্ছে তো!

এই নিয়ে নানা প্রশ্ন সাধারণ মানুষের মনে। অনেক ক্ষেত্রে বিজ্ঞানীদের একাংশও এ নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। তা হলে উপায় কী? বিজ্ঞানীরা বলছেন, এ থেকে বাঁচার একমাত্র উপায়, আলট্রা-ভায়োলেট রশ্মি বা ইউ-ভি রশ্মি, যা নির্দিষ্ট ইন্টেনসিটিতে এবং নির্দিষ্ট সময় ধরে সংশ্লিষ্ট বস্তুর উপরে দেওয়া যায়, তা হলে তার মধ্যে আর ভাইরাস বেঁচেই থাকতে পারে না। এ রকমই একটি যন্ত্র আবিষ্কার করে এ বার সারা দেশকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন এ রাজ্যেরই একটি সংস্থা। জিএসএসজি নামের ওই সংস্থার তৈরি ওই মেশিনকে ইতিমধ্যেই মান্যতা দিয়েছে আইসিএমআর।

ছোট্ট মাইক্রোওভেনের মতো দেখতে ওই মেশিনের নাম রাখা হয়েছে, ভাইরোকিল। সংস্থার টেকনিক্যাল পরামর্শদাতা সুরজিৎ বসু বলেন, "আমাদের মেশিনে শাক-সবজি-সহ যে কোনও বস্তুর মধ্যে থাকা ভাইরাসকে মেরে ফেলা হয় ইউ-ভি রশ্মির সাহায্যে। অন্য অনেক মেশিন আছে তাতে সময় দেখা গেলেও কত ইন্টেনসিটিতে ইউ-ভি রশ্মি যাচ্ছে, তা জানা যায় না। কিন্তু আমাদের মেশিনে সেটাও দেখা যাবে।" সুরজিৎবাবুর দাবি, "দেশে এখনও পর্যন্ত ২০টি এ ধরনের মেশিন পরীক্ষা করেছে আইসিএমআর। তার মধ্যে আমাদের মেশিন যে সর্বোৎকৃষ্ট, তা স্বীকার করে নিয়েছে কেন্দ্রীয় ওই সংস্থা।"

সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, শুধুমাত্র শাক-সবজি বা খাবার জিনিসে থাকা ভাইরাসই নয়, প্রতিদিন বাড়ি থেকে বেরনোর সময়ে আমরা যে সব জিনিস সঙ্গে নিয়ে বের হই যেমন, মোবাইল, মানিব্যাগ, মাস্ক, গ্লাভস-এর মতো জিনিসও জীবাণুমুক্ত করে ওই মেশিন।"

Published by: Akash Misra
First published: August 24, 2020, 10:21 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर