বারংবার স্কুলে যৌন হয়রানির অভিযোগ, পরিস্থিতি সামলাতে আসরে নামল স্কুলশিক্ষা দফতর

বারংবার স্কুলে যৌন হয়রানির অভিযোগ, পরিস্থিতি সামলাতে আসরে নামল স্কুলশিক্ষা দফতর
  • Share this:

#কলকাতা: একের পর এক স্কুলে যৌন হয়রানির অভিযোগে তোলপাড়। ভবিষ্যতে এমন ঘটনা এড়াতে নির্দেশিকা তৈরি করল রাজ্য। নির্দেশিকা মানা হলে স্কুলে যৌন হয়রানির সম্ভাবনা আটকানো যাবে বলে আশা। এ ধরনের অভিযোগ উঠলে কীভাবে পরিস্থিতি সামলানো উচিত, তাও নির্দেশিকায় স্পষ্ট করা হয়েছে।

স্কুলে যৌন হয়রানির অভিযোগ। বেশ কয়েকটি স্কুলে এমন অভিযোগ ওঠার পর তৎপর হল স্কুলশিক্ষা দফতর।

স্কুলে পড়ুয়াদের যৌন হয়রানির সম্ভাবনা রুখতে স্কুল কর্তৃপক্ষকেই দায়িত্ব নিতে হবে। নির্দেশিকাই সেই বিষয়টি স্পষ্ট। এধরণের ঘটনাই যাতে না ঘটে, তা নিশ্চিত করতেই জোর দেওয়া হয়েছে।

স্কুলের কর্মীদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য রাখা

অভিভাবকদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য রেজিস্ট্রার থাকতে হবে

প্রত্যেক অভিভাবককে বাধ্যতামূলক ভাবে কয়েকটি ফোন নম্বর রাখতে হবে

স্থানীয় থানা, বিডিও বা স্থানীয় প্রশাসকের নম্বর রাখতে হবে

স্কুলে অ্যান্টি হ্যারাসমেন্ট কমিটি বাধ্যতামূলক

কমিটির আলোচনার তথ্য নথিবদ্ধ রাখতে হবে

বাড়তি সময় স্কুল চললে সুপারভাইজার থাকা মাস্ট

পড়ুয়াদের মধ্যে অস্বাভাবিক আচরণ দেখতে অভিভাবককে জানাতে হবে

স্কুলে কমপ্লেন বক্সের ওপরে সিসিটিভি থাকতে হবে

এতকিছুর পরও যদি অভিযোগ ওঠে, সেক্ষেত্রেও যাবতীয় ব্যবস্থা নিতে হবে স্কুল কর্তৃপক্ষকে। কী সেই ব্যবস্থা?

তথ্যপ্রমাণ নষ্ট হতে দেওয়া চলবে না

অভিযোগকারী ও অভিযুক্তের পরিচয় গোপন রাখতেই হবে

২৪ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশকে জানানো বাধ্যতামূলক

ঘটনায় যত বেশি সম্ভব তথ্য জোগাড় করতে হবে

ওই পড়ুয়া চাইলে আলাদা স্কুলে ভরতি হতে পারেন

যৌনশিক্ষা নিয়ে নিয়মিত ক্লাস হওয়া প্রয়োজন

রাজ্যের সব সরকারি স্কুলে এই নির্দেশিকা বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। বেসরকারকারী স্কুলগুলোতেও তা কার্যকর করতে চায় রাজ্য সরকার। এজন্য সিবিএসই ও আইসিএসই মাধ্যম স্কুলগুলিকে চিঠি দেওয়ার ভাবনা স্কুলশিক্ষা দফতরের।

First published: 10:27:30 AM Jun 28, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर