এসএমএস আসেনি তো আপনার মোবাইলে? তাহলে এক টাকাও দেবেন না....

এসএমএস আসেনি তো আপনার মোবাইলে? তাহলে এক টাকাও দেবেন না....

দালালরাজ রুখতে এই ব্যবস্থা দ্রুত চালু করছে রাজ্য পরিবহন দফত ৷

  • Share this:

ABIR GHOSHAL

#কলকাতা: ভাল করে ইনবক্স চেক করুন। এসএমএস এসেছে? আসেনি? তা হলে একটা টাকাও ওয়ালেট থেকে বার করে দেবেন না। দালালরাজ থেকে বাঁচাতে এবার গাড়ির মালিকদের জন্য এই বিশেষ ব্যবস্থা চালু করছে রাজ্য পরিবহন দফতর। মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই এই ব্যবস্থা চালু হতে চলেছে। গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন থেকে গাড়ির ফিটনেস সারটিফিকেট বা পলিউশন প্রতিটি ক্ষেত্রেই পরিবহন দফতরে গেলেই টাকা চাওয়ার অভিযোগ ওঠে।

অভিযোগ, দালালদের টাকা না দিলে কোনও ফাইল নাকি এক টেবিল থেকে অন্য টেবিলে পৌছয় না। ফলে মালিকের পকেট খসতে শুরু করে। এবার সেই ব্যবস্থা পুরোপুরি বন্ধ করে দিতে চাইছে আঞ্চলিক পরিবহন দফতরগুলি। বেশ কিছুদিন আগেই, বেলতলা ও আলিপুর আরটিও থেকে নানা অভিযোগ জমা পড়েছে পরিবহন দফতরের সদর দফতরে। অভিযোগে বলা হয়েছে, গাড়ি ফিটনেস করতে দেওয়া হয়েছে, সেই পরীক্ষা হয়েও গিয়েছে। কিন্তু গাড়ির মালিকের কাছে ফোন গিয়েছে টাকা চেয়ে। বেশ কয়েকজন এভাবে টাকা দিয়েও দিয়েছেন। শেষমেশ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, সমস্ত কাজ শেষ হয়ে গেলে আপনার মোবাইলের ইনবক্সে পৌঁছে যাবে এসএমএস। কী কী থাকবে সেই এসএমএসে?

প্রথমত, কী কী পরীক্ষা করা হয়েছে? তারপর এই ধরনের পরীক্ষার জন্য সরকার কত টাকা করে নিয়েছে? যদি আপনার কোনও জরিমানা বা বকেয়া টাকা নেওয়া হয়। তা কতদিনের এবং কেন নেওয়া হচ্ছে সেটাও উল্লেখ করে দেওয়া হবে এই এসএমএস-এ। সরকারি এই ব্যবস্থাকে স্বাগত জানাচ্ছেন গাড়ির মালিকরা। বিশেষ করে বাণিজ্যিক গাড়ির মালিকরা। তবে এর ফলে যে একেবারেই দালাল মুক্ত ব্যবস্থা হয়ে যাবে এমন নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারছেন না। পরিবহণ দফতরের এক আধিকারিক জানাচ্ছেন, এবার থেকে হাতে হাতে কাগজ তুলে দেওয়ার ব্যবস্থাও বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। হয় গাড়ির মালিকের মেইলে যাবতীয় পেপার পাঠানো হবে, নচেৎ এম বাহন অ্যাপে সমস্ত কিছু আপলোড করে দেওয়া হবে। জয়েন্ট কাউন্সিল অফ বাস সিন্ডিকেটের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দোপাধ্যায় স্বাগত জানাচ্ছেন এই উদ্যোগকে। তিনি বলেন, এতে হয়রানি কমবে।হয়রানি রুখতে আপাতত ভরসা এসএমএস। তাই চোখ রাখুন ইনবক্সে।

First published: February 25, 2020, 12:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर