Home /News /kolkata /

অভিষেকের প্রশংসা করে নয়া ফেসবুক পোস্ট, তৃণমূলকে স্বস্তি দিলেন শতাব্দী

অভিষেকের প্রশংসা করে নয়া ফেসবুক পোস্ট, তৃণমূলকে স্বস্তি দিলেন শতাব্দী

অভিষেকের প্রশংসায় শতাব্দী৷ Photo-Facebook

অভিষেকের প্রশংসায় শতাব্দী৷ Photo-Facebook

  • Share this:

#কলকাতা: বলেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় সিদ্ধান্ত জানাবেন শনিবার দুপুর ২ সময়। দলের একাংশের প্রতি তার ক্ষোভ প্রকাশ থেকে তিনি বিরত থাকেন নি৷ জল্পনা তৈরি হয়েছিল তার দল ছাড়া নিয়েও। যদিও শুক্রবার রাতে অভিষেক বন্দোপাধ্যায় সাথে তার বৈঠক সমস্ত জল্পনায় ইতি টেনেছে।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় লাইভ না করলেও, ফেসবুক ফ্যান পেজে নিজের সংসদীয় এলাকা সম্পর্কে শনিবার সকালে বার্তা দিলেন সাংসদ শতাব্দী রায়। যেখানে তিনি পরিষ্কার করে দিলেন আস্থা সেই মমতা বন্দোপাধ্যায়ের উপরেই। সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে বীরভূমের সাংসদ জানিয়েছেন, বীরভূমের নাগরিকদের প্রতি-আজ একটি পোস্ট করব বলেছিলাম। এই লেখার মাধ্যমে আমার বক্তব্য জানাচ্ছি।আমাকে কয়েকজন প্রশ্ন করছিলেন কেন এলাকার বহু কর্মসূচিতে আমাকে দেখা যাচ্ছে না। অথচ আমি তো চাই এলাকার মানুষের পাশে থাকতে। কিছু সমস্যা হচ্ছে। কিছু যন্ত্রণা অনুভব করছিলাম। চেষ্টা করছি সব বাধা টপকে এলাকায় সবসময় থাকার। বিষয়টি ফেসবুকের মাধ্যমে জানিয়েছিলাম আপনাদের।এই সূত্রেই কিছু বহুমুখী ঘটনা ঘটছিল।শেষ পর্যন্ত তৃণমূল পরিবারের প্রিয় নেতা সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আমার সবিস্তারে আলোচনা হয়েছে। আমি সমস্যার জায়গাগুলি জানিয়েছি। তিনিও শুনেছেন এবং আলোচনা হয়েছে। এই আলোচনা ইতিবাচক। সমস্যার সমাধান হবে বলে আমি আশাবাদী।'

বীরভূমের নাগরিকদের প্রতি- আজ একটি পোস্ট করব বলেছিলাম। এই লেখার মাধ্যমে আমার বক্তব্য জানাচ্ছি। আমাকে কয়েকজন প্রশ্ন... Posted by Satabdi Roy Fans' Club on Friday, 15 January 2021

বিজেপি-তে যোগদানের জল্পনায় ইতি টানতে শতাব্দী আরও লিখেছেন, 'সামনে নির্বাচন। যাঁরা তৃণমূলের কর্মী বা নেতা, আমার মতোই তাঁদের কিছু ক্ষোভ বা বক্তব্য থাকতেই পারে। আমরা সেগুলি দলের মধ্যেই মেটাবো। ভোটে জয়ের পর পর্যালোচনা করব। এখন সবাই হাতে হাত মিলিয়ে লড়াই করার সময়। আসুন সবাই মমতাদির নেতৃত্বে তৃতীয় তৃণমূল সরকার গঠনের লক্ষ্যে বাংলার স্বার্থে কাজ করি।আমি যখন তৃণমূলে এসেছিলাম তখন সিঙ্গুর আন্দোলন চলছে। দল ক্ষমতায় নেই। কঠিন সন্ধিক্ষণ। শুধু দলকে ভালোবেসে, মমতাদিকে ভালোবেসে আমি এসেছিলাম। আজ আবার যখন সবাই বঙ্গরাজনীতির সন্ধিক্ষণ বলছেন, তখন আমার দলের মঞ্চ থেকেই লড়াই করার কর্তব্য থেকে পিছিয়ে যাব না। আমি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ দিচ্ছি। যেভাবে তিনি সমস্যা শুনেছেন, আলোচনা করেছেন, পরামর্শ দিয়েছেন, তাতে আমি নিশ্চিত তরুণ নেতাটি এখন যথেষ্ট দায়িত্বশীল ও পরিণত। নতুন প্রজন্মের এমন নেতার নেতৃত্ব দলকে শক্তিশালী করবে। তৃণমূল কংগ্রেস আবার জিততে চলেছে।আমি দলের সৈনিক হিসেবে আমার কর্তব্য পালন করে যাব।সেই সঙ্গেই আরও বেশি করে নিবিড়ভাবে থাকব আমার বীরভূমের মানুষের পাশে।' দীর্ঘ পোস্টের সঙ্গেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে নিজের ছবিও পোস্ট করেছেন শতাব্দী৷

শতাব্দী রায়ের এই ভূমিকায় খুশি দল। দলের এক শীর্ষ নেতা এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, দল ভাঙার চেষ্টা করে লাভ নেই। সূত্রের খবর, আগামীকাল রামপুরহাট যাবেন শতাব্দী রায়।

Abir Ghosal

Published by:Debamoy Ghosh
First published:

Tags: BJP, Satabdi Roy, TMC

পরবর্তী খবর