Home /News /kolkata /
Sandhya Mukhopadhyay Corona Positive: হার্ট অ্যাটাক, ফুসফুসে সংক্রমণ, করোনা পজিটিভ! সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় স্থানান্তরিত বেসরকারি হাসপাতালে

Sandhya Mukhopadhyay Corona Positive: হার্ট অ্যাটাক, ফুসফুসে সংক্রমণ, করোনা পজিটিভ! সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় স্থানান্তরিত বেসরকারি হাসপাতালে

Sandhya Mukhopadhyay: বাথরুমে পড়ে গিয়ে হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের। তিনি করোনা পজিটিভ।

  • Share this:

#কলকাতা: গীতশ্রী সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের শারীরিক অবস্থা অবনতি হয়েছে। কয়েকদিন আগে বাড়ির বাথরুমে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় পড়ে যান। তখনই তিনি কোমরে চোট পেয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে আবার পড়ে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। তারপর তড়িঘড়ি তাঁকে ভর্তি করা হয় এসএসকেএমের উডর্বান ওয়ার্ডে।

বিকেলে তাঁকে দেখতে আসেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের পড়ে গিয়ে হার্ট অ্যাটাক হয়েছে। সঙ্গে তিনি করোনা Sপজিটিভ। যেহেতু কোভিড পজিটিভ রয়েছে, তাই উডবার্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসা হবে না।

আরও পড়ুন- কোভিড পজিটিভ সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, এসএসকেএম-এ মুখ্যমন্ত্রী

মুখ্যমন্ত্রী এমনও জানান, তাঁর পরিবারের সদস্যরা শম্ভুনাথ পণ্ডিত হাসপাতালে চিকিতসা করাতে প্রস্তুত ছিলেন। যেহেতু হার্ট অ্যাটাক, সঙ্গে করোনা, তার থেকে আরো বড় বিষয় গায়িকার বয়স নব্বই বছর, তাই মুখ্যমন্ত্রী নিজেই কলকাতার অ্যাপোলো হাসপাতালের সঙ্গে কথা বলেন।

এই মুহূর্তে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের লাইফ সাপোর্টের প্রয়োজন রয়েছে।মুখ্যমন্ত্রী বলার সঙ্গে সঙ্গে সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়কে অ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য তোড়জোড় শুরু হয়ে যায়। অ্যাপোলো হাসপাতালের চিকিৎসকরা কিংবদন্তি সংগীতশিল্পীকে চিকিৎসার জন্য সম্পূর্ণরূপে প্রস্তুত।

সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার খবর পাওয়া মাত্রই আপামোর বাঙালির হৃদয় কাঁদছে।  গোধূলী কালে হাসপাতালের সামনে আপামোর জনগন হাতজোড় করে প্রার্থনা করেছেন তাঁর সুস্থতার কামনায়। সন্ধ্যা মুখার্জী এই মুহূর্তে চিকিৎসাধীন। তাঁর শারীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে।

আরও পড়ুন- হাতে-হাতে পৌঁছবে বই, কলকাতায় SFI-এর দারুণ উদ্যোগ!

প্রার্থনা শুরু হয়েছে বাংলা জুড়ে। সবাই চাইছেন, ফিরে এসে আবার হারমোনিয়াম ধরে গান ধরুন তিনি, 'তুমি আমার মা, আমি তোমার মেয়ে .....'। যে গান নারী প্রগতির হাতিয়ার হয়েছিল।

এই মুহূর্তে তিনি কথা বলতে পারছেন। ডাক্তাররা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। প্রয়োজনীয় সাপোর্ট তাঁকে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে এম্বুলেন্স পৌঁছনোর আগে থেকেই ডাক্তার থেকে কর্পতৃক্ষ সবাই প্রস্তুত ছিলেন তাঁকে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য। পৌছানোর পরই স্পেশাল আইসোলেশনে রেখে তাঁর চিকিৎস শুরু হয়েছে। সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়ের আরোগ্য কামনায় এখন প্রতিটি বাঙালি প্রার্থনা করছেন নিশ্চিত।

Published by:Suman Majumder
First published:

Tags: CM Mamata Banerjee, Sandhya mukherjee, Sandhya Mukhopadhyay, SSKM Hospital

পরবর্তী খবর