লকডাউনে গাড়ি থামাতেই পুলিশকে হেনস্থা! উর্দি চেটে তাতে লিপস্টিক লাগালেন তরুণী

লকডাউনে গাড়ি থামাতেই পুলিশকে হেনস্থা! উর্দি চেটে তাতে লিপস্টিক লাগালেন তরুণী

মৌখিক বিবাদ এরপর ধাক্কাধাক্কির স্তরে পৌঁছে যায় । এর মধ্যে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছুটে এসে পুলিশ আধিকারিকের উর্দি চেটে, তাতে লিপস্টিকের দাগ লাগায় অভিযুক্ত।

  • Share this:

#সল্টলেক: গোটা দেশে লকডাউন। করোনা রুখতে ২১ দিন দেশবাসীকে ঘরবন্দী থাকার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধনমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তা সত্ত্বেও চরম অসাবধানতার পরিচয় দিচ্ছেন সাধারণ মানুষ। করোনার সংক্রমণ রুখতে এটাই একমাত্র পথ, বারবার বলা হচ্ছে সে কথা । কিন্তু কোনও কথাই যেন কানে তোলার পাত্র নন মানুষ। লকডাাউনের মধ্যেও যথেচ্ছ রাস্তায় বেরচ্ছেন তাঁরা । প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী সকলেই নির্দেশ দিয়েছিলেন মনুষের রাস্তায় বেরনোর এই প্রবৃত্তি কড়া হাতে দমন করতে হবে পুলিশকে । সেই মতো গত ২দিন ধরেই লাঠি হাতে পথে নেমেছে পুলিশ । লাঠিচার্জের ছবিও আসছে সামনে ।

কিন্তু এবার মানুষকে সাবধাান করতে গিয়ে হেনস্থার মুখে পড়তে হল খোদ পুলিশকেই । সল্টলেকে গাড়ি থামাতেই তরুণীর হেনস্থার মুখে পড়তে হয় বিধাননগর উত্তর থানার পুলিশের এক আধিকারিককে । সূত্রের খবর, তরুণীকে বাইরে যেতে না করেছিলেন ওই আধিকারিক । এতেই পুলিশকে উদ্দেশ্য করে গালাগালি করতে শুরু করে ওই তরুণী । তাঁকে আটকানোর জন্য পুলিশের সঙ্গে কথা কাটাকাটি শুরু করে ওই তরুণী । মৌখিক বিবাদ এরপর ধাক্কাধাক্কির স্তরে পৌঁছে যায় । এর মধ্যে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ছুটে এসে পুলিশ আধিকারিকের উর্দি চেটে, তাতে লিপস্টিকের দাগ লাগায় অভিযুক্ত।

অভিযুক্ত মহিলা সহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

First published: March 25, 2020, 2:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर