Home /News /kolkata /
Crime: ফুটপাতের আখের রসে মিশছে স্যাকারিন, মস্তিষ্কের ক্য়ানসারের আশঙ্কা বাড়ছে রোজ

Crime: ফুটপাতের আখের রসে মিশছে স্যাকারিন, মস্তিষ্কের ক্য়ানসারের আশঙ্কা বাড়ছে রোজ

নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব চিত্র

Crime: পাশের বইয়ের দোকানদার শেখ নিজামউদ্দিন বলেন, ' আমি প্রতিদিন এখানে আখের রস খাই। কিন্তু জানতাম না, এই ভাবে রস মিষ্টি করার ঘটনা।

  • Share this:

#কলকাতা: তাজা আখের রস খেলে পেটের উপকার হয়। তার জন্য তৃষ্ণা মেটাতে মানুষ তাজা মিষ্টি আখের রসের গ্লাসে চুমুক দেয়। রসে জল মেশানো,সেটা আগে থেকেই ছিল।কিন্তু ইদানিংকালে দেখা যায় আখের রস মিষ্টি করার চোরাই পদ্ধতি শুরু হয়েছে। কলেজ স্ট্রিটের কফি হাউসের সামনে শংকর সাউ আখের রস বিক্রি করেন। তাঁর আখ পেশাই মেশিনের তলায় যে সিলভারের ট্রে রয়েছে। সেই ট্রের পেছনের দিকে রয়েছে নুন।অনেকে দেখে হয়তো ভাববেন ও নুন দিচ্ছেন তিনি।  আখ মেশিনে পেশায় করার সময় ওই নুন দিয়ে দেন রসের সঙ্গে। আর সেই নুনের সঙ্গে মেশানো থাকে স্যাকারিন। যার ফলে আখের রস আরও মিষ্টি হয়ে যায়। সাধারণ ক্রেতারা ভাবেন আখের রস খুব মিষ্টি। অতএব শঙ্করের আখের রস খুব ভাল।  শঙ্করকে এই বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ' মিষ্টি করার জন্য দিই।'

আরও পড়ুন: রাহুল গান্ধি দেশের ইতিহাস জানেন না, চিনা প্রতিনিধিদলের সঙ্গে দেখা করে ভুল করেছেন, তীব্র আক্রমণ অমিত শাহের

পাশের বইয়ের দোকানদার শেখ নিজামউদ্দিন বলেন, '  আমি প্রতিদিন এখানে আখের রস খাই। কিন্তু জানতাম না, এই ভাবে রস মিষ্টি করার ঘটনা। এটা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা।এটা বন্ধ হওয়া উচিত।'  এই শঙ্কর একা নয়। কলকাতায় বেশিরভাগ আখের রস বিক্রেতা একই উপায়ে রস মিষ্টি করে থাকেন। প্রশাসন জেনেও কোনও পদক্ষেপ করে না বলে দাবি স্থানীয় দোকানদারদের।  এই বিষয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক অধ্যাপক ডঃ প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস বলেন, ' স্যাকারিন মানুষের হজম হয় না।এটি পেট্রোলিয়াম জাত পদার্থ। এটি কৃত্রিম ভাবে মিষ্টি তৈরি করে। এটি শরীরে বিভিন্ন জায়গায় জমতে থাকে।যার ফলে মধুমেহ রোগ,লিভারের রোগ থেকে আরম্ভ করে ব্রেন ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে।'  স্যাকারিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সরকারের বিধি নিষেধ থাকলেও,অসাধু ব্যবসায়ীরা এই স্যাকারিন বিভিন্ন ভাবে খাদ্যে ব্যবহার করছে।আদতে মানুষের ক্ষতি হচ্ছে।

SHANKU SANTRA

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Crime

পরবর্তী খবর