শিশুপাচারে ধৃত জুহি চৌধুরীকে নির্দোষ ‘সার্টিফিকেট’ রূপার

শিশুপাচারে ধৃত জুহি চৌধুরীকে নির্দোষ ‘সার্টিফিকেট’ রূপার

শিশুপাচারে ধৃত জুহি চৌধুরীকে নির্দোষ ‘সার্টিফিকেট’ রূপার

  • Share this:

#কলকাতা: শিশুপাচারকাণ্ডে পাঁচ মাস ধরে সিআইডি হেফাজতে থাকলেও, বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরীকে দরাজ সার্টিফিকেট রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের। বিজেপি সাংসদের মন্তব্য, জুহি নির্দোষ। তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে। জুহি ও চন্দনার থেকে মেলা সূত্র ধরেই আজ রূপাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে সিআইডি। তাঁর, উত্তরে সন্তুষ্ট নয় সিআইডি। ফলে ফের সিআইডির মুখোমুখি হতে পারেন তিনি।

শিশুপাচারকাণ্ড নিয়ে সিআইডির তলব এড়িয়েছেন কৈলাশ বিজয়বর্গী। কিন্তু, শনিবার তদন্তকারীদের মুখে পড়তে হল বিজেপী নেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়কে। এদিন, টালিগঞ্জে রূপার বাড়িতে পৌঁছন সিআইডির চার সদস্যের একটি দল। তদন্তকারীদের রূপা বলেন,

‘আপনাদের জন্যই অপেক্ষা করছিলাম। তাই আগাম জামিন নিইনি। তদন্তে সব সহযোগিতা করব।

টানা দু’ঘণ্টার জেরায় একের পর এক অস্বস্তিকর প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় রূপাকে।

প্রশ্ন : জুহিকে চিনতেন?

উত্তর : হ্যাঁ

প্রশ্ন : চন্দনা চক্রবর্তীকে চেনেন?

উত্তর : একবার দেখা হয়েছিল

সিআইডি সূত্রে খবর, ২০১৬ সালে দিল্লির সাউথ ব্লকে জুহি ও চন্দনাকে নিয়ে মিটিং করেন রূপা। সত্যিই কি তাই?

প্রশ্ন : জুহি ও চন্দনাকে দিল্লিতে নিয়ে যান?

এই প্রশ্নের উত্তর দেননি রূপা।

এনজিও-র আড়ালে যে শিশুপাচার চলত রূপা কি তা জানতেন?

এই প্রশ্নেরও উত্তর দেননি বিজেপি সাংসদ। জুহি ও চন্দনার সঙ্গে রূপার কোনও আর্থিক লেনদেন হয়েছিল কিনা তাও জানতে চায় সিআইডি। রূপার আয়কর, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট-সহ একাধিক নথিও বাজেয়াপ্ত করা হয়। শিশুপাচারকাণ্ডে গত পাঁচ মাস ধরে সিআইডি হেফাজতেই রয়েছেন জুহি। তদন্তকারীরা বাড়ির বাইরে পা রাখতেই সেই জুহি চৌধুরীর হয়েই ব্যাট ধরেন রূপা।

রাজনৈতিক প্রতিহিংসা মেটাতেই বিজেপিকে জড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ রূপার। জুহি ও চন্দনাকে জেরা করে যে তথ্য মিলেছে তার সঙ্গে রূপার বয়ানে বহু অসঙ্গতি রয়েছে বলেই মনে করছে সিআইডি। ফলে, ফের তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।

First published: 05:02:47 PM Jul 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर