শ্বেত পাথরের ট্রাডিশন, দুর্গা এখানে ক্যাত্যায়ণী

শ্বেত পাথরের ট্রাডিশন, দুর্গা এখানে ক্যাত্যায়ণী

সাজানো বাগান। ফোয়ারা। বিশাল সাদা বাড়ি ঘিরে আভিজাত্যের গাম্ভীর্য। চক মিলানো দালানে ঐতিহ্যের পদধ্বনি।

  • Share this:

#কলকাতা: সাজানো বাগান। ফোয়ারা। বিশাল সাদা বাড়ি ঘিরে আভিজাত্যের গাম্ভীর্য। চক মিলানো দালানে ঐতিহ্যের পদধ্বনি। বিশাল গ্র্যান্ড ফাদার ক্লকের পেন্ডুলামে শ্বেতপাথরের টেবিলের প্রতিচ্ছবি। আড়ম্বরের ঘনঘটায় নয়। বনেদিয়ানার শৃঙ্খলায় মোড়া বেহালার রায়বাড়ি। দুশো ষাট বছরে পা দিয়ে আজও ঐতিহ্য চুঁয়ে পড়ে রায় পরিবারের দুর্গাপুজোয়।

সপ্তদশ শতাব্দীর গোড়ার কথা। মোঘল সম্রাট জাহাঙ্গীরের আদি সপ্তগ্রাম রাজধানীতে খাজাঞ্চী ছিলেন বেহালা রায় পরিবারের আদিপুররুষ গজেন্দ্র নারায়ণ চট্টোপাধ্যায়। মোঘল সম্রাটের কাছ থেকে রাজা ও রায়চৌধুরী উপাধি প্রাপ্তি। জাহাঙ্গীর তাঁর রাজধানী আদিসপ্তগ্রাম থেকে পূর্ববঙ্গে সরিয়ে নিলেও সেখানে যাননি রাজা গজেন্দ্র নারায়ণ। হালিশহর ও পরে উত্তর চব্বিশ পরগনার মধ্যমগ্রামে থাকতে শুরু করেন তিনি । শুরু করেন দুর্গাপুজো।

১৭৪২। বর্গিদের আক্রমণে তখন ক্ষতবিক্ষত বাংলা। রায়চৌধুরী পরিবার চলে আসে কলকাতার উপকণ্ঠে বেহালায়। ১৭৫৬ থেকে এখানেই পুজোর আয়োজন। এই পরিবারের অন্যতম কৃতী পুরুষ রায় বাহাদুর অম্বিকাচরণ রায়। পারিবারিক দুর্গাপুজো চালু রাখতে নিজের বিপুল সম্পত্তির একটি বড় অংশ শ্রী শ্রী দুর্গামাতা ঠাকুরাণীর নামে ট্রাস্ট করে দেন। তাঁর এক ছেলে অমরেন্দ্রনাথ রায়ের বেহালার বাড়িতেই এখন পুজোর তোড়জোড়।

জন্মাষ্টমী থেকে কাঠামোপুজো শুরু। মহালয়ার পরদিন, অর্থাৎ, প্রতিপদ থেকে ষষ্ঠী সকল পর্যন্ত চলে চণ্ডীপাঠ। নারায়ণ পুজো।

রায় বাড়ির পুজোয় খিচুড়ি ভোগে নানা বৈচিত্র্য। পুজোর পাঁচদিন পাঁচ রকম মাছের আয়োজন। দশমীতে ইলিশের ঝাল, অম্বল, কচুশাক। পান্তা খাইয়ে দুর্গাকে বিদায় জানাতে হবে তো ।

Loading...

রায় গিন্ন থেকে কর্তা। সকলেই ফ্যাশান সচেতন। কনটেম্পোরারিতে বিশ্বাস হলেও, পুজোয় ট্রাডিশনেই ভরসা। পুজোর কদিন তাই নতুন ডিজাইনের লাল পেড়ে গরদ আর ধাক্কা পাড় লুটোনো ধুতি পাঞ্জাবিতে ঝরে পড়ে সেদিনের বাবুয়ানি।

পুজোয় বাড়িতে বসে ভিয়েন । পুজোর পর প্রতিদিন চার হাজার চন্দ্রপুলী বিতরণ আজও এ বাড়ির রেোয়াজ। দুর্গা এখানে ক্যাত্যায়ণী রূপে পূজিতা। কালিকাপূরাণ মতে পুজোর আয়োজন। দুর্গাপুজোতেই শেষ নয়। এরপর রায় পরিবার ব্যস্ত হয়ে পড়ে জগদ্ধাত্রী পুজোর তোড়জোড়ে।

First published: 02:13:48 PM Aug 25, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर