নিউ আলিপুরে গবেষকের রহস্যমৃত্যু

নিউ আলিপুরে গবেষকের রহস্যমৃত্যু
Arpan Parui

নিউ আলিপুরে গবেষকের রহস্যমৃত্যু। জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার বিল্ডিং থেকে ঝাঁপ দেন গবেষক অর্পণ পাড়ুই।

  • Share this:

    #কলকাতা: নিউ আলিপুরে গবেষকের রহস্যমৃত্যু। জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার বিল্ডিং থেকে ঝাঁপ দেন গবেষক অর্পণ পাড়ুই। মানসিক অবসাদের কারণে আত্মহত্যা বলে অনুমান পুলিশের। গবেষকের ল্যাপটপ ও পেন ড্রাইভ উদ্ধার হলেও কোনও সুইসাইড নোট পায়নি পুলিশ।

    হাওড়ার বাউড়িয়ার বাসিন্দা অর্পণ পাড়ুই পোস্ট ডক্টরেট ফেলোশিপে গবেষণা করছিলেন। নিউ আলিপুরে জুলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ায় গবেষণা করছিলেন তিনি। অন্যান্য দিনের মতো সোমবারও প্রাণী বিজ্ঞান ভবনের অষ্টমতলে কাজ করছিলেন অর্পণ। রাত আটটা নাগাদ, আটতলা থেকে ঝাঁপ দেন তিনি। আওয়াজ শুনে আশপাশ থেকে অনেকে ছুটে আসেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই মারা যান ওই তরুণ গবেষক। ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, আত্মহত্যা করেছেন তিনি। অর্পণের ঘর থেকে চালু থাকা অবস্থায় ল্যাপটপ ও পেন ড্রাইভ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে কোনও সুইসাইড নোট মেলেনি।

    এরপরই অর্পণের বাড়িতে খবর দেওয়া হয়। রাতে বাউড়িয়া থেকে পরিবারের সদস্যরা নিউ আলিপুর থানায় আসেন। পরিবারের দাবি, চাকরিতে কাজের চাপ ও গবেষণার চাপে বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন অর্পণ।


    কাজের সুবিধার জন্য হাজরায় একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন অর্পণ পাড়ুই। ঘটনায় হতবাক বাড়ির মালিকও।

    বছর তিরিশের মেধাবী গবেষকের আকস্মিক মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না সহকর্মী থেকে আত্মীয়স্বজনরা।

    First published:

    লেটেস্ট খবর