কলকাতা

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

'বিবাহিত বলে কি প্রেম করা যায় না'! জয়ন্ত'র প্রস্তাব না মানাতেই খুন প্রিয়াঙ্কা? পুলিশের হাতে চাঞ্চল্যকর তথ্য

'বিবাহিত বলে কি প্রেম করা যায় না'! জয়ন্ত'র প্রস্তাব না মানাতেই খুন প্রিয়াঙ্কা? পুলিশের হাতে চাঞ্চল্যকর তথ্য
প্রতীকী ছবি

খুনি জয়ন্ত'র স্ত্রী ন'মাসের অন্তঃস্বত্তা । তা সত্ত্বেও প্রাক্তন প্রেমিকা প্রিয়াঙ্কা পুরকাইতের (২০) সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চেয়েছিল জয়ন্ত ।

  • Share this:

#কলকাতা: রিজেন্ট পার্কের পশ্চিম আনন্দপল্লিতে প্রাক্তন প্রেমিকাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় চাঞ্চল্যকর তথ্য পুলিশের হাতে । খুনি জয়ন্ত'র স্ত্রী ন'মাসের অন্তঃস্বত্তা  । তা সত্ত্বেও প্রাক্তন প্রেমিকা প্রিয়াঙ্কা পুরকাইতের (২০) সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চেয়েছিল সে । তাতেই আপত্তি জানায় প্রিয়াঙ্কা ও তার পরিবার । সেই আপত্তি মানতে না পেরেই জয়ন্ত খুনের হুমকি দিয়েছিল প্রিয়াঙ্কা ও তার পরিবারকে । এরপর শনিবার সকালে প্রিয়াঙ্কাকে গুলি করে খুন করে জয়ন্ত ।

প্রিয়াঙ্কার এক আত্মীয় এদিন বলেন, "পারিবারিক এক অনুষ্ঠানে আলাপের পর প্রিয়াঙ্কা ও জয়ন্তর মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক তৈরি হয় । দু-তিন মাস পর প্রিয়াঙ্কা যখন জানতে পারে জয়ন্ত বিবাহিত ও তার স্ত্রী সন্তানসম্ভবা তারপর সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চেয়েছিল । তখন জয়ন্ত তাঁকে বলে 'বিবাহিত বলে কি প্রেম করা যায় না'! প্রিয়াঙ্কা তাতে রাজি না হওয়াতেই এভাবে খুন হল ওকে ।"

পুলিশ বলছে, প্রিয়াঙ্কাকে নৃশংসভাবেই খুন করা হয়েছে। কারণ মৃতদেহে থাকা আঘাতের চিহ্নতেই আক্রোশ স্পষ্ট ধরা পড়েছে । জয়ন্ত শুধু গুলি চালিয়েছে এমন নয় , তার আগে তার ঘাড়ে, গলায় ও বুকে ছুরি দিয়ে এলোপাথাড়িভাবে একাধিকবার আঘাত করে । তারপর ঘাড়ে বন্দুক ঠেকিয়ে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি চালায় ।  তাতেই স্পষ্ট শুধু খুন করাই নয়, জয়ন্ত প্রেম-প্রস্তাব না মানার আক্রোশ মেটাতে এসেছিল ।

শনিবার সকালের এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে বিকেলেই রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ গ্রেফতার করে অভিযুক্ত জয়ন্তকে। তবে খুনে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্রটি এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি । সেটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে । কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা প্রধান মুরলিধর শর্মা জানিয়েছেন , ধৃতের বিরুদ্ধে ৩০২ ধারায় খুনের মামলা রুজু হয়েছে । কোথা থেকে সে এই আগ্নেয়াস্ত্রটি পেল, কত টাকায় কিনেছে এবং খুনের পর সেটি কোথায় ফেলে দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে জানতে ধৃতকে জেরা করা হচ্ছে । পাশাপাশি প্রেমঘটিত কারণের জেরেই প্রিয়াঙ্কাকে খুন করেছে নাকি অন্য কোনও কারণ রয়েছে এই ঘটনার নেপথ্যে তা-ও জানার চেষ্টা চলছে ।

রবিবার অভিযুক্ত জয়ন্তকে আলিপুর আদালতে পেশ করবে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ । ধৃতকে ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতে রাখার আবেদন জানানো হবে । তারপর তাকে নিয়ে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করবেন তদন্তকারীরা । পাশাপাশি এই খুনের নেপথ্যে জয়ন্ত ছাড়া আর কেউ যুক্ত কিনা তা-ও জানার চেষ্টা করা হবে ।

SUJOY PAL

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 20, 2020, 8:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर