কোন কোন দাবিতে আগামিকাল ও শনিবার ব্যাঙ্ক ধর্মঘট ? জেনে নিন

কোন কোন দাবিতে আগামিকাল ও শনিবার ব্যাঙ্ক ধর্মঘট ? জেনে নিন
Representational Image

ব্যর্থ আলোচনা। তাই ব্যাঙ্ক ধর্মঘটও প্রত্যাহার হল না। গোটা দেশ জুড়ে ৩১ জানুয়ারি ও পয়লা ফেব্রয়ারি ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকছে।

  • Share this:

#কলকাতা: আর্থিক সমীক্ষা ও বাজেট পেশের দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক। আলোচনায় সমাধানসূত্র না বেরনোয় ৩১ জানুয়ারি ও পয়লা ফেব্রুয়ারি ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের সিদ্ধান্ত থেকে সরল না ব্যাঙ্ককর্মীদের যৌথ মঞ্চ।

ব্যর্থ আলোচনা। তাই ব্যাঙ্ক ধর্মঘটও প্রত্যাহার হল না। গোটা দেশ জুড়ে ৩১ জানুয়ারি ও পয়লা ফেব্রয়ারি ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকছে। ২ ফেব্রুয়ারি রবিবার। তাই পরপর ৪দিন ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকছে।

শুক্র ও শনিবার বন্ধ ব্যাঙ্ক ৷ মাসের শেষ ও শুরুতে ব্যাঙ্ক ধর্মঘট হওয়ায় বিপাকে পড়বেন বহু মানুষ। বহু সংস্থায় মাস- মাইনে আটকে যাবে। এমনকি মাস কাবারি জিনিসপত্র কেনার মতো টাকাও মানুষের হাতে থাকবে কিনা, সংশয়।

যাঁরা অনলাইন বা এটিএম ব্যবহারে অভ্যস্ত নন, তাদেরই বেশি সমস্যায় পড়তে হবে ৷ ১২ দফা দাবিতে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দেয় ব্যাঙ্ক কর্মী ও অফিসারদের সংগঠন। তাদের মূল দাবি-

২০ শতাংশ হারে বেতন বাড়ানো কেন্দ্রের সঙ্গে সমহারে বেতন সমপদে একই হারে বেতন

সপ্তাহে পাঁচদিন কাজ ব্যাঙ্কে নতুন কর্মী নিয়োগ

বৃহস্পতিবার ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্কস অ্যাসোসিয়েশনের (আইবিএ) সঙ্গে বৈঠকে বসে ন’টি সংগঠনের যৌথ মঞ্চ। কিন্তু দীর্ঘ আলোচনার পরেও সমাধানসূত্র  মেলেনি।

১২.৫০ শতাংশ মাইনে বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয় ৷ বেশ কয়েকটি দাবি নিয়ে কোনও আশ্বাস দিতে চাননি আইবিএ কর্তারা ৷ সূত্রের খবর, মাইনে বাড়ানো নিয়ে সমঝোতা না হওয়াতেই আলোচনা ভেস্তে যায়।

দাবি না মিটলে মার্চের শুরুতে তিনদিন ধর্মঘট হবে বলে জানিয়েছে যৌথমঞ্চ। এপ্রিল থেকে লাগাতার ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে।

বাজেট ও আর্থিক সমীক্ষার রিপোর্ট প্রকাশের দিন ব্যাঙ্ক ধর্মঘট এড়াতে চেষ্টা চালিয়েছিল কেন্দ্র।মূলত কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রকের উদ্যোগেই বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসে সংশ্লিষ্ট সবপক্ষ। তবে তাতেও কাজের কাজ হল না। ব্যাঙ্ক বন্ধের জেরে বড়সড় ভোগান্তির মুখে পড়তে চলেছেন সাধারণ মানুষ।

First published: January 30, 2020, 6:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर