• Home
  • »
  • News
  • »
  • kolkata
  • »
  • REASON BEHIND TMC HAS GONE FOR A BIG CHANGE AFTER A LANDSLIDE VICTORY IN WEST BENGAL ASSEMBLY ELECTION 2021 ARC

TMC : তৃণমূলের অন্দরমহলে এই বড়সড় পরিবর্তন কেন?

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ফাইল ছবি

এ যেন পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হল ৷ টানটান উত্তেজনা তৃণমূলের (TMC) মধ্যে গত এক মাস ধরেই ছিল ৷

  • Share this:

কলকাতা: এ যেন পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হল৷ টানটান উত্তেজনা তৃণমূলের অন্দরে গত এক মাস ধরেই ছিল ৷ তবে ফলপ্রকাশের সময় যে দলের খোলনলচের আমূল পরিবর্তিত হবে, সে ধারণা অনেকেরই ছিল না ৷

ফলপ্রকাশিত হতেই দেখা গেল দু’টি ছাড়া সব জেলাতেই পরিবর্তন  করল দল। অনুব্রত মণ্ডল ও শুভাশিস চক্রবর্তী থাকলেন তাঁদের নিজেদের স্থানেই ৷ বাকি সব জায়গাতে সংস্কারের জোয়ার দেখা গেল। ৫ জন মন্ত্রী সভাপতির পদ থেকে বাদ গেলেন এবং ৫ জনকে সরানো হল সরাসরি চেয়ারম্যানের পদ থেকে ।

দল ও প্রশাসন আলাদা

এক ব্যক্তি এক পদ এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে এ কথা অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন সুপ্রিমো৷  কারণ হিসেবে রাজনৈতিক মহল বলছে,স্বয়ং নেত্রীই চাইছেন দল আর প্রশাসনকে আলাদা করতে। দলের অন্দরমহলে কান পাতলে শোনা যাচ্ছে, একাধিক পদ নিয়ে থাকলে কোনও ব্যক্তি  সব কাজ ভাল করে করতে পারেন না, এই যুক্তিকে হাতিয়ার করেই রদবদল করা হয়েছে৷

গোষ্ঠী কোন্দলের বিকল্প

গোষ্ঠী কোন্দল তৃণমূলের পুরনো রোগ৷ সেই রোগের ওষুধ হিসেবেই এবার অনেক জেলায় বিকল্প মুখকে সভাপতি করা হলো । কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্বে এলেন মাথাভাঙার গিরীন্দ্রনাথ বর্মন। দায়িত্ব থেকে সরানো হল পার্থপ্রতিম রায়কে। দলের জেলা কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে উদয়ন গুহকে। পার্থপ্রতিম রায়কে এনবিএসটিসির চেয়ারম্যান করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর। মালদহেও জেলা তৃণমূল সভাপতি ও চেয়ারম্যান বদল করা। সরানো হলো মৌসম বেনজির নূর এবং কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীকে। মালদহ তৃণমূলের নতুন জেলা সভাপতি হলেন আবদুল রহিম বক্সী।

স্বচ্ছ ভাবমূর্তির জন্য তারুণ্যে জোর

চলতি বছরের বিধানসভা নির্বাচন ছিল সেই বহুচর্চিত পরীক্ষা ৷ তাতে যারা খারাপ ফল করেছেন এবং যারা ফাঁকি দিয়েছেন, তাঁদেরও একটা বার্তা দেওয়া হল বলে মনে করছে দলের একাংশ । তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে দুর্বল উত্তরবঙ্গের প্রতিটি জেলার সভাপতি বদল করেছেন তৃণমূল নেত্রী।  আশানুরুপ ফল না হওয়াই এর কারণ বলে মনে করা হচ্ছে । এক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রীর অগ্রাধিকার নতুন মুখ এবং তারুণ্য।

জেলাতেই ভাগ করা

তৃণমূলের এই রদবদলে বিশেষ ভাবে যে বিষয়টি নজর কাড়ছে তা হল- সাংগঠনিক দিক থেকে ভাগ করা হয়েছে একাধিক জেলাকে ৷  উত্তর ২৪ পরগনা ৪ ভাগে এবং বাকি বেশির ভাগ জেলা দু’ভাগ । জেলার ওপর বেশি নজর দেওয়ার জন্যই এই সিদ্ধান্তে বলে মনে করা হচ্ছে ।

আবার চর্চায় রাজীব

প্রসঙ্গত রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের জেলাতেই (হাওড়ায়) বিশেষ দায়িত্ব পেলেন কল্যাণেন্দু ঘোষ। ভাস্কর ভট্টাচার্যকে সরিয়ে তাঁকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এই সিদ্ধান্তের মধ্যেই মধ্যে যারা দলে ফিরতে চান তাদের জন্য একটা বার্তা আছে বলে মনে করছে দলের একাংশ। এরই পাশাপাশি স্বচ্ছ ভাবমূর্তি আর নতুন প্রজন্মের ওপর বেশি জোর দিচ্ছে দল তা পরিষ্কার ।

Published by:Arpita Roy Chowdhury
First published: